ঢাকা, শনিবার, ৩১ শ্রাবণ ১৪২৭, ১৫ আগস্ট ২০২০, ২৪ জিলহজ ১৪৪১

জাতীয়

মাদকাসক্ত ছেলে বটি দিয়ে কুপিয়ে হত্যা করে মাকে

সিনিয়র করেসপন্ডেন্ট | বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম
আপডেট: ০৫২৩ ঘণ্টা, জুলাই ১৫, ২০২০
মাদকাসক্ত ছেলে বটি দিয়ে কুপিয়ে হত্যা করে মাকে

ঢাকা: নেশার টাকা না পেয়ে রাজধানীর কামরাঙ্গীরচর এলাকার বড়গ্রামে ছেলে জুয়েলের হাতে খুন হয় মা ইয়াসমিন আক্তার (৪৫)। এর আগে লালবাগ থানায় মাদক মামলায় গ্রেফতার হয় জুয়েল। গত তিনদিন আগে জেল থেকে ছাড়া পায় জুয়েল। 

মঙ্গলবার (১৪ জুলাই) রাতে কামরাঙ্গিরচর থানার উপ-পরিদর্শক (এসআই) জহিরুল ইসলাম বাংলানিউজকে বিষয়টি জানান।  

তিনি জানান, নেশার টাকা না দেওয়ায় ১৪ জুলাই রাত ৮টার দিকে ছুরিকাঘাতে হত্যা করে জুয়েল তার মাকে।

এসময় মা ইয়াসমিন বাসায় একাই ছিলেন। জুয়েলের বাবা সাকের আলী চা বিক্রি করেন। ঘটনার সময় তিনি বাইরে ছিলেন।

আরও পড়ুন>> কামরাঙ্গীরচরে মাকে হত্যার অভিযোগে ছেলে আটক

এসআই আরও জানান, জুয়েল বাসচালকের হেলপারি করতেন। সেখান থেকেই মাদকাসক্ত হয়ে পরে জুয়েল। তখন কাজকর্ম বন্ধ করে দেয়। নেশার টাকা জোগার করতে না পারায় মা-বাবার সঙ্গে প্রায়ই ঝগড়া করতেন। গত কয়েক মাস আগে মাদক মামলায় লালবাগ থানায় গ্রেফতার হয় জুয়েল। বেশ কয়েকদিন জেল খেটে গত তিনদিন আগে জেল থেকে বের হন তিনি। জেলে থাকা অবস্থায় মা-বাবা জুয়েলের ওপর রাগ করে জেলখানায় দেখতেও যাননি। এ বিষয় নিয়ে মঙ্গলবার রাতে ঝগড়া হয় তার মা ইয়াসমিনের সঙ্গে। এক পর্যায়ে হাতের কাছে ছুরি দিয়ে মাকে ছুরিকাঘাত করেন ওই বখাটে ছেলে। পরে বটি দিয়ে এলোপাতাড়ি কুপিয়েও জখম করে। এতে ঘটনাস্থলেই মৃত্যু হয় মা ইয়াসমিনের। এ ঘটনায় ছেলেকে আটক করা হয়েছে। তার নামে মামলা প্রক্রিয়াধীন বলেও জানান এসআই জহিরুল ইসলাম

বাংলাদেশ সময়: ০৫২০ ঘণ্টা, জুলাই ১৫, ২০২০
এসআরএস

বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।
Alexa