bangla news

বেইলি সেতু ভেঙে ট্রাক পানিতে, যোগাযোগ বিচ্ছিন্ন

ডিস্ট্রিক্ট করেসপন্ডেন্ট | বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম
আপডেট: ২০২০-০২-১৮ ৬:২৭:০৯ পিএম
বেইলি সেতু। ছবি: বাংলানিউজ

বেইলি সেতু। ছবি: বাংলানিউজ

বগুড়া: বগুড়া-সিরাজগঞ্জ আঞ্চলিক মহাসড়কের ধুনট উপজেলার মাঠপাড়া গ্রামে গাড়ামারা খালের উপর বেইলি সেতু ভেঙে একটি বালুবোঝাই ট্রাক পানিতে ডুবে গেছে। এতে কোনো হতাহতের ঘটনা ঘটেনি। তবে ওই আঞ্চলিক সড়কে যোগাযোগ বিচ্ছিন্ন হয়ে পড়েছে।

মঙ্গলবার (১৮ ফেব্রুয়ারি) দুপুর সোয়া ১টার দিকে এ ঘটনা ঘটে। 

স্থানীয় সূত্রে জানা যায়, সড়ক ও জনপথ বিভাগের অর্থায়নে ১৯৯২ সালে বগুড়ার ধুনট-শেরপুর পাকা সড়কের মাঠপাড়া গ্রামে গাড়ামারা খালের ওপর ৬২ মিটার দৈর্ঘ্য বেইলি সেতুটি নির্মাণ করা হয়। নির্মাণের পর থেকে সেতুর উপর দিয়ে অতিরিক্ত মালামাল বোঝাই ভারি যানবহন পারাপার হয়। এ কারণে ট্রানজাম ও স্টিল টেকিং (পাটাতন) নষ্ট হওয়ায় সেতুটি ক্ষতিগ্রস্ত হয়। তারপরও ওই সেতুটির উপর দিয়ে অতিরিক্ত মালামাল বোঝাই যানবাহন পারাপার হতে থাকে। এ কারণে কয়েক বছরে সেতুটি কমপক্ষে ১৫ বার ভেঙে গিয়ে যানবহন চলাচল বন্ধ হয়েছে। সড়ক ও জনপথ অধিদপ্তর (সওজ) কর্তৃপক্ষ বার বার জোড়াতালি দিয়ে ক্ষতিগ্রস্ত সেতুটি মেরামত করেন। কিন্তু সেতুটি বেশি দিন টিকে থাকে না। 

এ অবস্থায় মঙ্গলবার দুপুরে ধুনট উপজেলার যমুনা নদী থেকে অতিরিক্ত বালুবোঝাই করে একটি ট্রাক শেরপুর শহরের দিকে যাওয়ার পথে সেতুটি ভেঙে পড়ে। এতে ট্রাকটি পানিতে ডুবে যায়। তবে এ ঘটনায় কোনো হতাহতের ঘটনা ঘটেনি। এদিকে সেতুটি ভেঙে পড়ায় ওই আঞ্চলিক মহাসড়কে যোগাযোগ বিচ্ছিন্ন হয়ে পড়েছে।

ধুনট থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) ইসমাইল হোসেন বাংলানিউজকে বলেন, ভেঙে পড়া সেতুর দু’পাশে পুলিশ মোতায়েন করা হয়েছে।

সওজ বগুড়ার নির্বাহী প্রকৌশলী আশরাফুজ্জামান বাংলানিউজকে বলেন, ঝুঁকিপূর্ণ সেতুর উপর দিয়ে অতিরিক্ত ওজনের পরিবহন পারাপার করার ওপর নিষেধাজ্ঞা রয়েছে। কিন্তু নিষেধাজ্ঞা অমান্য করে অতিরিক্ত বালুবোঝাই ট্রাক পারাপারের সময় সেতুটি ভেঙে পড়েছে। 

তিনি বলেন, ভেঙে পড়া সেতুটি দ্রুত মেরামত করে যানবহন চলাচলের উপযোগী করা হবে।

বাংলাদেশ সময়: ১৮২৫ ঘণ্টা, ফেব্রুয়ারি ১৮, ২০২০
কেইউএ/আরবি/

ক্লিক করুন, আরো পড়ুন :   বগুড়া
        ইউটিউব সাবস্ক্রাইব করুন  

বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।

Alexa
cache_14 2020-02-18 18:27:09