bangla news

রোগীদের পরিবহন সেবা দেবে সাভারের গণমাধ্যমকর্মী

সাভার করেসপন্ডেন্ট | বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম
আপডেট: ২০২০-০৪-১০ ১২:১৪:৪৮ পিএম
রুবেল আহমেদ প্রিন্স

রুবেল আহমেদ প্রিন্স

সাভার (ঢাকা): করোনার প্রভাবে সারাদেশ স্থবির হয়ে পড়েছে। বন্ধ রয়েছে গণপরিবহনসহ সরকারি-বেসরকারি সব প্রতিষ্ঠান। এর মধ্যে গুরুতর অসুস্থ রোগীদের জরুরি প্রয়োজনে পরিবহন দিয়ে বিনামূল্যে সাহায্য করবেন বেসরকারি টেলিভিশনের সংবাদকর্মী সাভারের রুবেল আহমেদ প্রিন্স।

বৃহস্পতিবার (০৯ এপ্রিল) রাতে সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম ফেসবুকে নিজের প্রোফাইলে এ সংক্রান্ত একটি স্ট্যাটস দেন তিনি।

পোস্টটিতে বলা হয়েছে, 'জরুরি কথা,
আমি পেশায় একজন গণমাধ্যমকর্মী, ইনডিপেনডেন্ট টিভির ঢাকা জেলা প্রতিনিধি হিসেবে কর্মরত আছি। সম্প্রতি করোনা ভাইরাসের কারণে বন্ধ রয়েছে যানবাহন চলাচল। তাই আপনার পরিবারের কোনো সদস্য বিশেষ করে রাতের বেলা গুরুতর অসুস্থ হয়ে পড়লে হাসপাতালে নেওয়ার সময় যদি কোনো যানবাহন না পান তাহলে আমাকে জানাতে পারেন। আমি পেশাগত কাজে অনেক সময়ই ব্যস্ত থাকি, তবে কথা দিচ্ছি কাজে না থাকলে আমি আমার গাড়ি নিয়ে হাজির হবো আপনার বাড়ির গেটে... ০১৭৫৫৫৩৭৩৯১।
নোট- পুরো সাভার অঞ্চলেই চেষ্টা থাকবে। তবে, বাড়ইপাড়া, কবিরপুর, জিরানী, কলতাসূতিসহ পুরো শিমুলিয়া ইউনিয়ন, চক্রবর্তী, এসব অঞ্চল হলে দ্রুত পৌঁছাতে পারবো। আর দয়া করে এই অসুস্থতাজনিত জরুরি প্রয়োজন ছাড়া কেউ অযথা এখান থেকে ওখানে নামিয়ে দিতে অনুরোধ করে আমাকে বিভ্রতকর পরিস্থিতিতে ফেলবেন না।

পোস্টটিতে অনেকই মন্তব্য করেছেন। তার মধ্যে ধামরাই থানার পরিদর্শক (তদন্ত) মাসুদুর রহমান পোস্টটির নিচে মন্তব্যে লিখেছেন, 'দেশে মানুষ আছে, বোঝা যায়'। সোহেল হোসেন নামের আরেক জন লিখেছেন, 'এই উদার মহতি উদ্যোগকে স্বাগত জানাই। আল্লাহ তোমার সহায় হোন।'

বিষয়টি নিয়ে রুবেল আহমেদ প্রিন্স বাংলানিউজকে বলেন, রোগী নিয়ে যওয়ার টাকা নেই। আবার অনেকের টাকা থাকলেও রেন্ট-এ কার সুবিধা বন্ধ থাকায় মধ্য রাতে গাড়ি ম্যানেজ করাটা প্রায় অসম্ভব। বিশেষ করে রোগী শুনলে চালকেরা করোনায় আক্রান্ত হওয়ার ভয়ে আসতেও চায় না। এসব চিন্তা থেকেই এমন সিদ্ধান্ত নেওয়া, দেশের এই বিপর্যয়কালে পরিবহনের অভাবে চিকিৎসা পেতে হাসপাতালে পৌঁছাতে যেন কোনো মানুষ বা পরিবারকে সমস্যায় পড়তে না হয়।

বাংলাদেশ সময়: ১২১২ ঘণ্টা, ১০ এপ্রিল, ২০২০
আরএ

ক্লিক করুন, আরো পড়ুন :   সাভার
        ইউটিউব সাবস্ক্রাইব করুন  

বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।

Alexa
cache_14 2020-04-10 12:14:48