ঢাকা, রবিবার, ১২ আশ্বিন ১৪২৭, ২৭ সেপ্টেম্বর ২০২০, ০৮ সফর ১৪৪২

জাতীয়

বগুড়ায় গোসলে নেমে নিখোঁজ স্কুলছাত্রীর মরদেহ উদ্ধার

ডিস্ট্রিক্ট করেসপন্ডেন্ট | বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম
আপডেট: ১৫২১ ঘণ্টা, আগস্ট ৪, ২০২০
বগুড়ায় গোসলে নেমে নিখোঁজ স্কুলছাত্রীর মরদেহ উদ্ধার

বগুড়া: বগুড়ার ধুনট উপজেলায় গোসলে নেমে নিখোঁজের ২৪ ঘণ্টার পর হালিমা খাতুন (১০) নামে এক স্কুলছাত্রীর মরদেহ উদ্ধার করেছে পুলিশ।

মঙ্গলবার (৪ আগস্ট) দুপুর সাড়ে ১২টার দিকে উপজেলার চিকাশি ইউনিয়নের ইছামতি নদীর ঝিনাইঘাট এলাকা থেকে শিশুটির মরদেহ উদ্ধার করা হয়।

হালিমা খাতুন উপজেলার কালেরপাড়া ইউনিয়নের সরুগ্রামের আব্দুল বারিকের মেয়ে এবং শেরপুর গাড়ীদহ সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের প্রথম শ্রেণির শিক্ষার্থী ছিলো।

জানা যায়, উপজেলার চিকাশি ইউনিয়নের বড়িয়া গ্রামে মামা সাকিল হোসেনের বাড়িতে মা-বাবার সঙ্গে ঈদের দিন বেড়াতে যায় হালিমা খাতুন। সোমবার দুপুর ১টার দিকে হালিমা খাতুন প্রতিবেশী শিশুদের সঙ্গে ইছামতি নদীতে গোসল করতে যায়। নদীতে গোসল করতে নেমে পানির প্রবল স্রোতে নিখোঁজ হয় হালিমা। অনেক খোঁজাখুজির পরও হালিমাকে পাওয়া যায়নি।

এদিকে হালিমার স্বজনরা, ধুনট থানা পুলিশ ও ফায়ার সার্ভিস কর্মীদের খবর দিলে মঙ্গলবার সকাল থেকে উদ্ধার অভিযান চালানো হয়। এর একপর্যায়ে দুপুর সাড়ে ১২টার দিকে ইছামতি নদীতে নিখোঁজ হওয়ার স্থান থেকে দুই কিলোমিটার ভাটিতে ঝিনাই ঘাট এলাকা থেকে হালিমার মরদেহ উদ্ধার করা হয়।

ধুনট থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) কৃপা সিন্ধু বালা বাংলানিউজকে জানান, স্কুলছাত্রী হালিমা নদীর পানিতে ডুবে মারা গেছে। পানির প্রবল স্রোতে নিখোঁজ হওয়া হালিমার মরদেহ মঙ্গলবার দুপুর সাড়ে ১২টার দিকে উদ্ধার করা হয়েছে। আইনি প্রক্রিয়া শেষে হালিমার মরদেহ তার স্বজনদের কাছে হস্তান্তর করা হয়েছে।

বাংলাদেশ সময়: ১৫১১ ঘণ্টা, আগস্ট ০৪, ২০২০
কেইউএ/ওএইচ/

বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।
Alexa