bangla news

কাল থেকে মাদারীপুরের ২২ ইউনিয়ন ও ৪ পৌরসভার ২১ ওয়ার্ড লকডাউন

ডিস্ট্রিক্ট করেসপন্ডেন্ট | বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম
আপডেট: ২০২০-০৬-১৭ ৮:২৭:০৪ পিএম
প্রতীকী ছবি

প্রতীকী ছবি

মাদারীপুর: মাদারীপুর জেলার ২২টি ইউনিয়ন ও চারটি পৌরসভার ২১টি ওয়ার্ডে করোনা রোগী বেশি থাকায় রেডজোনের আওতায় রয়েছে। এসব এলাকা বৃহস্পতিবার (১৮ জুন) ভোর থেকে লকডাউনের আওতায় থাকবে। 

বিধি-নিষেধ আরোপ করে বুধবার (১৭ জুন) দুপুরে মাদারীপুর জেলা প্রশাসক মো. ওয়াহিদুল ইসলাম একটি গণবিজ্ঞপ্তি জারি করেছেন। কেউ এই আদেশ অমান্য করলে জেল-জরিমানা হুঁশিয়ারিও দেওয়া হয়।

জানা যায়, মাদারীপুর পৌরসভার ১ থেকে ৭ নম্বর ওয়ার্ড পর্যন্ত ও সদর উপজেলার ছিলারচর, ঝাউদি, খোয়াজপুর, ধুইরাইল, মস্তফাপুর নিয়ে মোট পাঁচটি ইউনিয়ন রয়েছে। এছাড়া শিবচরের রেডজোনে পৌরসভার তিনটি ওয়ার্ড ও আটটি ইউনিয়ন রয়েছে। শিবচর পৌরসভার ১, ৪ ও ৫ নম্বর ওয়ার্ড এবং ইউনিয়নগুলো হচ্ছে শিবচর, দ্বিতীয়খণ্ড, বহেরাতলা দক্ষিণ, বাঁশকান্দি, ভদ্রাসন, কাদিরপুর, মাদবরচর ও পাঁচ্চর। কালকিনি উপজেলার রেডজোন কালকিনি পৌরসভার ১, ৪, ৫, ৭, ৮ ও ৯ নম্বর ওয়ার্ড এবং ডাসার, গোপালপুর, আলীনগর এবং শিকারমঙ্গল ইউনিয়ন। রাজৈর উপজেলার মধ্যে রাজৈর পৌরসভার ছয়টি ওয়ার্ড এবং চারটি ইউনিয়ন। 

রেডজোনে নিত্য প্রয়োজনীয় দোকান ও ব্যাংক সকাল ৮টা থেকে ১২টা পর্যন্ত খোলা ছাড়া অন্য সব দোকান ৩০ জুন পর্যন্ত বন্ধ থাকবে। রেডজোনে প্রবেশ ও বর্হিগমন বাঁশের বেড়া দিয়ে বন্ধ করে দেওয়া হয়েছে। রেড ও ইয়োলো জোনভুক্ত এলাকায় যানবাহন কঠোরভাবে নিয়ন্ত্রণ করা হবে। এক জোনের বসবাসকারীরা অন্য জোনে প্রবেশে বিধি নিষেধ আরোপ করা হয়েছে। মোতায়েন রয়েছে আইনশৃঙ্খলা বাহিনী স্বেচ্ছাসেবী প্রশাসন ও জনপ্রতিনিধিদের। 

মাদারীপুর জেলা প্রশাসক ওয়াহিদুল ইসলাম জানান, রেডজোন হওয়ায় কঠোরভাবে লকডাউন বাস্তবায়ন করা হবে। আগামী ৩০ জুন পর্যন্ত এই লকডাউন কঠোরভাবে পালন করা হবে। যদি কেউ এই আদেশ অমান্য করে তাদের বিরুদ্ধে কঠোর আইনগত ব্যবস্থা নেওয়া হবে। এক্ষেত্রে কাউকে ছাড় দেয়া হবে না।

বাংলাদেশ সময়: ২০১৬ ঘণ্টা, জুন ১৭, ২০২০
এনটি

ক্লিক করুন, আরো পড়ুন :   করোনা ভাইরাস
        ইউটিউব সাবস্ক্রাইব করুন  

বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।

Alexa
cache_14 2020-06-17 20:27:04