bangla news

না’গঞ্জে করোনা কিটের স্বল্পতা, নমুনা পরীক্ষায় ভাঁটা

ডিস্ট্রিক্ট করেসপন্ডেন্ট | বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম
আপডেট: ২০২০-০৬-১৭ ৬:১৬:১২ পিএম
ছবি- প্রতীকী

ছবি- প্রতীকী

নারায়ণগঞ্জ: নারায়ণগঞ্জের খানপুরে ৩শ’ শয্যাবিশিষ্ট করোনা হাসপাতালে কিটের স্বল্পতার কারণে টেস্ট কার্যক্রম থমকে গেছে। আপাতত করোনার নমুনা পরীক্ষার জন্য কোনো সিরিয়াল নেওয়া হচ্ছে না এ হাসপাতালে। একই অবস্থা জেলার অন্য করোনা টেস্ট বুথগুলোতেও। 

বুধবার (১৭ জুন) খানপুরের করোনা হাসপাতালে নমুনা পরীক্ষার জন্য সিরিয়াল দিতে চাওয়া দশের অধিক ভুক্তভোগীর সঙ্গে কথা বলে বাংলানিউজ। তারা জানান, এখানে কিট নেই, তাই এখন সিরিয়াল নেওয়া সম্ভব হচ্ছে না বলে জানিয়েছে হাসপাতাল কর্তৃপক্কগ। আবারও কিট এলে সিরিয়াল নেওয়া হবে বলে জানিয়েছে তারা। 

এ হাসপাতালসহ জেলার অন্যান্য টেস্ট বুথগুলোতে দ্রুত কিট সরবরাহের জন্য সংশ্লিষ্টদের দৃষ্টি আকর্ষণ করেছেন ভুক্তভোগীরা। এ ব্যাপারে তারা দ্রুত পদক্ষেপ নেওয়ার অনুরোধ জানিয়েছেন।

কিট স্বল্পতার কথা স্বীকার করে দ্রুত এ অবস্থার নিরসন হবে প্রত্যাশা জানিয়ে হাসপাতালের তত্ত্বাবধায়ক ডা. গৌতম রায় বাংলানিউজকে জানান, আমাদের কিটের কিছুটা স্বল্পতা রয়েছে। আমরা আজকে হাসপাতালে স্যাম্পল নিয়েছি, তবে কাল নতুন কিট না আসলে আর নিতে পারবো না। যেহেতু আপাতত আমাদের কাছে কিট নেই, তাই আমরা এখন সিরিয়াল নিচ্ছি না। আমরা কিটের ব্যপারে যোগাযোগ করছি, আশা করছি দ্রুত পেয়ে যাবো। 

কালকের মধ্যে আবারও টেস্ট কার্যক্রম শুরু করা সম্ভব হবে কিনা জানতে চাইলে ডা. গৌতম জানান, সেটা এখনই বলা যাচ্ছে না, তবে আমি আশাবাদী কিট চলে আসলে কাল আমরা স্যাম্পল নিতে পারবো। না আসলে তো কিছু করার নেই। আমাদের চেষ্টা অব্যাহত আছে। 

হাসপাতালে সিরিয়াল দিতে চাওয়া সাকিন আহমেদ নামের এক ব্যক্তি জানান, আমি সকাল থেকেই হাসপাতাল কর্তৃপক্ষের সঙ্গে ফোনে যোগাযোগে চেষ্টা করেছি অনেকবার কিন্তু পাইনি। পরে যখন তাদের পেলাম, আমাকে জানানো হলো- কিট আপাতত নেই, কিট আসলেই সিরিয়াল নেওয়া হবে। 

এ ব্যাপারে জেলা সিভিল সার্জন ডা. মোহাম্মদ ইমতিয়াজ জানান, কিটের সংকট নেই তবে স্বল্পতা রয়েছে। এটা শুধু এই হাসপাতাল নয়, সব স্থানেই। তবে আমরা আশা করছি দুয়েকদিনের মধ্যেই স্বল্পতা কেটে যাবে। স্বল্পতার কারণে আমাদের টেস্ট কার্যক্রমের গতিতে কিছুটা ভাঁটা পড়েছে। আমরা অল্প সংখ্যক টেস্ট করছি। তবে জেলায় স্বল্পতা থাকলেও গাজীর ল্যাবে কিটের স্বল্পতা নেই, সেখানে পর্যাপ্ত কিট রয়েছে। তাই দুশ্চিন্তার কিছু নেই। এ অবস্থা দুয়েকদিনের মধ্যেই স্বাভাবিক হয়ে যাবে।

বাংলাদেশ সময়: ১৮১৫ ঘণ্টা, জুন ১৭, ২০২০
এমআরপি/এইচজে 

        ইউটিউব সাবস্ক্রাইব করুন  

বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।

Alexa
cache_14 2020-06-17 18:16:12