bangla news

বান্দরবানের জামছড়িতে হত্যার নিন্দা পার্বত্য মন্ত্রীর

স্পেশাল করেসপন্ডেন্ট | বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম
আপডেট: ২০২০-০২-২৩ ৫:৪৩:২৭ পিএম
পার্বত্য চট্টগ্রাম বিষয়ক মন্ত্রী বীর বাহাদুর উশৈসিং। ফাইল ফটো

পার্বত্য চট্টগ্রাম বিষয়ক মন্ত্রী বীর বাহাদুর উশৈসিং। ফাইল ফটো

ঢাকা: পার্বত্য চট্টগ্রামের জামছড়ির মুখপাড়ায় হামলা চালিয়ে ওয়ার্ড আওয়ামী লীগের সভাপতি বানচু মারমাকে (৪৮) হত্যা ও আরো অন্তত ছয়জনকে হামলার ঘটনায় উদ্বেগ প্রকাশ করেছেন পার্বত্য চট্টগ্রাম বিষয়ক মন্ত্রী বীর বাহাদুর উশৈসিং।

পার্বত্য চট্টগ্রামের শান্তি ও চলমান উন্নয়ন প্রক্রিয়াকে ব্যাহত করার জন্য শান্তি ও উন্নয়ন বিরোধী অপশক্তি এ ঘটনার পেছনে জড়িত থাকতে পারে বলে রোববার (২৩ ফেব্রুয়ারি) এক বিবৃতিতে মন্ত্রী জানান।

শনিবার (২২ ফেব্রুয়ারি) সন্ধ্যায় জামছড়ি এলাকায় সাত-আটজনের মুখোশ পরিহিত একটি দল অতর্কিতে গুলি ছুড়ে। এতে বাচনু মারমা নিহত হন। এ ঘটনায় সাবেক ইউপি সদস্য ও যুবলীগের নেতাসহ আহত হয়েছেন আরো পাঁচজন। নিহতের বাড়ি জামছড়ির ভেতর পাড়ায়।

হামলা ও হত্যাকাণ্ডের পেছনে কারা জড়িত তা তদন্ত সাপেক্ষ উল্লেখ করে বীর বাহাদুর উশৈসিং বলেন, পার্বত্য এলাকায় শান্তি-শৃংখলা ও উন্নয়নের ধারা চলমান রাখার স্বার্থে অবিলম্বে এসব সন্ত্রাসীদের চিহ্নিত ও আইনের আওতায় আনা প্রয়োজন। 

তিনি বলেন, মুষ্টিমেয় কিছু সন্ত্রাসী ছাড়া পার্বত্য চট্টগ্রামে বসবাসরত পাহাড়ি, বাঙালি তথা আপামর জনগোষ্ঠী শান্তি, স্থিতিশীলতা, উন্নয়ন ও অগ্রগতির পক্ষে।

মন্ত্রী বলেন, প্রধানমন্ত্রী দেশরত্ন শেখ হাসিনার নেতৃত্বে ১৯৯৭ সালের ২ ডিসেম্বর ঐতিহাসিক পার্বত্য চট্টগ্রাম শান্তি চুক্তির পর পশ্চাৎপদ এ অঞ্চলে যেভাবে উন্নয়নের ধারা সূচিত হয়েছে তা নস্যাৎ করার জন্য বিভিন্ন ষড়যন্ত্রকারী চক্র তৎপর।

তিনি বলেন, অস্ত্রবাজির মাধ্যমে শান্তি ও উন্নয়নের স্বপক্ষশক্তি আওয়ামী লীগের নেতাকর্মীদের দমন ও সাধারণ জনগণকে আতংকিত করে উন্নয়নের ধারাকে ব্যাহত করার তাদের হীন উদ্দেশ্য কোনোদিন সফল হবে না।

এছাড়াও মন্ত্রী পার্বত্য চট্টগ্রামে বিভিন্ন সময়ে ঘটে যাওয়া অপহরণ-হত্যা-ঘুমসহ সর্বশেষ জামছড়িতে বর্বরোচিত হামলার ঘটনায় তীব্র নিন্দা জানিয়ে অবিলম্বে এ ঘটনায় জড়িত সন্ত্রাসীদের চিহ্নিত করে আইনের আওতায় আনার দাবি জানিয়েছেন।

বাংলাদেশ সময়: ১৭৩৯ ঘণ্টা, ফেব্রুয়ারি ২৩, ২০২০
এমআইএইচ/আরবি/

        ইউটিউব সাবস্ক্রাইব করুন  

বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।

Alexa
db 2020-02-23 17:43:27