bangla news

রাজশাহীতে ছিনতাই হওয়া ৩২ লাখ টাকা উদ্ধার, আটক ৩

সিনিয়র করেসপন্ডেন্ট | বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম
আপডেট: ২০২০-০৬-১৯ ৯:৩৮:১৬ এএম
পুলিশের কাছে আটক জড়িত সন্দেহে তিনজন

পুলিশের কাছে আটক জড়িত সন্দেহে তিনজন

রাজশাহী: রাজশাহীতে দিনে-দুপুরে ছিনতাই হওয়া ৩৩ লাখ টাকা মধ্যে ৩২ লাখ টাকা উদ্ধার করতে পেরেছে পুলিশ। এই ঘটনায় জড়িত সন্দেহে তিনজনকে আটক করা হয়েছে।

বৃহস্পতিবার (১৮ জুন) রাতে মহানগরীর কাশিয়াডাঙ্গা থানার বালিয়া পশ্চিম পাড়ার সেনপুকুর এলাকার একটি বাড়ি থেকে ওই টাকাগুলো উদ্ধার করা হয়।

আটককৃতরা হলেন- রাজশাহীর পবা উপজেলার দারুশা এলাকার মিজানুর রহমানের ছেলে মেহেদি হাসান ফয়সাল (২৩), মহানগরীর নওদাপাড়া এলাকার দুলাল হোসেনের ছেলে তাইজুল ইসলাম ডলার (২২) ও রাজশাহীর গোদাগাড়ী উপজেলার পলাশী গ্রামের আক্তার হোসেনের ছেলে জাফর ইকবাল (২৩)। তাদেরকে বোয়ালিয়া থানায় রেখে জিজ্ঞাসাবাদ করছে পুলিশ।

তবে ভিভো’র এ দু’জন বিক্রয়কর্মী ঘটনায় জড়িত থাকার কথা এখনও স্বীকার করেনি।

রাজশাহী বোয়ালিয়া মডেল থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) নিবারণ চন্দ্র বর্মণ জানান, বৃহস্পতিবার দুপুরে ঘটনার পর থেকে ছিনতাই হওয়া টাকা উদ্ধারে অভিযানে নামে পুলিশ। রাত সাড়ে ১০টার দিকে কাশিয়াডাঙ্গা থানা এলাকা থেকে ৩২ লাখ টাকা উদ্ধার করা সম্ভব হয়। বাকি এক লাখ টাকা উদ্ধারেরও চেষ্টা চলছে।

মহানগরীর নিউমার্কেটে থাকা ‘হ্যালো রাজশাহী-২’ নামের প্রতিষ্ঠানটির আওতায় বেশ কয়েকটি মোবাইল ফোন ও ইলেকট্রনিক কোম্পানির শো-রুম রয়েছে। এরমধ্যে ভিভো’র দু’জন বিক্রয়কর্মী বৃহস্পতিবার দুপুরে দু’টি ব্যাগে ৩৭ লাখ ৩৭ হাজার টাকা নিয়ে ব্যাংকে জমা দিতে যাচ্ছিলেন। পথে তাদের কাছে থাকা ৩৩ লাখ টাকার ব্যাগটি ছিনিয়ে নেওয়ার অভিযোগ পাওয়া যায়।

ওসি আরও বলেন, ছিনতাইয়ের ঘটনার পরপরই ঘটনাস্থল পরিদর্শন ও ক্লোজ সার্কিট (সিসি) ক্যামেরা দেখে ধারণা করা হচ্ছিল- এটা বিক্রয়কর্মীদেরই সাজানো ঘটনা। সেই সন্দেহ থেকে যাদের কাছ থেকে টাকা ছিনিয়ে নেওয়া হয়, ভিভো’র সেই দু’জন বিক্রয়কর্মীকে থানায় নিয়ে জিজ্ঞাসাবাদ করা হয়। পরে ‘হ্যালো রাজশাহী-২’ এর অন্য কোম্পানির শো-রুমের একজন বিক্রয়কর্মীকে আটক করা হয়।

জিজ্ঞাসাবাদে তাদের দেওয়া তথ্যে কাশিয়াডাঙ্গা থানাধীন বালিয়া পশ্চিমপাড়ার সেনপুকুর এলাকায় তার বন্ধুর বাড়িতে অভিযান পরিচালনা করা হয়। ওই বাড়ি থেকে টাকাগুলো উদ্ধার করা হয়। তবে পুলিশ অভিযানে যাওয়ার আগেই বাড়ি থেকে পালিয়ে যান ওই বিক্রয়কর্মীর বন্ধু।

নিবারণ চন্দ্র বর্মণ আরও বলেন, আটকদের থানায় জিজ্ঞাসাবাদ করা হচ্ছে। ঘটনার পুরো রহস্য উদঘাটনের পর মামলা ও আইন অনুযায়ী পদক্ষেপ নেওয়া হবে।

এর আগে ভিভো শো-রুমের প্রোপাইটর রঞ্জন রায় জানান, তারা কয়েকজন ব্যবসায়ী মিলে ভিভোর ওই শো-রুমটি চালান। নতুন কিছু ফোন নেওয়ার জন্য টাকাগুলো বৃহস্পতিবার ভিভোর ব্যাংক হিসাবে জমা দেওয়ার কথা ছিল। তবে তাদের দুই কর্মী দু'ব্যাগে টাকা নিয়ে ব্যাংকে যাওয়ার পথে ৩৩ লাখ টাকার ব্যাগটি ছিনতাই হয়ে যায়।

বাংলাদেশ সময়: ০৯৩৬ ঘণ্টা, জুন ১৯, ২০২০
এসএস/জেআইএম

        ইউটিউব সাবস্ক্রাইব করুন  

বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।

Alexa
cache_14 2020-06-19 09:38:16