bangla news

নিখোঁজ মা-ছেলের মরদেহ চারদিন পর উদ্ধার

ডিস্ট্রিক্ট করেসপন্ডেন্ট | বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম
আপডেট: ২০২০-০২-১৮ ১২:৩১:৪৩ পিএম
স্বজনদের আহাজারী/ফাইল ছবি

স্বজনদের আহাজারী/ফাইল ছবি

রাঙামাটি: রাঙামাটির কাপ্তাই উপজেলায় কর্ণফুলী নদীতে বোটডুবির ঘটনার ৪দিন পর মা টুম্পা মজুমমার এবং ছেলে বিজয় মজুমদারের মরদেহ উদ্ধার করেছে পুলিশ। 

মঙ্গলবার (১৮ ফেব্রুয়ারি) সকালে চট্টগ্রামের রাঙ্গুনিয়া উপজেলার পূর্ব সড়ক ভাটার মরাখাল এলাকার কর্ণফুলী নদী থেকে মরদেহ দু’টি উদ্ধার করা হয়।

স্থানীয় ও পুলিশ সূত্রে জানা গেছে, সকালে চট্টগ্রামের রাঙ্গুনিয়া উপজেলার পূর্ব সড়ক ভাটার মরাখাল এলাকার কর্ণফুলী নদীতে দু’টি মরদেহ ভাসতে দেখে স্থানীয়রা পুলিশকে খবর দিলে ঘটনাস্থলে এসে মরদেহগুলো উদ্ধার করে রাঙ্গুনিয়া থানায় নেওয়া হয়।

রাঙ্গুনিয়া থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) সাইফুল ইসলাম ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করে বলেন, মরদেহগুলো থানায় রাখা রেখে তাদের স্বজনদের খবর দেওয়া হয়েছে। তারা এলে মরদেহগুলো হস্তান্তর করা হবে।

এর আগে গত ১৪ ফেব্রুয়ারি (শুক্রবার) সকালে চট্টগ্রামের নন্দনকানন এলাকার রাধামাধব মন্দির থেকে প্রায় ১২৭ জনের একদল ইসকন ধর্মালম্বী রাঙামাটির কাপ্তাই উপজেলায় বিভিন্ন মন্দির ভ্রমণে আসে। এরপর দলটি উপজেলার শীলছড়ি মন্দির পরিদর্শনের জন্য তিনটি বোট ভাড়া করে মন্দিরের উদ্দেশ্যে যাত্রা করে। এর মধ্যে ২টি বোট যথাযথ স্থানে পৌঁছালে হঠাৎ করে একটি উল্টে যায়। এতে বোটে থাকা ৪৭ জন যাত্রী নদীতে ডুবে যায়। ডুবে যাওয়াদের মধ্যে অনেকে সাঁতাকে তীরে উঠতে পারলেও মা-ছেলেসহ তিনজন নিখোঁজ হয়। ঘটনার কিছুঘণ্টা পর দেবলীনা দে (১০) নামে এক শিশুর মরদেহ পাওয়া যায়।

আরও পড়ুনকর্ণফুলীতে বোটডুবির  ঘটনায় মরদেহ উদ্ধার, মা-ছেলে নিখোঁজ

বাংলাদেশ সময়: ১১৩০ ঘণ্টা, ফেব্রুয়ারি ১৮, ২০২০
এসএইচ

        ইউটিউব সাবস্ক্রাইব করুন  

বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।

Alexa
cache_14 2020-02-18 12:31:43