ঢাকা, বুধবার, ৮ আশ্বিন ১৪২৭, ২৩ সেপ্টেম্বর ২০২০, ০৪ সফর ১৪৪২

জাতীয়

পাটুরিয়ায় যত ভোগান্তি ট্রাকচালকদের

সাজিদুর রহমান রাসেল, ডিস্ট্রিক্ট করেসপন্ডেন্ট | বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম
আপডেট: ১৯৫৪ ঘণ্টা, আগস্ট ১৪, ২০২০
পাটুরিয়ায় যত ভোগান্তি ট্রাকচালকদের ট্রাকের সারি। ছবি: বাংলানিউজ

মানিকগঞ্জ: ঘাটে আটকে থাকতে থাকতে অসহ্য হয়ে গিয়েছিলাম। প্রায় ৩৫ ঘণ্টা পর দেখা পেয়েছি ফেরির।

নানা অজুহাতে আমাদের ট্রাকগুলো আটকিয়ে রাখে, যাত্রীবাহী পরিবহনের পাশাপাশি দুই একটা করে পণ্যবোঝাই ট্রাক পার করলে কিন্তু ট্রাকের এতো জটলা হয় না ঘাট এলাকায়।

এ কথাগুলো বলছিলেন চুয়াডাঙ্গাগামী রড বোঝাই ট্রাকচালক সাগর মিয়া।

তিনি আরো বলেন, ফেরিঘাটের অফিসার থেকে শুরু করে অন্যান্য লোকজন আমাদের মানুষই মনে করে না। কিছু বলতে গেলে আমাদের গালিগালাজ করে বিআইডব্লিউটিসির লোকজন। ঘাটে আটকে থাকলে তিন বেলা খাবারসহ প্রতিদিন হাজার টাকার ওপরে খরচ হয়। মালিক তো হিসাব করে টাকা দিয়ে দেয় কিন্তু ঘাটে এসে আটকে পড়ায় সব টাকা শেষ হয়ে গেছে এখন টিকিট কাটার জন্য আবার মালিকের কাছ থেকে টাকা আনতে হয়েছে।

শুক্রবার (১৪ আগস্ট) সকাল থেকেই যাত্রীবাহী পরিবহন ও ছোট ব্যক্তিগত গাড়ির চাপ থাকায় পণ্যবোঝাই ট্রাক পারাপার বন্ধ রয়েছে। অগ্রাধিকার ভিত্তিতে পরিবহন পারাপার করা হচ্ছে পাটুরিয়া ঘাট এলাকায় আর এতে করে ট্রাক ট্রার্মিনালে জড়ো হতে থাকে পণ্যবোঝাই ট্রাকগুলো। ঘাটের দুটি ট্রাক ট্রার্মিনালে জায়গা না থাকায় উথুলী সংযোগ মোড়ে পাটুরিয়ামুখী ট্রাকগুলোকে আটকে রাখা হয়েছে। ঘাট এলাকায় চাপ কমে এলে সিরিয়াল অনুযায়ী ট্রাকগুলোকে পাটুরিয়া ফেরিঘাট অভিমুখে পাঠানো হবে। পদ্মা নদীতে স্রোত আর ফেরি সংকটের কারণে ঘাট এলাকায় দুই তিন দিন আটকে থাকতে হয় পণ্যবোঝাই ট্রাকগুলোকে এমন অভিযাগ চালকদের।

ফরিদপুরগামী এলপি গ্যাস ভর্তি ট্রাকের চালক মুস্তফা বলেন, পরিবহন অগ্রাধিকার ভিত্তিতে পার করুক তাতে আমাগো কোনো সমস্যা নাই। পরিবহনের সঙ্গে দুই একটা করে ট্রাক দিলে ঘাট এলাকায় এত চাপ পড়ে না। শুধু বলে রাতে পার করবে কিন্তু রাতেও তো একই অবস্থা।  

যশোরগামী আরো এক ট্রাকচালক বলেন, ঘাটে ট্রাক আটকে রেখে ফেরির লোকজন ধান্দা করার পাঁয়তারা করে। এখন ট্রাকের টিকিট থেকে অতিরিক্ত টাকা নিতে পারছে না তাই নানাভাবে আমাদের হয়রানি করছে।

বরঙ্গাইল হাইওয়ে ফাঁড়ির ইনচার্জ বাসুদেব সিনহা বাংলানিউজকে বলেন, পাটুরিয়া ঘাটে এখনো পরিবহন ও ট্রাকের চাপ আছে যার কারণে উথুলী সংযোগ মোড়ে আটকানো ট্রাকগুলোকে ছাড়া হচ্ছে না। ঘাট এলাকায় চাপ কমে এলে ট্রাকগুলোকে ছেড়ে দেওয়া হবে।

বাংলাদেশ অভ্যন্তরীণ নৌ পরিবহন করপোরেশন (বিআইডব্লিউটিসি) আরিচা সেক্টরের ডিজিএম জিল্লুর রহমান বাংলানিউজকে বলেন, পাটুরিয়া দুটি ট্রাক ট্রার্মিনালে পণ্যবোঝাই ট্রাক পারের অপেক্ষায় আছে চার শতাধিক এবং শুনেছি উথুলী মোড়েও নাকি দুই থেকে আড়াই শতাধিক ট্রাক আটকা আছে। পরিবহনের চাপ কমে গেলে ট্রাক পার করা হবে। বর্তমানে ১৫টি ফেরি দিয়ে পাটুরিয়া-দৌলতদিয়া নৌরুটে যানবাহন পারাপার করছে বলেও জানান তিনি।

বাংলাদেশ সময়: ১৮৫০ ঘণ্টা, আগস্ট ১৪, ২০২০
আরএ

বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।
Alexa