ঢাকা, শনিবার, ৩০ শ্রাবণ ১৪২৭, ১৫ আগস্ট ২০২০, ২৪ জিলহজ ১৪৪১

জাতীয়

চাল আত্মসাতকারী ইউপি চেয়ারম্যান মুখলিছ করাগারে

ডিস্ট্রিক্ট করেসপন্ডেন্ট | বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম
আপডেট: ০২৪২ ঘণ্টা, জুলাই ১৪, ২০২০
চাল আত্মসাতকারী ইউপি চেয়ারম্যান মুখলিছ করাগারে

হবিগঞ্জ: করোনা পরিস্থিতিতে ত্রাণ ও ভিজিডির (ভালনারেবল গ্রুপ ডেভেলপমেন্ট) চাল আত্মসাতের দায়ে হবিগঞ্জের শায়েস্তাগঞ্জ উপজেলার নূরপুর ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান মুখলিছ মিয়াকে কারাগারে পাঠানো হয়েছে।

সোমবার (১৩ জুলাই) হবিগঞ্জের সিনিয়র জুডিসিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট নূরুল হুদা চৌধুরীর আদালতে হাজির হয়ে জামিন প্রার্থনা করেন তিনি। এ সময় আদালত তার জামিন নামঞ্জুর করে কারাগারে প্রেরণের নির্দেশ দেন।

গত ৮ মে মামলা দায়েরের পর থেকে মুখলিছ পলাতক ছিলেন।

নূরপুর ইউনিয়ন পরিষদ কার্যালয়ে গত ৮ মে অভিযান পরিচালনা করেন হবিগঞ্জের নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট ইয়াসিন আরাফাত রানা। এ সময় সরকারি ত্রাণ বিতরণ করার জন্য সেখানে দেওয়া ২ হাজার কেজি চালের মধ্যে পাওয়া যায় ১ হাজার ৭০০ কেজি চাল। যেহেতু ৩০০ কেজি চাল পাওয়া যায়নি, তাই ওই ১ হাজার ৭০০ কেজি চাল জব্দ করেন তিনি। এছাড়াও সরকারি ত্রাণের পাশাপাশি ওই চেয়ারম্যানের বিরুদ্ধে ভিজিডির চাল বিতরণেও অনিয়মের প্রমাণ পাওয়া যায়। গেল জানুয়ারি থেকে চাল বিতরণের কোনো মাস্টার রোলও সেখানে ছিল না। ওইদিন রাতেই চেয়ারম্যান মুখলিছের বিরুদ্ধে মামলা দায়ের করা হয়।

পরে গত ১২ মে স্থানীয় সরকার পল্লী উন্নয়ন ও সমবায় মন্ত্রণালয়ের আওতাধীন স্থানীয় সরকার বিভাগের ইউনিয়ন পরিষদ-১ শাখার উপ সচিব মোহাম্মদ ইফতেখার আহমেদ চৌধুরী স্বাক্ষরিত এক প্রজ্ঞাপনে তাকে চেয়ারম্যানের পদ থেকে সাময়িক বরখাস্ত করা হয়। এরপর শায়েস্তাগঞ্জ উপজেলা আওয়ামী লীগ থেকেও তাকে বহিস্কার করা হয়।

বাংলাদেশ সময়: ০২৪২ ঘণ্টা, জুলাই ১৪, ২০২০
এইচএডি/

বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।
Alexa