bangla news

পিরোজপুরে জমি নিয়ে বিরোধে এক ব্যক্তিকে কুপিয়ে হত্যা

ডিস্ট্রিক্ট করেসপন্ডেন্ট | বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম
আপডেট: ২০২০-০৬-৩০ ৪:২০:১৭ পিএম
প্রতীকী ছবি

প্রতীকী ছবি

পিরোজপুর: পিরোজপুরে জমি সংক্রান্ত বিরোধের জেরে মো. এনায়েত হোসেন মোল্লা (৫৬) নামে এক ব্যক্তিকে কুপিয়ে হত্যা করা হয়েছে। 

মঙ্গলবার (৩০জুন) সকালে খুলনা মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালে  চিকিৎসাধীন অবস্থায় তার মৃত্যু হয়। 

নিহতের ছেলে মো. আল-আমীন মোল্লা বাংলানিউজকে বলেন, স্থানীয় মতলেব শেখ আমাদের বাড়ির সামনের একটি জমি দখলের চেষ্টা করে আসছিলেন। এ নিয়ে তার সঙ্গে আমাদের বিরোধ চলে  আসছিল। এ ঘটনায় একাধিকবার সালিশ-বৈঠক অনুষ্ঠিত হয়। গত  শনিবার (২৭ জুন) স্থানীয় সাবেক কমিশনার মিশু ও সাবেক এক ইউপি চেয়ারম্যান মো. মোশারেফ হোসেনসহ স্থানীয় গণ্যমান্যদের উপস্থিতিতে সালিশ-বৈঠক হয়। এ সময় সালিশে আসা লোকজন মতলেব শেখকে অহেতুক হয়রানি করতে নিষেধ করেন। এতে ক্ষিপ্ত হয়ে মতলেব শেখ আমার বাবাকে দেখে নেওয়ার হুমকি দেন। গত রোববার (২৮ জুন) বিকেল সাড়ে ৫টার দিকে বাবা জমিতে ধানের বীজ রোপণ করে বাড়ি ফিরে ভাত খেয়ে ঘরে বসেছিলেন। এসময় মতলেব শেখ ও তার শ্বশুর খলিল মোল্লার নেতৃত্বে ১৩/১৪ জন লোক আমাদের ঘরে ঢুকে প্রথমে বাবা এনায়েত মোল্লাকে কোপায়। এসময় বাধা দিলে হামলাকারীরা আমার মা আকলিমা বেগম (৪৫) ও বোন খাদিজাকেও (১৮) মারধর করে। এ সময় ঘরে থাকা মালামাল ও ঘরের বেড়াসহ ঘর ভাঙচুর করে। পরে বাবাকে ঘর থেকে বের করে দেশীয় অস্ত্র দিয়ে কুপিয়ে ও পিটিয়ে আহত করে। রোববার রাত ১১টার দিকে উন্নত চিকিৎসার জন্য তাকে খুলনা মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালে নেওয়া হয়। সেখানে চিকিৎসাধীন অবস্থায় মঙ্গলবার (৩০ জুন) সকালে তার মৃত্যু হয়।  

জেলা হাসপাতালের আবাসিক চিকিৎসক (আরএমও) ডাক্তার মো. নিজাম উদ্দিন জানান, তাকে গুরুতর অবস্থায় হাসপাতালে নিয়ে আসা হয়েছিল। পরে প্রাথমিক চিকিৎসা শেষে উন্নত চিকিৎসার জন্য তাকে খুলনা মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালে পাঠানো হয়। তার মাথা, উরু ও পিঠে দাঁড়ালো অস্ত্রের আঘাতের চিহ্ন ছিল। 

থানা পুলিশের ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মো. নুরুল ইসলাম বাদল জানান, এনায়েত হোসেনকে কুপিয়ে আহত করার ঘটনায় ওই দিন রাতেই তার ছেলে আল-আমীন মোল্লা বাদী হয়ে থানায় মামলা দায়ের করেছেন। তার মৃত্যুর খবর শুনেছি। আসামিদের গ্রেফতারের চেষ্টা চলছে।

বাংলাদেশ সময়: ১৬২০ ঘণ্টা, জুন ৩০, ২০২০
আরএ

ক্লিক করুন, আরো পড়ুন :   পিরোজপুর
        ইউটিউব সাবস্ক্রাইব করুন  

বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।

Alexa
cache_14 2020-06-30 16:20:17