ঢাকা, সোমবার, ১৩ আশ্বিন ১৪২৭, ২৮ সেপ্টেম্বর ২০২০, ০৯ সফর ১৪৪২

জাতীয়

বরাদ্দ পেলেও জায়গার অভাবে হচ্ছে না শহীদ মিনার

শাহিদুল ইসলাম সবুজ, ডিস্ট্রিক্ট করেসপন্ডেন্ট | বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম
আপডেট: ০৯০৫ ঘণ্টা, আগস্ট ১৩, ২০২০
বরাদ্দ পেলেও জায়গার অভাবে হচ্ছে না শহীদ মিনার

জয়পুরহাট: জয়পুরহাট সদর উপজেলার জামালপুর পুরাতন বাজার সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়। বেশ পুরনো এই বিদ্যালয়ের প্রায় ২০০ জন কোমলমতি শিক্ষার্থীদের জন্য একটি শহীদ মিনার প্রয়োজন।

 

কিন্তু মাত্র ২২ ফিট জায়গার অভাবে দুই বছর আগে জেলা পরিষদ থেকে ৩ লাখ টাকারও বেশি বরাদ্দ পাওয়া অর্থ কাজে লাগাতে পারছে না কর্তৃপক্ষ। অথচ বিদ্যালয়ের পশ্চিম পাশেই যুগের পর যুগ ইউনিয়ন ভূমি অফিসের দখলে থাকা ৩৪ শতক খাস জমি অলস পড়ে আছে।  

আর এই জমির বেশ কিছু অংশ স্থানীয়রা দোকান, বাড়ি ঘর, গরু-ছাগল রাখার জায়গাসহ বিভিন্ন কাজে ব্যবহার করলেও ভাষা শহীদদের প্রতি শ্রদ্ধা জানানোর জন্য শুধুমাত্র একটি শহীদ মিনার নির্মাণের জায়গা হচ্ছে না।  

এ বিষয়ে মাস তিনেক আগে অবসরে যাওয়া জামালপুর ইউনিয়ন ভূমি সহকারী সানোয়ার হোসেন বাংলানিউজকে বলেন, একটি সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়, একটি হাফেজিয়া মাদ্রাসার কোমলমতি শিক্ষার্থী ও স্থানীয় বাসিন্দাদের জন্য সেখানে একটি শহীদ মিনার গড়ে তোলা জরুরি। কিন্তু নানা বাধার কারণে সেখানে সেটি সম্ভব হচ্ছে না।  

বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক শাহানাজ আক্তার বলেন, এখানে একটি শহীদ মিনার নির্মাণের জন্য বিভিন্ন দপ্তরে মাসের পর মাস ঘুরেছি। অবশেষে জেলা পরিষদ থেকে ২ বছর আগে বরাদ্দ পেলেও জায়গা বরাদ্দের অভাবে শহীদ মিনার গড়ে তোলা সম্ভব হচ্ছে না। অথচ অনেক জায়গা আজ বেদখল হয়ে যাচ্ছে।

এ ব্যাপারে জামালপুর ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান হাসানুজ্জামান মিঠু বাংলানিউজকে বলেন, নানা বাধার কারণে এই বিদ্যালয়ের নামে আসা শহীদ মিনারের অর্থ কাজে লাগাতে পারছি না। সম্ভবত এই বরাদ্দের অর্থ দিয়ে স্থানীয় অন্য একটি বিদ্যালয় চত্বরে শহীদ মিনার গড়ে তোলা হবে।

জয়পুরহাট সদর উপজেলার নির্বাহী কর্মকর্তা (ইউএনও) মিল্টন চন্দ্র রায় বলেন, করোনা পরিস্থিতি স্বাভাবিক হলে আমরা আবারো বসে শহীদ মিনার নির্মাণের বিষয়ে চূড়ান্ত সিদ্ধান্ত নেবো।

বাংলাদেশ সময়: ২০৫৬ ঘণ্টা, আগস্ট ১৩, ২০২০
এনটি

বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।
Alexa