ঢাকা, বুধবার, ১৪ আশ্বিন ১৪২৭, ৩০ সেপ্টেম্বর ২০২০, ১১ সফর ১৪৪২

জাতীয়

মহালয়ার এক মাস পরে এবার দুর্গা পূজা

দীপন নন্দী, স্টাফ করেসপন্ডেন্ট | বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম
আপডেট: ১৮১৫ ঘণ্টা, সেপ্টেম্বর ১৬, ২০২০
মহালয়ার এক মাস পরে এবার দুর্গা পূজা দেবী দুর্গার প্রতিমা

ঢাকা: এর আগে সবশেষ এমনটা ঘটেছিল ১৯৮২ সালে। তিন যুগেরও বেশি সময় পর আবারও পিতৃপক্ষের শেষে অনুষ্ঠিত হবে না শারদীয় দুর্গা পূজা।

ফলে আগামী বৃহস্পতিবার (১৭ সেপ্টেম্বর) মহালয়ার ৩৫ দিন পর ২২ অক্টোবর মহাষষ্ঠীর মধ্য দিয়ে শুরু হবে বাঙালি হিন্দুদের সবচেয়ে বড় ধর্মীয় উৎসব।

চলতি বছরের ১ জুলাই থেকে চতুর্মাস শুরু হয়েছে। শাস্ত্র মতে, দেবশয়নী একাদশী থেকে শুরু করে দেবপ্রবোধিনী একাদশী পর্যন্ত সময়কালকে চতুর্মাস বলা হয়। এই চার মাসে বিবাহসংস্কার, গৃহ প্রবেশ ইত্যাদি কোনও ধরনের মাঙ্গলিক কাজ নিষিদ্ধ। দেবোত্থান একাদাশীর সঙ্গে শুভ কাজ আবারও শুরু করা যাবে।

যার কারণে সমস্ত পূজাপার্বণ প্রায় এক মাস দেরিতে শুরু হবে। পিতৃপক্ষ শেষ হওয়ার পরই দুর্গাপূজা শুরু হতো, কিন্তু এ বছর তা হবে না। পিতৃপক্ষ শেষ হওয়ার পরই আশ্বিন মাসের অধিকমাস বা মলমাস শুরু হবে। যার ফলে দেবীপক্ষ শুরু হতে দেরি হবে ২০ থেকে ২৫ দিন। দুর্গা পূজার সঙ্গে সঙ্গে পিছিয়ে যাবে লক্ষ্মী পূজা ও কালী পূজাও।

হিন্দু পঞ্জিকা পরিচালিত হয় সূর্য ও চন্দ্র মাসের গণনার ওপর ভিত্তি করে। এ পঞ্জিকা অনুযায়ী, একটি সূর্যবর্ষ ৩৬৫ দিন ও প্রায় ৬ ঘণ্টার হয়ে থাকে। আবার চন্দ্রবর্ষ ৩৫৪ দিনের হয়। এই দুইয়ের মধ্যে ১১ দিনের পার্থক্য থাকে। তিন বছরে এটি এক মাসের সমান হয়ে যায়। এই অতিরিক্ত মাসের পার্থক্য দূর করার জন্য প্রতি তিন বছরে একবার অতিরিক্ত মাস আসে। একেই অধিকমাস বলা হয়। এ বছর আশ্বিন মাসের অধিকমাস।

এ অধিকমাস সকল পবিত্র কার্যবর্জিত। এই পুরো মাসে কোন সূর্য সংক্রান্তি না থাকায় এই মাসটি মলিন হয়ে যায় বলে মনে করা হয়। যার কারণে একে মলমাসও বলা হয়। আবার প্রচলিত ধারণা অনুযায়ী একই মাসে দুটি অমাবস্যাকেও মলমাসের অন্যতম কারণ মনে করা হয়।

মহালয়ার এক মাসের বেশি সময় পর দুর্গা পূজা শুরু হওয়ার বিষয়ে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের জগন্নাথ হলের প্রধান পুরোহিত সাধন চক্রবর্তী বাংলানিউজকে বলেন, এক মাসে দুটি অমাবশ্যা পড়লে সেই মাসটি আমরা অশুদ্ধ মাস হিসেবে মনে করি। একে মলমাস বলা হয়। এই আশ্বিন মাস হলো মলমাস। মলমাসে কোন প্রকার ধর্মীয় কার্যক্রম হয় না। কারণ এ মাসটি অশুদ্ধ। যার কারণে এবারের পিতৃপক্ষ শেষ হওয়ার ৩৫ দিন পর দেবীপক্ষ শুরু হবে।

এবারের পূজার সময়সূচি
এবার ২১ অক্টোবর বুধবার পঞ্চমী পড়েছে। মহাষষ্ঠীর দিন হলো ২২ অক্টোবর। মহাসপ্তমী পড়ছে ২৩ অক্টোবর। ২৪ অক্টোবর মহাঅষ্টমীর দিন। সেদিন পড়ছে কুমারী পূজা থেকে সন্ধিপূজার তিথি। ২৫ অক্টোবর মহানবমী। সেদিন থাকছে নবমীর হোম ও বলিদানের তিথিও। ২৬ অক্টোবর বিজয়া দশমী। ওই দিন বিকেলে বিসর্জনের মধ্য দিয়ে মর্ত্যলোক ত্যাগ করবেন মা দুর্গা।

বাংলাদেশ সময়: ১৮০৮ ঘণ্টা, সেপ্টেম্বর ১৬, ২০২০
ডিএন/এমজেএফ

বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।
Alexa