ঢাকা, শুক্রবার, ১০ আশ্বিন ১৪২৭, ২৫ সেপ্টেম্বর ২০২০, ০৬ সফর ১৪৪২

জাতীয়

যুদ্ধাপরাধ মামলায় সাক্ষী দেওয়ায় নির্যাতনের অভিযোগ

স্টাফ করেসপন্ডেন্ট | বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম
আপডেট: ১৪২১ ঘণ্টা, আগস্ট ৮, ২০২০
যুদ্ধাপরাধ মামলায় সাক্ষী দেওয়ায় নির্যাতনের অভিযোগ এম সারওয়ার খানের সংবাদ সম্মেলন

ঢাকা: আন্তর্জাতিক অপরাধ ট্রাইব্যুনালে যুদ্ধাপরাধের মামলায় সাক্ষী দেওয়ায় নির্যাতনের শিকার হচ্ছেন বলে অভিযোগ করেছেন প্রবীণ সাংবাদিক ও আওয়ামী লীগ নেতা এম সারওয়ার খান।

তিনি বলেন, ২০০৭ সালে দৈনিক ভোরের কাগজে আদমদীঘি থানার রাজাকার কমান্ডার আব্দুল মোমিন তালুকদার খোকার বিরুদ্ধে নিউজ করার পর থেকে তার আত্মীয় বগুড়ার দুপচাঁচিয়া উপজেলা আওয়ামী লীগ সভাপতি মিজানুর রাহমান খান সেলিমের রোষানলে পড়তে হয়।

শনিবার (০৮ আগস্ট) রাজধানীর জাতীয় প্রেসক্লাবে আয়োজিত এক সংবাদ সম্মেলনে এ অভিযোগ করেন এম সারওয়ার খান।

তিনি বলেন, আদমদীঘি থানা রাজাকার কমান্ডার আব্দুল মোমিন তালুকদার খোকা ও মিজানুর খান সেলিম পারিবারিক আত্মীয়। রাজাকার খোকার বিরুদ্ধে নিউজ করার পর থেকে আমাকে নানা প্রলোভন দেয়া হয়, টাকার প্রস্তাব দেয়া হয়। আমি এসব প্রত্যাখ্যান করে নিউজ করি, যা পরবর্তীতে ২০১৫ সালে আন্তর্জাতিক অপরাধ ট্রাইব্যুনাল সরেজমিন তদন্ত শুরু করে। এই মামলায় আমি আদালতে সাক্ষী দেওয়ায় সেলিম শুধু আমাকে নয়, আমার পরিবারকেও নির্যাতন করে। আমার ছেলেকে মিথ্যা মামলায় জেলে যেতে হয়েছে।

সারওয়ার খান আরও বলেন, আদালতের নির্দেশ রয়েছে আন্তর্জাতিক অপরাধ ট্রাইব্যুনাল মামলার কোনো সাক্ষী যেনো নির্যাতনের শিকার না হয়। এরপরও আমার পরিবারকে নানা নির্যাতনে পড়তে হয়েছে। সবশেষ আমাকে হত্যার হুমকি দেয়া হয়েছে, অথচ আমিও বগুড়ার দুপচাঁচিয়া উপজেলা আওয়ামী লীগের তথ্য ও গবেষণা সম্পাদক। আমি আমার নিরাপত্তা নিশ্চিতে প্রধানমন্ত্রীসহ প্রশাসনের সহায়তা কামনা করছি।

বাংলাদেশ সময়: ১৪১৮ ঘণ্টা, আগস্ট ০৮, ২০২০
ইএআর/এমজেএফ

বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।
Alexa