bangla news

টাকা গুনে দেওয়ার নামে গৃহবধূর সঙ্গে প্রতারণা

স্টাফ করেসপন্ডেন্ট | বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম
আপডেট: ২০২০-০৬-১৯ ২:৩৭:২৫ পিএম
আটক। ছবি: বাংলানিউজ

আটক। ছবি: বাংলানিউজ

কুড়িগ্রাম: কুড়িগ্রামের নাগেশ্বরী উপজেলায় টাকা গুনে দেওয়ার নাম করে কাগজের পোটলা ধরিয়ে দিয়ে গৃহবধূর সঙ্গে প্রতারণা করে পালানোর সময় প্রতারককে আটক করে পুলিশে দিয়েছে স্থানীয়রা।

এ ঘটনায় বৃহস্পতিবার (১৮ জুন) রাতে গৃহবধূ মমতা বেগম বাদী হয়ে দুইজনকে আসামি করে নাগেশ্বরী থানায় একটি মামলা করেন। এসময় লিটন মিয়া (৪৫) নামে একজনকে পুলিশে হস্তান্তর করা হয়।

মামলার এজাহার সূত্রে জানা যায়, বৃহস্পতিবার বিকেলে নাগেশ্বরী উপজেলার গ্রামীণ ব্যাংক সন্তোষপুর শাখা থেকে ঋণের ২৬ হাজার ৮শত টাকা নিয়ে বাড়ি ফিরছিলেন মমতা বেগম (৩০)। ফেরার পথে ঋণ প্রদান কেন্দ্রের পেছন থেকে গৃহবধূকে ডেকে নেয় লালমনিরহাট জেলার আদিতমারী উপজেলার সাপটিবাড়ী নাগেরটারী গ্রামের লিটন মিয়া (৪৫) ও একই জেলার সেরকারটারী তালুকহারাটি গ্রামের ছকিমুদ্দিন (৪০)। তারা বলে সম্ভবত আপনার টাকা কম আছে, দেন আমরা গুনে দিচ্ছি। তিনি টাকাগুলো তাদের গুনতে দেন। পরে দুই প্রতারক একটি সাদা কাগজে মোড়ানো পোটলা ধরিয়ে দিয়ে বলেন, চাচী টাকা ঠিক আছে। তখন গৃহবধূ কাগজের পোটলা খুলে দেখেন, সেখানে কোনো টাকা নেই।

এসময় তার চিৎকারে লোকজন ছুটে আসলে প্রতারকরা মোটরবাইকযোগে পালানোর চেষ্টা করলে বিপরীত দিক থেকে আসা একটি ভ্যানের সাথে ধাক্কা খায়। স্থানীয়রা লিটন মিয়াকে মোটরবাইকসহ আটক করলেও পালিয়ে যায় অপর সঙ্গী ছকিমুদ্দিন। পরে পুলিশ ঘটনাস্থলে পৌঁছিলে মোটরবাইকসহ আটক লিটন মিয়াকে হস্তান্তর করে স্থানীয়রা।

নাগেশ্বরী থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) রওশন কবীর বাংলানিউজকে জানান, গৃহবধূ মমতা বেগম বাদী হয়ে দুইজনকে আসামি করে নাগেশ্বরী থানায় একটি মামলা করেছেন। লালমনিরহাট জেলার আদিতমারী উপজেলার সাপটিবাড়ী নাগেরটারী গ্রামের লিটন মিয়া (৪৫) নামে একজনকে আটক করা হয়েছে।

বাংলাদেশ সময়: ১৪৩৭ ঘণ্টা, জুন ১৯, ২০২০
এফইএস/এইচএডি/

        ইউটিউব সাবস্ক্রাইব করুন  

বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।

Alexa
cache_14 2020-06-19 14:37:25