ঢাকা, শনিবার, ৩০ শ্রাবণ ১৪২৭, ১৫ আগস্ট ২০২০, ২৪ জিলহজ ১৪৪১

জাতীয়

লকডাউন হচ্ছে ওয়ারী, প্রস্তুত প্রশাসন

স্টাফ করেসপন্ডেন্ট | বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম
আপডেট: ০০২২ ঘণ্টা, জুলাই ৩, ২০২০
লকডাউন হচ্ছে ওয়ারী, প্রস্তুত প্রশাসন ছবি প্রতীকী

ঢাকা: করোনা ভাইরাসের সংক্রমণ নিয়ন্ত্রণে শনিবার (৪ জুলাই) থেকে ২১দিনের জন্য লকডাউন হচ্ছে রাজধানীর ওয়ারী এলাকা। সরকারি এমন নির্দেশনা বাস্তবায়নে পুরো প্রস্তুতি সম্পন্ন করেছে বাস্তবায়নকারী একাধিক সংস্থা।

পুলিশ জানায়, লকডাউন বাস্তবায়নে নির্ধারিত এলাকা থেকে সব ধরনের প্রবেশ এবং বাইরে বন্ধ থাকবে। জনসাধারণের চলাচল নিয়ন্ত্রণসহ সার্বিক পরিস্থিতি নজরদারিতে পর্যাপ্ত পরিমাণ পুলিশ সদস্য মোতায়েন থাকবে।

তবে, অত্র এলাকার বাসিন্দাদের কেউ জরুরি প্রয়োজনে প্রবেশ কিংবা বেরোতে চাইলে উপযুক্ত প্রমাণ সাপেক্ষে দুইটি প্রবেশপথ ব্যবহার করতে পারবেন। এই বিষয়টিও নিশ্চিত করবেন পুলিশ সদস্যরা।

সংশ্লিষ্টরা জানান, ওয়ারীর লকডাউন কার্যকরের সীমানার মধ্যে আউটার রোডগুলো হচ্ছে টিপু সুলতান রোড, যোগীনগর রোড ও ঢাকা-সিলেট মহাসড়ক (জয়কালী মন্দির থেকে বলধা গার্ডেন)। আর ইনার রোডগুলো হচ্ছে- লারমিনি স্ট্রিট, হেয়ার স্ট্রিট, ওয়্যার স্ট্রিট, র‌্যাংকিং স্ট্রিট ও নবাব স্ট্রিট।

লকডাউন বাস্তবায়নে অত্র এলাকার সব সরকারি-বেসরকারি প্রতিষ্ঠানে ছুটি ঘোষণা করা হয়েছে। ওষুধের দোকান ছাড়া সব ধরনের দোকানপাট-ব্যবসা প্রতিষ্ঠানও বন্ধ থাকবে। নিত্যপ্রয়োজনীয় পণ্য ই-কমার্স অ্যাসোসিয়েশনের সঙ্গে সমন্বয় করে সরবরাহের ব্যবস্থা করা হবে। এলাকার অভ্যন্তরে স্বেচ্ছাসেবী মোতায়েন থাকবে, যারা নাগরিকদের তাৎক্ষণিক যেকোনো প্রয়োজনে সাড়া দেবেন। স্বেচ্ছাসেবীদের ফোন নম্বর বাসিন্দাদের সরবরাহ করা হবে। বলধা গার্ডেন সংলগ্ন ঢাকা দক্ষিণ সিটি কর্পোরেশন ও পুলিশের একটি কন্ট্রোলরুম স্থাপন করা হবে। যেখান থেকে পুরো প্রক্রিয়া নজরদারি করে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা নেওয়া হবে।

এছাড়া ওই স্কুলে করোনারোগীর টেস্টের স্যাম্পল দেওয়ার জন্য একটি বুথ থাকবে এবং সিটি করপোরেশনের মহানগর জেনারেল হাসপাতালে আক্রান্তদের জন্য আইসোলেশন কেন্দ্র স্থাপন করা হবে। অত্র এলাকায় সাধারণ রোগীদের চিকিৎসা নিশ্চিত করার জন্য সব ধরনের ব্যবস্থা থাকবে।

ডিএমপির ওয়ারী জোনের সহকারী কমিশনার (এসি) মো. হান্নানুল ইসলাম বলেন, লকডাউন বাস্তবায়নে পর্যাপ্ত সংখ্যক পুলিশ সদস্য দায়িত্ব পালন করবেন। নির্ধারিত এলাকার প্রায় ১৭টি পয়েন্ট ব্লক করা থাকবে। জরুরি প্রয়োজনে যাতায়াতের জন্য দুটি প্রবেশ এবং বাইরে পথ হিসেবে ব্যবহৃত হবে। শেষ পর্যন্ত সিটি কর্পোরেশনসহ অন্যন্যদের সঙ্গে সমন্বয় করে পুরো বিষয়টি নিয়ন্ত্রণ করা হবে।

গত ৩০ জুন বিকেলে দক্ষিণ সিটির নগর ভবনে দক্ষিণ সিটি করপোরেশনের মেয়র ব্যারিস্টার শেখ ফজলে নূর তাপস ওয়ারী লকডাউনের ঘোষণা দিয়ে জানান, ৪ জুলাই ভোর ৬টা থেকে ঢাকা দক্ষিণ সিটি করপোরেশনের ওয়ারী এলাকা লকডাউন করা হবে। ২৫ জুলাই পর্যন্ত মোট ২১দিন লকডাউন কার্যকর থাকবে। এ সময়ে এখানে সার্বিকভাবে সবকিছুই বন্ধ থাকবে, শুধু ওষুধের দোকান খোলা থাকবে।

বাংলাদেশ সময়: ০০১৫ ঘণ্টা, জুলাই ০৩, ২০২০
পিএম/এএটি

বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।
Alexa