bangla news

বিএনপিকে জঙ্গিবাদের পথ ছাড়ার আহ্বান কৃষিমন্ত্রীর

স্পেশাল করেসপন্ডেন্ট | বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম
আপডেট: ২০২০-০২-১৭ ৭:২০:৪০ পিএম
সংসদে কৃষিমন্ত্রী আব্দুর রাজ্জাক

সংসদে কৃষিমন্ত্রী আব্দুর রাজ্জাক

জাতীয় সংসদ ভবন থেকে: বিএনপিকে ধর্মান্ধতা ও জঙ্গিবাদের পথ ছেড়ে সহজ পথে আসার আহ্বান জানিয়েছেন কৃষিমন্ত্রী ড. আব্দুর রাজ্জাক।

সোমবার (১৭ ফেব্রুয়ারি) জাতীয় সংসদের অধিবেশনে রাষ্ট্রপতির ভাষণের ওপর আনা ধন্যবাদ প্রস্তাবের আলোচনায় অংশ নিয়ে এ আহ্বান জানান কৃষিমন্ত্রী। স্পিকার ড. শিরীন শারমিন চৌধুরী এ সময় সংসদ অধিবেশনের সভাপতিত্ব করেন।

কৃষিমন্ত্রী বলেন, বিএনপিকে বলবো, ষড়যন্ত্রের পথ ছেড়ে গণতান্ত্রিক পথে ফিরে আসার। গণতন্ত্রে তারা বিশ্বাস করে না, যাদের ঘাড়ে এখনও পাকিস্তানের ভূত চেপে আছে, তারা স্বাধীনতায় বিশ্বাস করে না। এই বিএনপি-জামায়াত দেশের উন্নয়ন ও অগ্রগতিকে বাধাগ্রস্ত করতে চায়। নির্বাচনে না এসে আন্দোলনের নামে, অগ্নি-সন্ত্রাসের নামে হাজার হাজার মানুষকে হত্যার পৈশাচিকতার নজির পৃথিবীর কোথাও নেই। এখনও পাকিস্তানের জন্য তাদের প্রাণ কাঁদে। এখনও সময় আছে ধর্মান্ধতা, জঙ্গীবাদ ও অগণতান্ত্রিক রাজনীতি ছেড়ে সহজ পথে আসুন।

আবদুর রাজ্জাক বলেন, মাত্র এক দশকেই সব দিক থেকে এগিয়ে যাচ্ছে বাংলাদেশ। শুধু প্রবৃদ্ধি বৃদ্ধিই নয়, ৪০ ভাগ থেকে দারিদ্র্য ২০ ভাগে কমিয়ে আনতে সক্ষম হয়েছে বর্তমান সরকার।  যেভাবে দেশের উন্নয়ন হচ্ছে, সারা বিশ্বের কাছে তা রীতিমত বিস্ময়। খাদ্য ঘাটতি ও ভিক্ষার ঝুলি নিয়ে চলা বাংলাদেশ আজ খাদ্যে স্বয়ংসম্পূর্ণ। আমরা খাদ্যের জন্য কারও কাছে ভিক্ষার ঝুলি নিয়ে যাই না, বরং আমরা শ্রীলংকাকে খাদ্য সাহায্য দিয়েছি। পুরো বছর এখন সব ধরনের সবজি পাওয়া যায়। পৃথিবীর কোনো দেশ মাত্র ১২ টাকায় সার দিতে পারেনি, যা বর্তমান সরকার দিচ্ছে। অথচ এই সারের জন্য খালেদা জিয়া গুলি চালিয়ে বহু কৃষককে হত্যা করেছে।

এদিন নামোল্লেখ না করে ড. কামাল হোসেনকে ইঙ্গিত করে কৃষিমন্ত্রী আরও বলেন, কোনোদিন নির্বাচন করে উনি জিততে পারেননি। লাত্থি মেরে নাকি সরকার ফেলে দেবেন! এটা রাজনীতির ভাষা নয়। আপনি যাদের ঘাড়ে সওয়ার হয়েছেন তারা (বিএনপি-জামায়াত) ২০১৩ থেকে ২০১৫ সাল পর্যন্ত ভয়াল নাশকতাসহ অনেক কিছু করেছে, কিন্ত পারেনি। রাজনৈতিক কারণে নয়, দুর্নীতির কারণে খালেদা জিয়া কারাবন্দি। প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা গণভবনে বসে দেশ চালাচ্ছেন। আপনাদের পায়ের তলায় মাটি নেই, আপনারা গণবিচ্ছিন্ন।

বাংলাদেশ সময়: ১৯১৯ ঘণ্টা, ফেব্রুয়ারি ১৭, ২০২০
এসকে/এইচজে 

        ইউটিউব সাবস্ক্রাইব করুন  

বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।

Alexa
cache_14 2020-02-17 19:20:40