ঢাকা, মঙ্গলবার, ৬ আশ্বিন ১৪২৭, ২২ সেপ্টেম্বর ২০২০, ০৩ সফর ১৪৪২

জাতীয়

ঝালকাঠিতে সাংবাদিকের ওপর হামলার ঘটনায় মামলা

স্টাফ করেসপন্ডেন্ট | বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম
আপডেট: ১৬৩৬ ঘণ্টা, জুন ৬, ২০২০
ঝালকাঠিতে সাংবাদিকের ওপর হামলার ঘটনায় মামলা আহত সাংবাদিক জহিরুল ইসলাম জুয়েল

ঝালকাঠি: জাতীয় দৈনিক ডেইলি স্টার পত্রিকার ঝালকাঠি জেলা প্রতিনিধি জহিরুল ইসলাম জুয়েলের ওপর হামলার ঘটনায় মামলা দায়ের করা হয়েছে।

আহত সাংবাদিক বাদি হয়ে রাজাপুর থানায় ইসলামিয়া ফামের্সির মালিক আহসান হাবিব সোহাগসহ ৮ জনকে আসামি করে মামলাটি দায়ের করেছেন।

অপরদিকে পূর্ব ও ব্যবসায়িক বিরোধের জের ধরে হামলা ও মারামারির ঘটনায় ইসলামিয়া ফার্মেসি ও আফজাল মেডিকেল হলের পক্ষ থেকে পৃথক আরো দুটি মামলা দায়ের করা হয়েছে।

 

এরমধ্যে ইসলামিয়া ফামের্সির মালিক আহসান হাবিব সোহাগের দায়ের করা মামলায় ডেইলি স্টারের জেলা প্রতিনিধি জহিরুল ইসলাম জুয়েলসহ বেশ কয়েকজনকে নামধারী আসামি করা হয়েছে। এ মামলায় রাজাপুর সদরের মহিলা কলেজ এলাকার বাসিন্দা ও রাজাপুর সরকারি কলেজের ছাত্র নায়েব কাজি (১৯)-কে গ্রেফতার করা হয়েছে।

অপরদিকে আফজাল মেডিকেল হলের মালিক আফজালের দায়ের করা মামলায় ইসলামিয়া ফামের্সির মালিক আহসান হাবিব সোহাগসহ বেশ কয়েকজনকে নামধারী আসামি করা হয়েছে। এ মামলায় চর রাজাপুর এলাকার বাসিন্দা রাহাত (২২) ও কৈবর্তখালি গ্রামের তাওহীদ (২২)-কে গ্রেফতার করা হয়েছে।

আফজাল মেডিকেল হলের মালিক আফজাল অভিযোগ করে জানান, ঔষধ বিক্রির ব্যবসায়িক দ্বন্দ্বের জেরে আফজাল মেডিকেল হলের মালিক আফজালকে দেখলেই ইসলামিয়া ফার্মেসির লোকজন অশালীন আচরণ ও অকথ্য ভাষায় গালমন্দ করতো। এ ঘটনা আফজালের ছেলে ইসলামিয়া ফার্মেসির কর্মচারিদের জিজ্ঞাসা করতে গেলে এ নিয়ে বাক-বিতণ্ডার এক পর্যায়ে মারামারির ঘটনা ঘটে। এসময় অপুকে রক্ষা করতে এসে তার কয়েক বন্ধুসহ উভয় পক্ষের কয়েক জন আহত হয়। এসময় ইসলামিয়া ফার্মেসির লোকজন নায়েবকে ধরে থানায় নিয়ে যায়। অপরদিকে আহত অপু রাজাপুর স্বাস্থ্য কেন্দ্রে চিকিৎসা নিতে যায়।

ডেইলি স্টারের জেলা প্রতিনিধি জহিরুল ইসলাম জুয়েল অভিযোগ করে জানান, ঘটনার সময় তিনি বরিশালে ছিলেন। ভাগ্নে অপু আহত হয়ে রাজাপুর স্বাস্থ্য কেন্দ্রে চিকিৎসা নিচ্ছে এমন খবর পেয়ে বরিশাল থেকে রওনা দিয়ে দুপুরের পরে তিনি সেখানে যান। এসময় সোহাগের নির্দেশে তার লোকজন হামলা চালিয়ে সাংবাদিক জুয়েলের আঙ্গুল ভেঙ্গে দেয়।

হাসপাতালে চিকিৎসাধীন জুয়েল জানান, স্থানীয় সোহাগ ক্লিনিকের বিরুদ্ধে ডেইলি স্টারে ইতোপূর্বে সংবাদ প্রকাশ করায় আগে থেকেই সোহাগ তার ওপর ক্ষিপ্ত ছিলেন।

এসব বিষয়ে ইসলামিয়া ফার্মেসি ও সোহাগ ক্লিনিক পরিচালক আহসান হাবিব সোহাগ সাংবাদিকদের জানান, কয়েক দিন আগে সোহাগ ফার্মেসী কর্তৃক ঔষধের মূল্য কম রাখার ঘোষণা দিলে অন্য ফার্মেসীর লোকজন তার বিপক্ষে অবস্থান নেয় এবং পূর্ব পরিকল্পনা অনুযায়ী আফজাল ফার্মেসির লোকজন তার ফার্মেসিতে হামলা চালিয়ে কামরুল, হামীম ও রবিউল হাসানকে আহত করে।

রাজাপুর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) জাহিদ হোসেন জানান, এ ঘটনায় পৃথক ৩টি মামলা হয়েছে। ২টি মামলায় ৩ জনকে গ্রেফতার করা হয়েছে। বাকি আসামীদেরও গ্রেফতারে অভিযান অব্যাহত আছে।

এদিকে ইসলামিয়া ফার্মেসি ও সোহাগ ক্লিনিকের মালিক আহসান হাবিব সোহাগের বিরুদ্ধে নিম্নমানের ওষুধ বিক্রি ও হামলা এবং মামলা দিয়ে হয়রানির প্রতিবাদে উপজেলা কেমিস্ট অ্যান্ড ড্রাগিস্ট সমিতি সংবাদ সম্মেলন করেছে।

বাংলাদেশ সময়: ১৬৩৬ ঘণ্টা, জুন ০৬, ২০২০
এমএস/এমকেআর

বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।
Alexa