ঢাকা, শনিবার, ৩১ শ্রাবণ ১৪২৭, ১৫ আগস্ট ২০২০, ২৪ জিলহজ ১৪৪১

জাতীয়

বনানীতে তরুণী গৃহবধূর মৃত্যু, স্বামীর দাবি আত্মহত্যা

সিনিয়র করেসপন্ডেন্ট | বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম
আপডেট: ০১৫৬ ঘণ্টা, জুলাই ১২, ২০২০
বনানীতে তরুণী গৃহবধূর মৃত্যু, স্বামীর দাবি আত্মহত্যা

ঢাকা: রাজধানীর বনানীর কড়াইল বস্তিতে হাসনা আক্তার (১৯) নামে এক গৃহবধূর মৃত্যু হয়েছে। গলায় ফাঁস নিয়ে তিনি আত্মহত্যা করেছেন বলে দাবি তার স্বামী হোসেন আলীর। তবে নিহতের বাবা সমেজ আলী মেয়ের মৃত্যুর বিষয়ে সন্দেহ জানিয়েছেন। 

শনিবার (১১ জুলাই) রাত ৯টার দিকে কড়াইল বস্তির এরশাদ নগর এলাকায় এ ঘটনা ঘটে। পরে মুমূর্ষু অবস্থায় স্বামী হোসেন আলী হাসনাকে ঢাকা মেডিক্যাল কলেজ (ঢামেক) হাসপাতালে নিয়ে গেলে রাত ১২টার দিকে চিকিৎসক তাকে মৃত বলে ঘোষণা করেন।

জানা যায়, সাড়ে তিন মাস আগে কড়াইল বস্তির হোসেন আলীর সঙ্গে পারিবারিকভাবে বিয়ে হয় একই বস্তির সমেজ আলীর মেয়ে হাসনার। তারপর থেকে তারা কড়াইল বস্তির এরশাদ নগরে একটি ঘর ভাড়া নিয়ে বসবাস করে আসছিলেন।  

নিহতের স্বামী হোসেন আলী জানান, গতকাল শুক্রবার (১০ জুলাই) পারিবারিক নানা বিষয় নিয়ে তার আর হাসনার ঝগড়া হয়। একপর্যায়ে দুজনের মধ্যে হাতাহাতিও হয়। পরে প্রতিবেশী ও আত্মীয়স্বজন গিয়ে তাদের ঝগড়ার মীমাংসা করেন। শনিবার সারাদিন স্ত্রীর সঙ্গেই ছিলেন তিনি। সন্ধ্যার দিকে একটি কাজে বাইরে বের হন হোসেন। বাসায় ফিরে স্ত্রীকে গলায় ফাঁস নিয়ে ঝুলে থাকতে দেখেন বলে জানান তিনি। পরে উদ্ধার করে ঢাকা মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালে নেওয়া হলে চিকিৎসক তাকে মৃত ঘোষণা করেন।

ঢাকা মেডিক্যাল পুলিশ ক্যাম্পের ইনচার্জ (ইন্সপেক্টর) বাচ্চু মিয়া হাসনার মৃত্যুর বিষয়টি নিশ্চিত করে জানান, নিহতের বাবা তার মেয়ের মৃত্যুর ব্যাপারে সন্দেহ পোষণ করেছেন। এ কারণে তার স্বামীকে বর্তমানে আমাদের হেফাজতে রাখা হয়েছে। বিষয়টি এরই মাঝে বনানী থানাকে অবগত করা হয়েছে বলেও জানান বাচ্চু মিয়া।  

বাংলাদেশ সময়: ০১৫৬ ঘণ্টা, জুলাই ১২, ২০২০ 
এজেডএস/এইচজে

বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।
Alexa