ঢাকা, বুধবার, ১ বৈশাখ ১৪২৮, ১৪ এপ্রিল ২০২১, ০১ রমজান ১৪৪২

জাতীয়

‘লকডাউনের মধ্যে ধর্ষণ ৩৬, পারিবারিক নির্যাতন তিন শতাধিক’

সিনিয়র করেসপন্ডেন্ট | বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম
আপডেট: ১৬৪২ ঘণ্টা, এপ্রিল ১১, ২০২০
‘লকডাউনের মধ্যে ধর্ষণ ৩৬, পারিবারিক নির্যাতন তিন শতাধিক’

ঢাকা: করোনা সংক্রমণ ঠেকাতে সারাবিশ্বেই কার্যত লকডাউন চলছে। আমাদের দেশে লকডাউনের ঘোষণা না দেওয়া হলেও ছুটি ঘোষণা করে গণপরিবহন বন্ধ করে ‘লকডাউন পরিস্থিতি’ সৃষ্টি করা হয়েছে। এ অবস্থার মধ্যে নারী ধর্ষণ ও পারিবারিক সহিংসতা বেড়ে যাওয়ায় গভীর উদ্বেগ প্রকাশ করেছে মানুষের জন্য ফাউন্ডেশন (এমজেএফ)।

নারীর বিরুদ্ধে সহিংসতা প্রতিরোধে বিশ্বের সব দেশকে দ্রুত পদক্ষেপ গ্রহণে জাতিসংঘ মহাসচিবের সাম্প্রতিক আহবানের প্রতি দৃষ্টি আকর্ষণ করে কোভিড -১৯ এর জাতীয় পরিকল্পনার মূল অংশ হিসাবে নারী-শিশুদের বিরুদ্ধে সহিংসতা প্রতিরোধ ও প্রতিকারে কার্যকর ব্যবস্থা গ্রহণে বাংলাদেশ সরকারের প্রতি আহবান জানিয়েছে এমজেএফ।

সম্প্রতি এক বিবৃতিতে এমজেএফের নির্বাহী পরিচালক শাহীন আনাম বলেন, নিজের ঘরে সুরক্ষা ও নিরাপত্তার পরিবর্তে দেশের অনেক স্থানে নারী ও মেয়ে শিশুরা গৃহেই নানা ধরনের সহিংসতার শিকার হচ্ছে, যা সত্যিই উদ্বেগজনক।

পরিবারবেষ্টিত থাকায় নিগৃহীত নারীদের পক্ষে সহিংসতার ঘটনা জানানো বা আইনি পদক্ষেপ গ্রহণ সম্ভব হচ্ছে না।

এমজেএফ জানিয়েছে, শুধু মার্চ মাসেই বগুড়া, জামালপুর ও কক্সবাজার জেলায় ৩৬টি ধর্ষণের ঘটনা ঘটেছে। এছাড়া একই সময়ে এই তিনটি জেলাতেই তিন শতাধিক পারিবারিক নির্যাতনের ঘটনা ঘটেছে।

এমজেএফ মনে করে, বাংলাদেশের নারীদের প্রতি সহিংসতার ঘটনায় কোনো দায়মুক্তি নেই তা নিশ্চিত করে নারীসমাজের যত্ন নিতে হবে।

এ অবস্থায় পারিবারিক সহিংসতা প্রতিরোধে পুলিশকে আরও সক্রিয় ভূমিকা পালনের পাশাপাশি জেলা, উপজেলা ও ইউনিয়ন পর্যায়ের নারীর প্রতি সহিংসতা-প্রতিরোধ কমিটির পরিবীক্ষণ, প্রতিবেদন দাখিল এবং আইনি সহায়তা-প্রদান কার্যক্রম দ্রুত জোরদার এবং আইনি প্রক্রিয়া শেষে দোষীদের কঠোর শাস্তি নিশ্চিত করতে সরকারের প্রতি জোরালো আহবান জানিয়েছে এমজেএফ।

বাংলাদেশ সময়: ১৬২০ ঘণ্টা, এপ্রিল ১১, ২০২০
এসই/নিউজ ডেস্ক

বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।
Alexa