bangla news

সরকার যাত্রা শিল্পের উন্নয়নে কাজ করছে: প্রতিমন্ত্রী

স্পেশাল করেসপন্ডেন্ট | বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম
আপডেট: ২০২০-০২-০৯ ৮:১৬:৫৫ পিএম
সংসদে সংস্কৃতি বিষয়ক প্রতিমন্ত্রী কেএম খালিদ। ফাইল ফটো

সংসদে সংস্কৃতি বিষয়ক প্রতিমন্ত্রী কেএম খালিদ। ফাইল ফটো

জাতীয় সংসদ ভবন থেকে: আবহমান গ্রাম-বাংলার লোকজ ঐতিহ্য যাত্রা শিল্পের উন্নয়নে সরকার নানা উদ্যোগ নিয়েছে বলে জানিয়েছেন সংস্কৃতি বিষয়ক প্রতিমন্ত্রী কে এম খালিদ। তিনি জানান, বর্তমানে দেশে নিবন্ধিত ১১৭টি যাত্রা দল রয়েছে। 

রোববার (০৯ ফেব্রুয়ারি) জাতীয় সংসদ অধিবেশনে মন্ত্রীদের জন্য প্রশ্নোত্তর পর্বে ওয়ার্কার্স পার্টির সদস্য লুৎফুন নেসা খানের এক প্রশ্নের লিখিত উত্তরে তিনি এ কথা জানান। 

এ সময় স্পিকার ড. শিরীন শারমিন চৌধুরী সভাপতিত্ব করেন। রোববার প্রশ্নোত্তর পর্ব টেবিলে উপস্থাপিত হয়।

প্রতিমন্ত্রী কে এম খালিদ বলেন, বিভিন্ন জেলা ও উপজেলায় সৌখিন যাত্রা দল রয়েছে, যারা বিভিন্ন পূজা-পার্বণ, মেলা ও অন্যান্য অনুষ্ঠানে যাত্রাপালা পরিবেশন করে থাকে। যাত্রা শিল্পের উন্নয়নে সংস্কৃতি বিষয়ক মন্ত্রণালয় ‘যাত্রা ‍শিল্প উন্নয়ন নীতিমালা-২০১২’ প্রণয়ন করা হয়েছে। ইতোমধ্যে শিল্পকলা একাডেমিতে ১১টি যাত্রা উৎসব উদযাপন করা হয়েছে। 

পড়ুন>>মুক্তিযুদ্ধে বিশ্বাসীরাই ক্ষমতায় থাকবে, বিরোধী দলেও 

‘তিনটি যাত্রাদল ও দুইটি বিশ্ববিদ্যালয়কে এক লাখ টাকা করে অনুদান দেওয়া হয়েছে। সেগুলো হলো- দেশ অপেরা, লোক নাট্যগোষ্ঠী, জয়যাত্রা এবং জাহাঙ্গীরনগর বিশ্ববিদ্যালয়ের নাটক ও নাট্যতত্ত্ব বিভাগ ও ময়মনসিংহের জাতীয় কবি কাজী নজরুল ইসলাম বিশ্ববিদ্যালয় থিয়েটার অ্যান্ড পারফরমেন্স স্টাডিজ বিভাগ।’

তিনি বলেন, ২০১৮-১৯ অর্থবছরে ৬৪ জেলায় ৬৪টি দেশীয় যাত্রাপালা নির্মাণ ও প্রদর্শনীর জন্য জেলা শিল্পকলা একাডেমিকে ৫০ হাজার টাকা করে অনুদান দেওয়া হয়েছে।

বাংলাদেশ সময়: ২০১০ ঘণ্টা, ফেব্রুয়ারি ০৯, ২০২০
এসকে/এমএ 

ক্লিক করুন, আরো পড়ুন :   সংসদ অধিবেশন
        ইউটিউব সাবস্ক্রাইব করুন  

বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।

Alexa
cache_14 2020-02-09 20:16:55