bangla news

দেশে ৫ কোটি ৮৭ লাখ শ্রমশক্তি বিভিন্ন পেশায় নিয়োজিত

স্পেশাল করেসপন্ডেন্ট | বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম
আপডেট: ২০২০-০৭-০১ ৩:৪৫:৫৮ এএম
কর্মশালায় অতিথিরা।

কর্মশালায় অতিথিরা।

ঢাকা: করোনার আর্থ-সামজিক প্রভাব সুদূরপ্রসারী। আগামী দিনগুলোতে কর্মহীন মানুষের সংখ্যা বাড়ার আশঙ্কা রয়েছে। এ প্রভাব মোকাবিলায় মানবসম্পদের দক্ষতা উন্নয়নের কোনো বিকল্প নেই।

মঙ্গলবার (৩০ জুন) রাজধানীর আগারগাঁওয়ে সমাজসেবা অধিদফতর আয়োজিত এক কর্মশালায় বক্তারা এসব কথা বলেন।

‘দক্ষতা উন্নয়ন প্রশিক্ষণ: বর্তমান অবস্থা ও ভবিষ্যৎ করণীয়’ শীর্ষক কর্মশালায় সমাজসেবা অধিদফতরের সহকারী পরিচালক মোস্তাফিজুর রহমানের সঞ্চালনায় অনুষ্ঠানে সভাপতিত্ব করেন পরিচালক জুলফিকার হায়দার। মূলপ্রবন্ধ উপস্থাপন করেন সমাজসেবা অধিদফতরে উপপরিচালক ও বাংলাদেশের প্রান্তিক জনগোষ্ঠীর জীবনমান উন্নয়ন প্রকল্পের প্রকল্প পরিচালক মোহা. কামরুজ্জামান।

মূল প্রবন্ধে মোহা. কামরুজ্জামান বলেন, বর্তমানে দেশে ৫ কোটি ৮৭ লাখ শ্রমশক্তি বিভিন্ন পেশায় নিয়োজিত রয়েছে। এর বাইরে বিশ্বের বিভিন্ন দেশে কর্মরত আছে ৭০ লাখের অধিক মানুষ। স্বল্প দক্ষতার কারণে উৎপাদলশীলতা হ্রাস পাওয়ার পাশাপাশি এক্ষেত্রে প্রবৃদ্ধিও কম হচ্ছে। তাই টেকসই অর্থনৈতিক প্রবৃদ্ধি নিশ্চিত রতে তরুণদের উপযুক্ত দক্ষতা উন্নয়ন প্রশিক্ষণ ও উদ্যোক্তা হিসেবে গড়ে তোলার লক্ষ্যে সমাজসেবা অধিদফতর শহর সমাজসেবা কার্যক্রমের আওতায় দেশে ৮০টি দক্ষতা উন্নয়ন প্রশিক্ষণ কেন্দ্র পরিচালনা করছে।

তিনি আরও বলেন, এসব প্রশিক্ষণ কেন্দ্রের মাধ্যমে চলতি সেশনের ১২ হাজার প্রশিক্ষণার্থীর ২০টির অধিক ট্রেডে প্রশিক্ষণ করছে। কার্যক্রমের শুরু থেকে এ পর্যন্ত ২ লাখ ৭২ হাজার ১৯১ জন অংশ নেয়।

অনুষ্ঠানের প্রধান অতিথি সমাজসেবা অধিদফতরের মহাপরিচালক শেখ রফিকুল ইসলাম বলেন, করোনা ভাইরাস পরিস্থিতিতে সৃষ্ট বেকার সমস্যা মোকাবিলায় স্থানীয় পর্যায়ের চাহিদা ভিত্তিতে প্রশিক্ষণ কর্মপরিকল্পনা গ্রহণ করতে হবে। একইসঙ্গে প্রশিক্ষণ ইমপেক্ট স্ট্যাডি ও অনলাইনভিত্তিক প্রশিক্ষণ চালুর ওপর গুরুত্বারোপ করেন।

কর্মশালায় সমাজসেবা অধিদফতরের পরিচালক (প্রশাসন ও অর্থ) মো. আবু মাসুদ, পরিচালক (প্রতিষ্ঠান) সৈয়দ মো. নূরুল বাসির, পরিচালক (সামাজিক নিরাপত্তা) সাব্বির ইমামসহ বিভিন্ন শাখা কর্মকর্তারা অংশগ্রহণ করেন।

বাংলাদেশ সময়: ০৩৪৪ ঘণ্টা, জুলাই ০১, ২০২০
এমআইএইচ/ডিএন/আরবি/

ক্লিক করুন, আরো পড়ুন :   করোনা ভাইরাস
        ইউটিউব সাবস্ক্রাইব করুন  

বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।

Alexa
cache_14 2020-07-01 03:45:58