ঢাকা, বুধবার, ৮ আশ্বিন ১৪২৭, ২৩ সেপ্টেম্বর ২০২০, ০৪ সফর ১৪৪২

জাতীয়

অনলাইনে রুশ বিজ্ঞান ও সংস্কৃতি কেন্দ্রের উড়োজাহাজ প্রদর্শনী

ফিচার রিপোর্টার | বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম
আপডেট: ১৭১১ ঘণ্টা, আগস্ট ১৩, ২০২০
অনলাইনে রুশ বিজ্ঞান ও সংস্কৃতি কেন্দ্রের উড়োজাহাজ প্রদর্শনী

ঢাকা: রাশিয়ার বিমান বাহিনী দিবস উপলক্ষে দেশটির উদ্ভাবিত উড়োজাহাজের ইতিহাসের সংক্ষিপ্ত রূপ নিয়ে একটি অনলাইন প্রদর্শনীর আয়োজন করেছে ঢাকাস্থ রুশ বিজ্ঞান ও সংস্কৃতি কেন্দ্র (আরসিএসসি)।

বাংলাদেশ অ্যাস্ট্রোনমিক্যাল অ্যাসোসিয়েশনের (বিএএ) সহায়তায় আয়োজিত এই প্রদর্শনীতে দেখা মিলবে রাশিয়ার উদ্ভাবিত প্রায় ৫০টিরও বেশি উড়োজাহাজের।

জানা যাবে এ সম্পর্কে বিভিন্ন তথ্যও।

রাশিয়ান উড়োজাহাজের সূচনা হয়েছিল মূলত ১৯১০ সাল থেকে। সি-২ নামের নিজেদের উদ্ভাবিত একটি উড়োজাহাজ সেসময় প্রথম উড়েছিল রাশিয়ার আকাশে। পরে এই উড়োজাহাজটির পরিসর বাড়িয়ে চার-ইঞ্জিনযুক্ত প্লেন তৈরিতে গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা পালন করে। তবে ১৯১০ সালে উড়োজাহাজ তৈরি করলেও বিস্তৃত পরিসরে রাশিয়া প্লেন তৈরি শুরু করে ১৯২৮ সালে।

ঢাকাস্থ  রুশ বিজ্ঞান ও সংস্কৃতি কেন্দ্র নির্মিত প্রায় ৫ মিনিটের একটি ভিডিও চিত্রে উঠে আসবে রাশিয়া এবং উড়োজাহাজ সম্পর্কিত আরও নানা তথ্য। দেখা মিলবে বিভিন্ন আকার আর আঙ্গিকের নানা রকম প্লেনেরও।

আয়োজন সম্পর্কে বাংলাদেশ অ্যাস্ট্রোনমিক্যাল অ্যাসোসিয়েশনের সদস্যরা জানান, উড়োজাহাজ চলাচলের ক্ষেত্রে ইউএসএসআর এবং রাশিয়ার প্রয়োগকৃত সামরিক ও প্রযুক্তিগত অগ্রগতি সম্পর্কে ধারণা পাওয়ার সুযোগ পেয়ে ভীষণ ভালো লাগলো। এটা সত্যিই উড়োজাহাজ সম্পর্কিত অনেক দারুণ একটি আয়োজন।

অ্যাসোসিয়েশনের প্রধান মসহুরুল  আমিন এই জাতীয় অনুষ্ঠানের সুস্পষ্ট উপকারীতার ওপর জোর দিয়ে বলেন, রাশিয়ার বৈজ্ঞানিক কৃতিত্ব সবার জানা। সেটির এমন প্রচার অনন্য।

এসময় তারা আরসিএসসির পরিচালক ম্যাক্সিম দোব্রখোতভকে ধন্যবাদ জানান এবং আশা প্রকাশ করেন যে, ভবিষ্যতে এই ধরনের বিজ্ঞান ও শিক্ষামূলক অনুষ্ঠানের আয়োজন অব্যাহত থাকবে।  

এই প্রদর্শনীটি দেখা যাবে ইউটিউবে এই লিঙ্কে

বাংলাদেশ সময়: ১৭১০ ঘণ্টা, আগস্ট ১৩, ২০২০
এইচএমএস/এইচএডি

বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।
Alexa