ঢাকা, মঙ্গলবার, ১৪ আশ্বিন ১৪২৭, ২৯ সেপ্টেম্বর ২০২০, ১০ সফর ১৪৪২

জাতীয়

শিক্ষক‌কে কান ধ‌রে ওঠ-বসের ঘটনায় মামলা

স্টাফ ক‌রেসপ‌ন্ডেন্ট  | বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম
আপডেট: ২৩২৬ ঘণ্টা, সেপ্টেম্বর ১৫, ২০২০
শিক্ষক‌কে কান ধ‌রে ওঠ-বসের ঘটনায় মামলা ...

ব‌রিশাল: ব‌রিশা‌লে শিক্ষককে কান ধ‌রে ওঠ-বস করানোর ঘটনায় ডি‌জিটাল নিরাপত্তা আই‌নে মামলা দা‌য়ের করা হ‌য়ে‌ছে।  

মঙ্গলবার (১৫ সে‌প্টেম্বর) রা‌তে এ তথ্য জা‌নান ব‌রিশাল কোতয়ালি ম‌ডেল থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) নুরুল ইসলাম।

বাংলানিউজকে তিনি বলেন, নামধারী দু’জন এবং অজ্ঞাত সাত-আট জ‌নের নামে ওই শিক্ষক বাদী হ‌য়ে মামলা‌টি দা‌য়ের করেছেন।  

এর আগে গত ১৩ সেপ্টেম্বর সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে ফেসবুকে শিক্ষককে কান ধ‌রে ওঠ-বসের ভিডিওটি ভাইরাল হয়। তবে সেই ঘটনাটি এক মাস আগের বলে জানা গেছে।

আরও পড়ুন>>  শিক্ষককে কান ধরে ওঠ-বস করালেন ছাত্ররা

ভিডিও ভাইরাল হওয়া ওই শিক্ষক পটুয়াখালীর বাউফল উপজেলার কনকদিয়া ইউনিয়নের আয়লা গ্রামের বাসিন্দা। তিনি ২০১৫ সাল থেকে ২০১৮ সাল পর্যন্ত বরিশাল নগরের রুপাতলীর জম জম ইনস্টিটিউটে শিক্ষক হিসেবে কর্মরত ছিলেন। এর বাইরেও তিনি পটুয়াখালীসহ বিভিন্ন স্থানে পৃথক প্রতিষ্ঠানে চাকরি করেছেন।  

সবশেষ করোনাকালে তিনি পুনরায় জম জম ইনস্টিটিউটে অনলাইনে মেডিকেল ডিপ্লোমার কয়েকটি ক্লাস নিয়েছিলেন বলে জানিয়েছেন ওই প্রতিষ্ঠানের নির্বাহী পরিচালক সাজ্জাদুল হক। তবে তাকে পরবর্তীতে ক্লাস নেওয়া থেকে বিরত থাকতে বলা হয়েছে।

জানা গে‌ছে, নগরীর জম জম ইন্স‌টি‌টিউটের সা‌বেক শিক্ষকের সঙ্গে তুচ্ছ বিষয় নি‌য়ে দ্বন্দ্বকে কেন্দ্র ক‌রে গত ২৬ আগস্ট ওই ইন্স‌টি‌টিউ‌টের ছাত্র ইম‌তিয়াজ ইমন ও তার সহ‌যো‌গিরা নগরীর অক্স‌ফোর্ড মিশন রো‌ডে নি‌য়ে তা‌কে মারধর ক‌রেন। পাশাপা‌শি ওই শিক্ষক‌কে কান ধ‌রে ওঠ-বস ক‌রি‌য়ে সেই  ভি‌ডিও সামা‌জিক যোগা‌যোগ মাধ্যমে ছ‌ড়ি‌য়ে দেওয়া হয়। তখন জমজম ইন্স‌টি‌টিউ‌টের ছাত্রী এবং ছাত্র ইম‌নের স্ত্রী মনিরাও উপ‌স্থিত ছি‌লেন। তখন ইমন ও তার সহ‌যো‌গিরা ম‌নিরা‌কে যেন বিরক্ত করা না হয় সেই জন্য শিক্ষক সজল‌কে শপথ বাক্যও পাঠ করান, যা ভাইরাল হওয়া ভি‌ডিতেও দেখা এবং শোনা যায়।  

বাংলা‌দেশ সময়: ২৩২৩ ঘণ্টা, সে‌প্টেম্বর ১৫, ২০২০
এমএস/এসআরএস

বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।
Alexa