bangla news

বাংলাদেশ থেকে গৃহকর্মী নেবে মালয়েশিয়া

স্টাফ করেসপন্ডেন্ট | বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম
আপডেট: ২০২০-০২-২৩ ৬:০৩:২২ পিএম
বৈঠকে দুই দেশের মন্ত্রীসহ ঊর্ধ্বতন কর্মকর্তারা। ছবি: বাংলানিউজ

বৈঠকে দুই দেশের মন্ত্রীসহ ঊর্ধ্বতন কর্মকর্তারা। ছবি: বাংলানিউজ

ঢাকা: বাংলাদেশিদের জন্য দ্রুত শ্রমবাজার খুলতে মালয়েশিয়া আগ্রহী বলে জানিয়েছেন দেশটির মানবসম্পদ বিষয়ক মন্ত্রী এম কুলাসেগেরান। 

তিনি বলেছেন, আমাদের অর্থনীতির আকার বাড়ছে। ফলে মালয়েশিয়া এই মুহূর্তে কর্মী সংকটে রয়েছে। এ অবস্থায় আরও কর্মী দরকার। এর চেয়ে বড় বিষয় আমরা শ্রমবাজারের পরিধি বাড়িয়েছি। আমরা গৃহকর্মী নিতে চাই। আশা করি দ্রুত আমরা সব বিষয় ঠিক করতে পারবো।

রোববার (২৩ ফেব্রুয়ারি) প্রবাসী কল্যাণ ও বৈদেশিক কর্মসংস্থান মন্ত্রণালয়ে মন্ত্রী ইমরান আহমদের সঙ্গে মালয়েশীয় মন্ত্রীর বৈঠক হয়। বৈঠক শেষে সাংবাদিকদের তিনি এ তথ্য জানান। 

কুলাসেগেরান বলেন, আমরা বাংলাদেশ থেকে কর্মী নিতে চাই। এ জন্য আমি বাংলাদেশে এসেছি। শ্রমবাজার চালু সংক্রান্ত কিছু বিষয়ে একমত হয়েছি। এর মধ্যে ২৬ ফেব্রুয়ারি জয়েন্ট ওয়ার্কিং কমিটির মিটিং আছে। আমাদের মন্ত্রণালয়ের কর্মকর্তারা কয়েকটি বিষয় ফাইনালাইজড করতে মিটিংয়ে যোগ দেবেন।

সাংবাদিকদের এক প্রশ্নের উত্তরে মালয়েশিয়ার মন্ত্রী বলেন, বাংলাদেশের জন্য শ্রমবাজারটি শিগগিরিই চালু হবে। আসন্ন বৈঠকে যে সিদ্ধান্ত নেওয়া হবে তা মালয়েশিয়ার মন্ত্রিপরিষদে উত্থাপন করা হবে। মন্ত্রিপরিষদে এটি পাস হলেই কেবল শ্রমবাজারটি উন্মুক্ত হবে। 

মালয়েশিয়ায় অবৈধ বাংলাদেশিকর্মীদের নিয়ে এক প্রশ্নের  উত্তরে এম কুলাসেগারান বলেন, এটা আমার দেশের স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয় তদারোকি করছে। এ বিষয়ে তারা সিদ্ধান্ত নেবেন।’

এদিকে প্রবাসী কল্যাণ ও বৈদেশিক কর্মসংস্থান মন্ত্রী ইমরান আহমদ সাংবাদিকদের বলেন, মালয়েশিয়া শ্রমবাজার চালুর বিষয়ে শুরু থেকেই কুলাসেগারান এবং আমি একমত ছিলাম। আমরা আনন্দিত যে বাজারটি উন্মুক্ত হওয়ার পথে। 

‘তবে মালয়েশিয়ায় কর্মী প্রেরণের বিষয়ে চূড়ান্ত সিদ্ধান্ত হবে ২৬ ফেব্রুয়ারি (বুধবার) জয়েন্ট ওয়ার্কিং গ্রুপের বৈঠকে। যা ২৪ ফেব্রুয়ারি অনুষ্ঠিত হওয়ার কথা ছিল।’

তিনি বলেন, কোন পদ্ধতিতে মালশিয়ায় কর্মী প্রেরণ করা হবে তাও নির্ধারণ হবে বুধবারের বৈঠকে। তবে আমরা একমত হয়েছি যে, আমাদের খুব দ্রুত শ্রমবাজার খুলতে হবে। এবার আমরা গৃহকর্মী পাঠাবো মালয়েশিয়ায়। এ সংক্রান্ত বিভিন্ন বিষয়ে আলাপ হয়েছে। এগুলো আগামী বুধবার জয়েন্ট ওয়ার্কিং কমিটির সভায় চূড়ান্ত করা হবে। খুব শিগগিরই আমরা যে কোনো একটা সিস্টেমে মালয়েশিয়ার শ্রমবাজারে কর্মী পাঠাবো। 

বৈঠকে বাংলাদেশে নিযুক্ত মালয়েশিয়ার ভারপ্রাপ্ত হাইকমিশনার আমির ফরিদ আবু হাসান, মালয়েশিয়ায় নিযুক্ত বাংলাদেশের হাইকমিশনার শহীদুল ইসলাম, প্রবাসী কল্যাণ ও বৈদেশিক কর্মসংস্থান মন্ত্রণালয়ের সচিব মো. সেলিম রেজা, হাইকমিশনের শ্রম কাউন্সিলর মো. জহিরুল ইসলাম, যুগ্ম সচিব মো. জাহিদ হোসেনসহ মন্ত্রণালয়ের অন্যান্য কর্মকর্তাসহ জয়েন্ট ওয়ার্কিং গ্রুপের সদস্যরা উপস্থিত ছিলেন।

বাংলাদেশ সময়: ১৭৫৯ ঘণ্টা, ফেব্রুয়ারি ২৩, ২০২০
জিসিজি/এমএ  

        ইউটিউব সাবস্ক্রাইব করুন  

বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।

Alexa
cache_14 2020-02-23 18:03:22