ঢাকা, বৃহস্পতিবার, ১৩ শ্রাবণ ১৪২৮, ২৯ জুলাই ২০২১, ১৮ জিলহজ ১৪৪২

জাতীয়

কাজের সন্ধানে এসে ফরিদপুরে আটকা পড়েছে ৩ শতাধিক দিনমজুর 

ডিস্ট্রিক্ট করেসপন্ডেন্ট | বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম
আপডেট: ১৬৫৯ ঘণ্টা, মার্চ ২৮, ২০২০
কাজের সন্ধানে এসে ফরিদপুরে আটকা পড়েছে ৩ শতাধিক দিনমজুর 

ফরিদপুর: গণপরিবহন বন্ধ ও চলাচলে নিষেধাজ্ঞা থাকায় উত্তরবঙ্গ থেকে কাজের সন্ধানে ফরিদপুরে এসে আটকা পড়েছে ৩ শতাধিক দিনমজুর। করোনা ভাইরাসের প্রাদুর্ভাবের কারণে কৃষিকাজে তাদের নিচ্ছেন না গৃহস্থরা। কাজ না পেয়ে মানবেতর জীবনযাপন করছেন তারা। 

দিনাজপুর, রাজশাহী, নাটোর, পাবনা, নওগা, কুড়িগ্রামসহ উত্তরের বিভিন্ন জেলা থেকে কৃষিকাজের জন্য ফরিদপুরে আসেন নিম্ন আয়ের এ মানুষরা। এদের মধ্যে কেউ দুই মাস আবার কেউ এক সপ্তাহ আগে এসেছেন।

কাজ না থাকায় নিজেদের কাছে জমানো টাকা শেষ হওয়ায় পরিবারের কাছেও টাকা পাঠাতে পারছেন না।  

করোনা ভাইরাসের কারণে লোক সমাগম সীমিত থাকায় কাজ হারিয়েছেন তারা। ফরিদপুর শহরের ব্রাহ্মণকান্দা বাইপাস সড়কের পাশে শ্রমিক হাটে আটকে পড়া এসব মানুষদের দিন কাটছে না খেয়ে। বাড়ি ফিরে স্ত্রী সন্তানদের মুখে কিভাবে খাবার তুলে দেবেন সেই চিন্তার ছাপ তাদের চোখে মুখে।

নওগাঁ জেলা থেকে আসা জনাব আলী বাংলানিউজকে জানান, এক মাস আগে কৃষিকাজের সন্ধানে ফরিদপুরে এসেছেন। কিছুদিন কাজও করেছেন। কিন্তু করোনা ভাইরাসের কারণে স্বাস্থ্য ঝুঁকি বিবেচনা করে গৃহস্থরা কাজে নিচ্ছেন না। আর গণপরিবহন বন্ধ ও লোক চলাচলে নিষেধাজ্ঞা থাকায় বাড়িতেও ফিরতে পারছেন না।
দিনাজপুরের জাহাঙ্গীর আলম জানান, এখানে কাজ করে যে টাকা জমিয়েছি তা খরচ হয়ে গেছে। বাড়িতে গিয়েও কোনো কাজ পাব না। স্ত্রী সন্তানদের নিয়ে কিভাবে দিন পার করব তা ভেবে পাচ্ছি না।

এদিকে, মানবিক অবস্থা বিবেচনা করে নিম্ন আয়ের এ মানুষদের দুর্দশা লাঘবে পাশে দাঁড়িয়েছেন স্থানীয় আওয়ামী লীগ নেতা সাজ্জাদ হোসেন বরকত। স্থানীয় প্রশাসনের সহযোগিতায় তার নিজ মালিকানাধীন তিনটি বাসে আটক পড়াদের মধ্যে ১৯৮ জনকে বাড়িতে পৌঁছে দেওয়ার ব্যবস্থা নিয়েছেন তিনি। দিনমজুরদের স্বাস্থ্য ঝুঁকি এড়াতে সাবান, মাস্ক ও নগদ টাকাও দেওয়া হয়েছে। মানবিক এ উদ্যোগে সন্তোষ প্রকাশ করেছেন মজুরেরা।  

বাংলাদেশ সময়: ১৬৫৭ ঘণ্টা, মার্চ ২৮, ২০২০ 
এমআরএ 

বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।
Alexa