bangla news

৬ শতাধিক পরিবারে ভাটারা থানার ত্রাণ বিতরণ

সিনিয়র করেসপন্ডেন্ট | বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম
আপডেট: ২০২০-০৪-০৪ ১২:৩৫:৩৫ পিএম
ত্রাণ বিতরণ। ছবি: ডিএইচ বাদল

ত্রাণ বিতরণ। ছবি: ডিএইচ বাদল

ঢাকা: করোনা ভাইরাসের কারণে যাদের আয় রোজগার বন্ধ হয়ে গেছে তাদের পাশে দাঁড়িয়েছে আইন-শৃংখলা রক্ষায় নিয়োজিত পুলিশ বাহিনী। প্রগতি সরণি, গুলশান, বাড্ডা, বারিধারা ও ছোলমাইদ এলাকার ছয় শতাধিক পরিবারকে খাদ্যসামগ্রী দিয়ে সহায়তা করেছে ভাটারা থানা পুলিশ।       

রোববার (৪ এপ্রিল) সকালে ছোলমাইদ উচ্চ বিদ্যালয় মাঠে ত্রাণ বিতরণ কার্যক্রমে প্রধান অতিথি ছিলেন ঢাকা মেট্রোপলিটন পুলিশের (ডিএমপির) গুলশান বিভাগের উপ-কমিশনার (ডিসি) সুদীপ কুমার চক্রবর্ত্তী।

এ সময় আরও উপস্থিত ছিলেন ঢাকা মেট্রোপলিটন পুলিশের (ডিএমপির) গুলশান বিভাগের বাড্ডা জোনের সহকারী উপ-কমিশনার (এডিসি) মমতাজুল এহসান মোহাম্মদ হুমায়ুন, ভাটারা থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা মো. মোক্তারুজ্জামান, পুলিশ পরিদর্শক (তদন্ত) মোহাম্মদ আবু আজিফ, পুলিশ পরিদর্শক (অপারেশন) গোলাম ফারুক ও ছোলমাইদ উচ্চ বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক শাহাদাত হোসেন।ত্রাণ বিতরণ। ছবি: ডিএইচ বাদলএ সময় সুদীপ কুমার চক্রবর্ত্তী বলেন, বিভিন্ন কারণে আমরা মাঝেমধ্যে প্রাকৃতিক দুর্যোগের মধ্যে পড়ি। করোনা ভাইরাস সে ধরনের একটি দুর্যোগ। এ কারণে আমাদের ঘরে থাকতে হচ্ছে। বন্ধ হয়ে গেছে স্বাভাবিক জীবনযাত্রা। তাই অসহায় মানুষের পেট চালানোর উদ্যোগ নেওয়া হয়েছে। আমি এই উদ্যোগকে স্বাগত জানাচ্ছি।

তিনি আরও বলেন, একইসঙ্গে এসব দরিদ্রদের সহায়তা করতে সমাজের বিত্তবানদের এগিয়ে আসার আহ্বান জানাই। তবে ত্রাণ বিতরণে জনসমাবেশ না করে সুষ্ঠু ও সুশৃংখলভাবে ত্রাণ বিতরণের জন্য পুলিশের সহায়তা নেওয়ার অনুরোধ করছি। পুলিশ সব ধরনের সহযোগিতার জন্য প্রস্তুত রয়েছে।

ভাটারা থানার পুলিশ পরির্দশক (অপারেশন) গোলাম ফারুক বলেন, আপনারা যাতে না খেয়ে থাকেন সেই চেষ্টার অংশ হিসেবে সরকারের নির্দেশে আমরা খাদ্যসামগ্রী বিতরণ করতে এসেছি। আপনারা বিনা কারণে কেউ ঘরের বাইরে যাবেন না। অযথা বাইরে ঘোরাফেরা করবেন না।  

আয়োজকরা জানান, প্রাথমিকভাবে ছয়শজনের একটি তালিকা তৈরি করে প্রত্যেককে পাঁচ কেজি চাল, ১ কেজি ডাল, ১ কেজি পেঁয়াজ, ২ কেজি আলু, ১ লিটার সয়াবিন তেল, ১টি করে সাবান দেওয়া হয়েছে। এর বাইরে আরও কেউ এলে তাদেরও এসব খাদ্যসামগ্রী দেওয়া হবে।

বাংলাদেশ সময়: ১১৪৯ ঘণ্টা, এপ্রিল ০৪, ২০২০
এসই/এএটি

ক্লিক করুন, আরো পড়ুন :   করোনা ভাইরাস
        ইউটিউব সাবস্ক্রাইব করুন  

বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।

Alexa
cache_14 2020-04-04 12:35:35