ঢাকা, বুধবার, ১৭ অগ্রহায়ণ ১৪২৭, ০২ ডিসেম্বর ২০২০, ১৫ রবিউস সানি ১৪৪২

জাতীয়

ভিয়েতনামে আটকে পড়া ২৭ বাংলাদেশি নিয়ে মন্ত্রণালয়ের ব্যাখ্যা

ডিপ্লোম্যাটিক করেসপন্ডেন্ট | বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম
আপডেট: ১৮৫৮ ঘণ্টা, জুলাই ৬, ২০২০
ভিয়েতনামে আটকে পড়া ২৭ বাংলাদেশি নিয়ে মন্ত্রণালয়ের ব্যাখ্যা

ঢাকা: ভিয়েতনামে আটকে পড়া ২৭ বাংলাদেশি নাগরিক নিয়ে ব্যাখ্যা দিয়েছে পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়। সোমবার (৬ জুলাই) পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয় জানিয়েছে, ভিয়েতনামে বাংলাদেশ মিশন থেকে অবহিত করা হয়েছে, ২৭ বাংলাদেশি মানব পাচারের শিকার হয়ে হ্যানয়ের একটি হোটেলে অবস্থান করছেন।

ভিয়েতনামে বিদেশি কর্মীদের কাজের খুব বেশি সুযোগ নেই। তবে মানবপাচারের শিকার এসব বাংলাদেশি ভিয়েতনাম হয়ে অস্ট্রেলিয়া, নিউজিল্যান্ড বা এশিয়ার অন্য কোনো উন্নত দেশে যেতে চেয়েছিলেন।

এই পরিপ্রেক্ষিতে গত ২ জুলাই ভিয়েতনামে আটকে পড়া বাংলাদেশিদের জন্য একটি বিশেষ ফ্লাইটের ব্যবস্থা করা হয়। এই ফ্লাইটে ১১ জন বাংলাদেশি দেশে ফিরে আসেন।  

এতে ২৭ বাংলাদেশি নাগরিকও ফেরার তালিকায় ছিলেন। তবে তারা ঘোষণা দেন, তাদের প্লেন ভাড়া বাংলাদেশ সরকারকে বহন করতে হবে। কোনো অবৈধ কর্মীকে দেশে ফেরতের জন্য প্লেন ভাড়া বহনে বাংলাদেশ সরকারের কোনো সুযোগ নেই। বিদেশে আটকে পড়া বাংলাদেশি যাত্রীদের প্লেন ভাড়া তাদেরই বহন করতে হয়। কোনো কোনো ক্ষেত্রে কর্মীদের প্লেন ভাড়া নিজ নিজ কোম্পানি বহন করে। তবে ভিয়েতনামে আটকে পড়া বাংলাদেশিদের কাজের ভিসা নেই। তারা সেখানে গিয়েছেন পর্যটক হিসেবে।

২ জুলাই বিশেষ ফ্লাইট ঢাকায় আসার পরদিন তারা ভিয়েতনামের বাংলাদেশ মিশনে জোর করে প্রবেশের চেষ্টা করে, যেটা আন্তর্জাতিক ও ভিয়েতনামের স্থানীয় আইনের লঙ্ঘন। এসব অশান্ত লোক প্রথমত ফিরে আসার ঘোষণা দিয়েছিলেন। দ্বিতীয়ত তাদের কিছু বলার থাকলে সুশৃঙ্খলভাবে বলতে পারতেন। তবে তারা দূতাবাসে জোরপূর্বক প্রবেশের চেষ্টার মাধ্যমে বিদেশের মাটিতে দেশের ভাবমূর্তি ক্ষুণ্ন করেছেন। এখন তারা সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে হুমকি দিচ্ছেন, তাদের দাবি না মানলে বিদেশের সব বাংলাদেশ মিশনে বিশৃঙ্খলা ঘটানো হবে।

তারা সামাজিক গণমাধ্যমে লাইভে এসে দেশের বিরুদ্ধে বক্তব্য দিচ্ছেন। কোনো বন্ধু দেশে আটকে পড়া নাগরিকদের এমন কর্মকাণ্ড অগ্রহণযোগ্য। বাংলাদেশ সম্প্রতি যেখানে যুক্তরাষ্ট্রের মানবপাচার প্রতিবেদনে এক ধাপ অগ্রগতি লাভ করেছে, সেখানে এ ধরনের কর্মকাণ্ডে বাংলাদেশ ক্ষতিগ্রস্ত হবে। ভিয়েতনামে মানবপাচারকারীদের শনাক্তে বাংলাদেশ সরকারের আইন-শৃঙ্খলা রক্ষাকারী বাহিনী কাজ করছে।

এদিকে করোনা ভাইরাসের কারণে ঢাকা- হ্যানয় প্লেন চলাচলে আরো সময় লাগবে বলে জানিয়েছে পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়।

বাংলাদেশ সময়: ১৮৫৫ ঘণ্টা, জুলাই ০৬, ২০২০ 
টিআর/এএ

বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।
Alexa