ঢাকা, বুধবার, ১৫ আশ্বিন ১৪২৭, ৩০ সেপ্টেম্বর ২০২০, ১১ সফর ১৪৪২

জাতীয়

পূর্বশত্রুতার জেরে পুকুরে বিষ প্রয়োগ, ক্ষতি ১২ লাখ টাকা

ডিস্ট্রিক্ট করেসপন্ডেন্ট | বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম
আপডেট: ০৪০৯ ঘণ্টা, জুন ২, ২০২০
পূর্বশত্রুতার জেরে পুকুরে বিষ প্রয়োগ, ক্ষতি ১২ লাখ টাকা

ব্রাহ্মণবাড়িয়াা: পূর্বশত্রুতার জেরে ব্রাহ্মণবাড়িয়ার আখাউড়ায় ইজারা নেওয়া এক ব্যক্তির পুকুরে বিষ দিয়ে ১২ লাখ টাকার মাছ নিধন করার অভিযোগ পাওয়া গেছে। এ ঘটনায় ক্ষতিগ্রস্ত মৎস্যচাষি বশির আহমেদ ভূইয়া আখাউড়া থানায় ১০ জনের বিরুদ্ধে মামলা করেছেন।

মামলার এজাহার সূত্রে জানা গেছে, ঘোলখার গ্রামের বাসিন্দা বশির মিয়া তার গ্রামের একটি পুকুর ইজারা নিয়ে মাছ চাষ করেন। পুকুরটিতে রুই, কাতলসহ বিভিন্ন প্রজাতির মাছ চাষ করেন তিনি।

পূর্বশত্রুতার জেরে মামলার প্রধান আসামি নিমা মিয়াসহ অন্য আসামিরা দীর্ঘদিন ধরে পুকুরটিতে বিষ প্রয়োগ করে মাছগুলো মেরে ফেলার পায়তারা করে আসছিল। গত ২৫ মে রাত সাড়ে ১১টায় নিমা মিয়াসহ আরও দুইজনকে পুকুরের পাশে দেখতে পান বশির। এসময় বশির তাদের পুকুরের কাছে আসার কারণ জানতে চাইলে তারা কোনো সদুত্তর দিতে পারেনি।

এজাহারে আরও বলা হয়, ২৬ মে ভোররাতে বশির পুকুরে গিয়ে দেখতে পান সব মাছ মরে ভেসে উঠেছে। এসময় পুকুরে দুটি কীটনাশকের বোতল পান তিনি। কীটনাশক প্রয়োগের ফলে পুকুরটিতে থাকা আনুমানিক ১৫০ মণ মাছ মারা গেছে। পরে বশির আসামিদের কাছে কীটনাশক প্রয়োগের বিষয়টি জানতে চাইলে তাকে মারধর করা হয়।

মামলার বাদী বশির আহম্মেদ ভূইয়া জানান, পুকুরটি ইজারা নেওয়ার পর থেকেই আসামিরা জোরপূর্বক দখলে নেওয়ার পায়তারাসহ বিভিন্নভাবে হুমকি দিয়ে আসছিল। তারা পরবর্তীতে ঘটনার দিন পুকুরে কীটনাশক প্রয়োগ করে আনুমানিক ১২ লাখ টাকার মাছ মেরে ফেলেছে। এরপরও আসামিরা বিভিন্নভাবে হুমকি দিয়ে যাচ্ছে।

এ ব্যাপারে ধরখার পুলিশ ফাঁড়ির পরিদর্শক (ইন্সপেক্টর) বিমল কর্মকার বলেন, এজাহারভুক্ত একজন আসামিকে গ্রেফতার করে আদালতে সোপর্দ করা হয়েছে। অন্য আসামিদের ধরতে পুলিশি অভিযান অব্যাহত আছে।

বাংলাদেশ সময়: ০৪০৮ ঘণ্টা, জুন ০২, ২০২০
এইচএমএস/এইচএডি

বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।
Alexa