ঢাকা, বুধবার, ১৫ আশ্বিন ১৪২৭, ৩০ সেপ্টেম্বর ২০২০, ১১ সফর ১৪৪২

জাতীয়

গুলিতে নিহত ব্যক্তির মরদেহ কবর থেকে উত্তোলন

স্টাফ করেসপন্ডেন্ট | বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম
আপডেট: ২২৫৫ ঘণ্টা, আগস্ট ১৪, ২০২০
গুলিতে নিহত ব্যক্তির মরদেহ কবর থেকে উত্তোলন

কুড়িগ্রাম: কুড়িগ্রামের রৌমারী সীমান্তে ভারতীয় সীমান্তরক্ষী বাহিনীর (বিএসএফ) গুলিতে নিহত আখিরুল ইসলাম (২২) নামে এক বাংলাদেশি গরু ব্যবসায়ীর গলিত মরদেহ তিনদিন পর কবর থেকে উত্তোলন করা হয়েছে।  


শুক্রবার (১৪ আগস্ট) বিকেলে আদালতের নির্দেশে কবর থেকে মরদেহ উত্তোলন করে সুরতহাল শেষে ময়নাতদন্তের জন্য কুড়িগ্রাম মর্গে পাঠিয়েছে পুলিশ।

নিহত আখিরুল ইসলাম দাঁতভাঙ্গা ইউনিয়নের চরইটালুকান্দা গ্রামের আবুল হোসেনের ছেলে।


মরদেহ উত্তোলনের সময় উপস্থিত ছিলেন- নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট নবিরুল ইসলাম, রৌমারী থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) আবু মো. দিলওয়ার হোসেন, উপজেলা স্বাস্থ্য কর্মকর্তা মমিনুল ইসলামসহ নিহতের স্বজনরা।  


ঘটনার দিন মঙ্গলবার (১১ আগস্ট) দিনগত রাতে ভারতীয় সীমান্ত দিয়ে গরু আনতে গেলে বিএসএফের গুলিতে আখিরুলের মৃত্যু হলে আইনি ঝামেলা এড়াতে রাতেই গোপনে ময়নাতদন্ত ছাড়াই তার মরদেহ দাফন করেন স্বজনরা।


রৌমারী থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) আবু মো. দিলওয়ার হোসেন বাংলানিউজকে জানান, বাংলাদেশের বেশ কিছু গরু ব্যবসায়ী গত মঙ্গলবার রাতে সীমান্ত পার হয়ে ভারতে প্রবেশ করে গরু আনতে যান। গরু নিয়ে গভীর রাতে সীমান্তের ১০৫২ ও ৫৩ নম্বর মেইন পিলার এলাকা দিয়ে আসার পথে ভারতের আসামের আলগা ক্যাম্পের টহলরত বিএসএফ জোয়ানরা তাদের লক্ষ্য করে গুলি ছোঁড়ে। এসময় আখিরুল গুলিতে নিহত হন।  


রাতেই নিহত আখিরুলকে গোপনে বাড়িতে এনে স্বজনরা ময়নাতদন্ত ছাড়াই তার মরদেহ দাফন করে। পরে আদালতের নির্দেশে শুক্রবার তার মরদেহ উত্তোলন করে সুরতহাল শেষে নৌকাযোগে কুড়িগ্রাম হাসপাতাল মর্গে ময়নাতদন্তের জন্য পাঠানো হয়েছে।

বাংলাদশে সময়: ২২৫৫ ঘণ্টা, আগস্ট ১৪, ২০২০
এফইএস/আরআইএস

বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।
Alexa