ঢাকা, শুক্রবার, ১০ আশ্বিন ১৪২৭, ২৫ সেপ্টেম্বর ২০২০, ০৬ সফর ১৪৪২

জাতীয়

পুলিশের চোখ এড়াতে ট্রাকে ত্রিপলের নিচে বাঁধা ছিল ১৩ যাত্রী

ডিস্ট্রিক্ট করেসপন্ডেন্ট | বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম
আপডেট: ১৯৫৫ ঘণ্টা, মে ২১, ২০২০
পুলিশের চোখ এড়াতে ট্রাকে ত্রিপলের নিচে বাঁধা ছিল ১৩ যাত্রী

গাইবান্ধা: পুলিশের চোখ এড়াতে রড বোঝাই ট্রাকের ওপরে শক্ত ত্রিপলে বাঁধা ছিল গাইবান্ধার পলাশবাড়ীতে দুর্ঘটনায় প্রাণ হারানো হতভাগ্য ১৩ যাত্রী। এ কারণে আপ্রাণ চেষ্টা করেও শক্ত ত্রিপলের নিচ থেকে বেরিয়ে আসতে পারেনি দুর্ঘটনার শিকার মানুষগুলো।

বৃহস্পতিবার (২১ মে) দুপুরে খাদে পড়া ট্রাকের ত্রিপলের নিচ থেকে একের পর এক বেরিয়ে আসে ১৩ জনের মরদেহ।

এরআগে, ভোরে কোনো এক সময় ঝড়-বৃষ্টির মধ্যে নিয়ন্ত্রণ হারিয়ে খাদে পড়ে যায় রড বোঝাই ট্রাকটি।

>>>পলাশবাড়ীতে রডবোঝাই ট্রাক উল্টে নিহত ১৩

গোবিন্দগঞ্জ হাইওয়ে থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) আব্দুল কাদের জিলানী বাংলানিউজকে জানান, গাজীপুর থেকে রড বোঝাই একটি ট্রাক (ঢাকা-মেট্রো-ট-১৩-৫৬৯৮) অবৈধভাবে যাত্রী নিয়ে রংপুরের দিকে যাচ্ছিল। ট্রাকের চালক-হেলপার পুলিশের চোখ ফাঁকি দিতে যাত্রীদের শক্ত ত্রিপল দিয়ে ঢেকে-বেঁধে নেন। পথে ঢাকা-রংপুর মহাসড়কের জুনদহ এলাকায় ট্রাকটি নিয়ন্ত্রণ হারিয়ে উল্টে যায়। এতে শত চেষ্টা করেও ত্রিপলের ভেতর থেকে কেউ বেরিয়ে আসতে পারেনি।

তিনি আরও জানান, সকাল ৮টার দিকে দুর্ঘটনার খবর পেয়ে ঘটনাস্থল থেকে শুধু ট্রাকটি উদ্ধার করা হয়। তখন খাদে রড-ত্রিপলের নিচে এতোগুলো মানুষ চাপা পড়ে আছে সেটা সবার অজানা ছিল। পরে দুপুর ১২টার দিকে দুর্ঘটনাস্থলে খাদ থেকে রড ওপরে তোলার সময় ত্রিপলের নিচ থেকে একে একে ১৩ জনের মরদেহ উদ্ধার করা হয়। মৃতদের সবাই পুরুষ ছিলেন। এদের মধ্যে তিনজন শিশু।

তিনি আরও বলেন, মৃতদের মরদেহ হাইওয়ে থানায় রয়েছে। তাদের পরিচয় শনাক্তসহ মরদেহ পরিবারের কাছে হস্তান্তরের বিয়য়টি প্রক্রিয়াধীন রয়েছে।

এদিকে, গাইবান্ধা জেলা প্রশাসক আব্দুল মতিন বাংলানিউজকে জানান, মৃত প্রত্যেকের পরিবারকে ১০ হাজার করে অর্থ সহায়তা দেওয়া হবে।

বাংলাদেশ সময়: ১৯৪০ ঘণ্টা, মে ২১, ২০২০
এনটি

বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।
Alexa