bangla news

শরণখোলায় ক্ষতিগ্রস্ত বাঁধের সংস্কার শুরু

ডিস্ট্রিক্ট করেসপন্ডেন্ট | বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম
আপডেট: ২০২০-০৬-১৯ ৬:২৮:০৫ পিএম
বেড়িবাঁধের সংস্কার কাজ চলছে। ছবি: বাংলানিউজ

বেড়িবাঁধের সংস্কার কাজ চলছে। ছবি: বাংলানিউজ

বাগেরহাট: ঘূর্ণিঝড় আম্পানের প্রভাবে বাগেরহাটের শরণখোলায় পানি উন্নয়ন বোর্ডের বেড়িবাঁধ ৩৫/১ পোল্ডারের ক্ষতিগ্রস্ত অংশের সংস্কার ও নদীর তীর রক্ষার কাজ শুরু হয়েছে।

শুক্রবার (১৯ জুন) বিকেলে সেনাবাহিনীর তত্ত্বাবধায়নে শরণখোলা উপজেলার সাউথখালী ইউনিয়নের গাবতলা আশার আলো মসজিদের সামনে থেকে এ বাঁধের কাজ শুরু হয়।এর পাশাপাশি আম্পানের প্রভাবে সৃষ্ট জলোচ্ছ্বাসে লোকালয়ে প্রবেশকৃত লবণ পানি অপসারণের কাজও শুরু হয়েছে।

পরে নদীশাসন করে ক্ষতিগ্রস্ত এই দুই কিলোমিটার (গাবতলা আশার আলো মসজিদ হয়ে বগি পর্যন্ত) অংশে টেকসই বেড়িবাঁধ নির্মাণ করা হবে বলে জানিয়েছেন বাগেরহাট পানি উন্নয়ন বোর্ডের নির্বাহী প্রকৌশলী মো. নাহিদুজ্জামান খান। আম্পানের এক মাস পরে হলেও সেনাবাহিনীর তত্ত্বাবধায়নে কাজ শুরু হওয়ায় স্বস্তি প্রকাশ করেছেন এলাকাবাসী ও জনপ্রতিনিধিরা।

স্থানীয় এমডি শাহিন হাওলাদার, সবুজ শিকদার, রাজ্জাকসহ কয়েকজন বলেন, ঘূর্ণিঝড় আম্পানে ক্ষতিগ্রস্ত বেড়িবাঁধের সংস্কার শুরু হয়েছে।এতে আমরা খুশি হয়েছি।হয়ত কিছুদিন শান্তিতে থাকতে পারব। কিন্তু নদীশাসন করে টেকসই বেড়িবাঁধ নির্মাণ না হলে এ দুর্দশা কমবে না বলে দাবি করেন তারা।

উপজেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক আজমল হোসেন মুক্তা বলেন, ঘূর্ণিঝড় আম্পানে ভেঙে যাওয়া বেড়িবাঁধ এলাকায় ক্ষতিগ্রস্ত বাঁধের নির্মাণকাজ শুরু হয়েছে। আশাকরি খুব দ্রুত টেকসই বেড়িবাঁধ নির্মাণ হবে।এ অঞ্চলের মানুষের দুঃখ দুর্দশা শেষ হবে।

বাগেরহাট পানি উন্নয়ন বোর্ডের নির্বাহী প্রকৌশলী মো. নাহিদুজ্জামান খান বলেন, ৩৫/১ পোল্ডারের  ১৭শ মিটার ক্ষতিগ্রস্ত বাঁধের সংস্কার ও ৬শ মিটার নদীর তীর সংরক্ষণ কাজ শুরু হয়েছে।দ্রুত সময়ের মধ্যে এ কাজ শেষ হবে আশা করছি।

তিনি আরও বলেন, ঝুঁকিপূর্ণ দুই কিলোমিটার অংশে নদীশাসন করে টেকসই বেড়িবাঁধ নির্মাণের প্রক্রিয়া চলমান রয়েছে। আশাকরি অল্প সময়ের মধ্যে এই প্রকল্পটি অনুমোদন হবে। আমরা নদীশাসনের কাজ শুরু করতে পারব।

বাংলাদেশ সময়: ১৮২৫ ঘণ্টা, জুন ১৯, ২০২০
আরএ

ক্লিক করুন, আরো পড়ুন :   বাগেরহাট
        ইউটিউব সাবস্ক্রাইব করুন  

বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।

Alexa
cache_14 2020-06-19 18:28:05