ঢাকা, রবিবার, ৩০ জ্যৈষ্ঠ ১৪২৮, ১৩ জুন ২০২১, ০২ জিলকদ ১৪৪২

জাতীয়

না’গঞ্জে সেপটিক ট্যাংক বিস্ফোরণে ছেলের পর মায়ের মৃত্যু

ডিস্ট্রিক্ট করেসপন্ডেন্ট | বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম
আপডেট: ১৯১২ ঘণ্টা, মার্চ ৩১, ২০২০
না’গঞ্জে সেপটিক ট্যাংক বিস্ফোরণে ছেলের পর মায়ের মৃত্যু

নারায়ণগঞ্জ: নারায়ণগঞ্জ শহরের বাবুরাইল এলাকায় সেপটিক ট্যাংক বিস্ফোরণে আট মাস বয়সী সন্তানের পর চিকিৎসাধীন অবস্থায় তার মায়ের মৃত্যু হয়েছে।

নিহত গৃহবধূর নাম ফেরদৌসী বেগম (৩০)। তিনি বাবুরাইল বটতলা এলাকার ইট-বালু ব্যবসায়ী তোফাজ্জল হোসেনের স্ত্রী।

সোমবার (৩০ মার্চ) দিনগত রাতে ঢাকা মেডিক্যাল কলেজ (ঢামেক) হাসপাতালে চিকিৎসাধীন অবস্থায় তিনি মারা যান।

এর আগে গত ২৭ মার্চ ভোরে সেপটিক ট্যাংক বিস্ফোরণে ঘটনাস্থলেই ওই গৃহবধূর আট মাস বয়সী শিশুর মৃত্যু হয়। এ ঘটনায় গুরুতর আহত হয়ে ঢামেক হাসপাতালে চিকিৎসাধীন রয়েছেন ওই গৃহবধূর স্বামী তোফাজ্জল হোসেন (৫০) মেয়ে হালিমা বেগম (১১) ও ছেলে মোহাম্মদ হোসেন (৯)।  

আহত তোফাজ্জল হোসেনের খালাতো ভাই রাকিব উদ্দিন বাংলানিউজকে জানান, গত ২৭ মার্চ রাতে তিন সন্তান নিয়ে ফেরদৌসী বেগম ছিলেন এক রুমে আর তোফাজ্জল হোসেন পাশের রুমে ঘুমিয়ে ছিলেন। ভোর পৌনে ৫টার দিকে বিকট শব্দে বাড়ির সেপটিক ট্যাংক বিস্ফোরণ হলে দেয়াল ধসে পড়ে। এতে পবিরারের পাঁচজনই দেয়াল চাপা পড়ে গুরুতর আহত হন। তাৎক্ষণিকভাবে তাদের উদ্ধার করে নারায়ণগঞ্জ জেনারেল হাসপাতালে নিয়ে গেলে কর্তব্যরত চিকিৎসক শিশু আহাম্মদকে মৃত ঘোষণা করেন।

তিনি আরও জানান, আহত চারজনের মধ্যে ফেরদৌসী বেগম ও তার দুই ছেলে-মেয়েকে হাসপাতালের নিবিড় পরিচর্যা কেন্দ্রে (আইসিইউ)  রাখা হয়েছিল। সেখানে চিকিৎসাধীন সোমবার দিনগত রাতে ফেরদৌসী বেগমের মৃত্যু হয়।

বাংলাদেশ সময়: ১৭০০ ঘণ্টা, মার্চ ৩১, ২০২০
ওএইচ/

বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।
Alexa