bangla news

নরসিংদীতে হোম কোয়ারেন্টিনে নতুন ৪৬, ছাড়পত্র পেয়েছে ৩৯

ডিস্ট্রিক্ট করেসপন্ডেন্ট | বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম
আপডেট: ২০২০-০৩-২৭ ১০:০০:৪৯ পিএম
হোম কোয়ারেন্টিন। প্রতীকী ছবি

হোম কোয়ারেন্টিন। প্রতীকী ছবি

নরসিংদী: নরসিংদীতে ২৪ ঘণ্টায় নতুন করে বিদেশফেরত আরও ৪৬ জনকে হোম কোয়ারেন্টিনে রাখা হয়েছে। এ নিয়ে জেলার ৬টি উপজেলায় সর্বমোট ৫৮৯ জন প্রবাসীকে হোম কোয়ারেন্টিনে রাখা হয়েছে। এছাড়া ৩৯ জন প্রবাসীর ১৪ দিন শেষ হওয়ায় তাদের ছাড়পত্র দেওয়া হয়েছে। 

শুক্রবার (২৭ মার্চ) সন্ধ্যায় বাংলানিউজকে এ তথ্য নিশ্চিত করেছেন নরসিংদীর সিভিল সার্জন ডা. মোহাম্মদ ইব্রাহিম টিটন।

হোম কোয়ারেন্টিনে রয়েছে নরসিংদী সদর উপজেলার ১৪৬ জন, রায়পুরায় ১১৯, বেলাবতে ৪১, মনোহরদীতে ১১৭, শিবপুরে ৮৯ ও পলাশ উপজেলায় ৭৭ জন। এরা সবাই ইতালি, সৌদী আরব, দক্ষিণ কোরিয়া, দুবাই, অস্ট্রেলিয়া ও সিঙ্গাপুর ফেরত।

সিভিল সার্জন ডা. মোহাম্মদ ইব্রাহিম টিটন বলেন, নরসিংদীতে এখনো পর্যন্ত করোনা ভাইরাসের রোগী শনাক্ত হয়নি। যারাই বিদেশ থেকে দেশে ফিরছেন তাদের স্বাস্থ্য নিরাপত্তামূলক ব্যবস্থা হিসেবে দুই সপ্তাহের জন্য হোম কোয়ারেন্টিনে রাখা হচ্ছে। শুক্রবার পযর্ন্ত আগের ৩৯ জন প্রবাসীকে ১৪ দিন হোম কোয়ারেন্টিনে রাখার পর তাদের মধ্যে করোনা ভাইরাসের কোনো লক্ষণ না থাকায় ছাড় দেওয়া হয়েছে।
তিনি আরও বলেন, করোনা ভাইরাস প্রতিরোধে কুইক রেসপন্স টিম গঠন করেছে জেলা পুলিশ। কোথাও করোনা ভাইরাস আক্রান্ত হয়েছে সন্দেহ হলে সেই এলাকা লকডাউন ও আইসোলেশনে কুইক রেসপন্স টিম তাৎক্ষণিকভাবে কাজ করবে। এই লক্ষ্যে নরসিংদী পুলিশ লাইনে এই কুইক রেসপন্স টিম একাধিকবার প্রয়োজনীয় মহড়া সম্পন্ন করেছে।

এদিকে সরকার ঘোষিত ছুটির দ্বিতীয় দিনে করোনা ভাইরাস প্রতিরোধে জনসমাগমরোধ ও সামাজিক দূরত্ব বজায় রাখতে নরসিংদীতে মাঠে নেমেছে সেনাবাহিনী। 

শুক্রবার সকাল থেকে নরসিংদী শহরের বিভিন্ন এলাকায় এ কার্যক্রম পরিচালনা করা হয়। নিত্যপ্রয়োজনীয় দ্রব্য, ওষুধের দোকান ছাড়া সব দোকানপাট বন্ধ রাখা নিশ্চিত করতে নরসিংদীতে অভিযান পরিচালনা করছে সেনাবাহিনী। 

এছাড়া  প্রবাসীদের হোম কোয়ারেন্টিনে থাকা নিশ্চিত করতে অভিযান পরিচালনা করছে সেনাবাহিনী।

বাংলাদেশ সময়: ২১৫৭ ঘণ্টা, মার্চ ২৭, ২০২০
আরএ

ক্লিক করুন, আরো পড়ুন :   নরসিংদী করোনা ভাইরাস
        ইউটিউব সাবস্ক্রাইব করুন  

বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।

Alexa
cache_14 2020-03-27 22:00:49