ঢাকা, বৃহস্পতিবার, ২১ শ্রাবণ ১৪২৭, ০৬ আগস্ট ২০২০, ১৫ জিলহজ ১৪৪১

জাতীয়

পাকুন্দিয়া উপজেলা চেয়ারম্যান রফিকুল ইসলাম রেনু বরখাস্ত

ডিস্ট্রিক্ট করেসপন্ডেন্ট | বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম
আপডেট: ২০২০-০৭-০৫ ০৮:১৩:০১ পিএম
পাকুন্দিয়া উপজেলা চেয়ারম্যান রফিকুল ইসলাম রেনু বরখাস্ত

কিশোরগঞ্জ: কিশোরগঞ্জের পাকুন্দিয়া উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান মো. রফিকুল ইসলাম রেনুকে তার পদ থেকে সাময়িকভাবে বরখাস্ত করা হয়েছে।

রোববার (৫ জুলাই) স্থানীয় সরকার, পল্লী উন্নয়ন ও সমবায় মন্ত্রণালয়ের স্থানীয় সরকার বিভাগ থেকে এ সংক্রান্ত প্রজ্ঞাপন জারি করা হয়।

বিকেলে কিশোরগঞ্জের স্থানীয় সরকারের উপ-পরিচালক মোহাম্মদ আবদুল্লাহ বাংলানিউজকে বিষয়টি নিশ্চিত করেন।

স্থানীয় সরকার, পল্লী উন্নয়ন ও সমবায় মন্ত্রণালয়ের স্থানীয় সরকার বিভাগের উপজেলা-২ শাখার উপসচিব মোহাম্মদ জহিরুল ইসলাম স্বাক্ষরিত ওই প্রজ্ঞাপনে বলা হয়, পাকুন্দিয়া উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান মো. রফিকুল ইসলাম রেনু এক মুক্তিযোদ্ধাকে হত্যার অভিযোগে দায়েরকৃত মামলার আসামি। ওই মামলায় তার বিরুদ্ধে আদালত অভিযোগপত্রও গ্রহণ করেছেন। মামলাটি বর্তমানে কিশোরগঞ্জের অতিরিক্ত দায়রা জজ ২য় আদালতে বিচারাধীন। হত্যা মামলার একজন আসামি উপজেলা চেয়ারম্যান পদে থাকলে পরিষদের প্রতি জনসাধারণের শ্রদ্ধা ও আস্থা বিঘ্নিত হতে পারে। যা পরিষদ বা রাষ্ট্রের স্বার্থের জন্য হানিকর ও জনস্বার্থ পরিপন্থী। এ জন্য সরকার জনস্বার্থে তাকে তার পদ থেকে সাময়িকভাবে বরখাস্ত করার সিদ্ধান্ত নিয়েছে। এ অবস্থায় উপজেলা পরিষদ আইন, ১৯৯৮ [উপজেলা পরিষদ (সংশোধন) আইন, ২০১১] এর ১৩খ(১) ধারা অনুসারে পাকুন্দিয়া উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যানের পদ থেকে মো. রফিকুল ইসলাম রেনুকে সাময়িকভাবে বরখাস্ত করা হলো। সেই সঙ্গে পাকুন্দিয়া উপজেলা পরিষদের প্যানেল চেয়ারম্যান-১ কে উপজেলা পরিষদের কার্যক্রম পরিচালনার জন্য পরিষদের আর্থিক ক্ষমতা দেওয়া হলো।

এ আদেশ অবিলম্বে কার্যকর হবে বলেও প্রজ্ঞাপনে উল্লেখ করা হয়েছে।

বাংলাদেশ সময়: ২০০৬ ঘণ্টা, জুলাই ০৫, ২০২০
এসআই 

বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।
Alexa