bangla news

সীমান্তে হত্যার প্রতিবাদে জাবি ছাত্রের অনশন

স্টাফ করেসপন্ডেন্ট | বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম
আপডেট: ২০২০-০১-২৫ ১০:২২:১৬ পিএম
সীমান্ত হত্যার প্রতিবাদে চার দফা দাবিতে আমরণ অনশনে বসেছেন জাবিছাত্রী আরিফুল ইসলাম। ছবি: সংগৃহীত

সীমান্ত হত্যার প্রতিবাদে চার দফা দাবিতে আমরণ অনশনে বসেছেন জাবিছাত্রী আরিফুল ইসলাম। ছবি: সংগৃহীত

ঢাকা: বাংলাদেশ-ভারত সীমান্তে হত্যার প্রতিবাদে আমরণ অনশন বসেছেন এক বিশ্ববিদ্যালয়শিক্ষার্থী। আরিফুল ইসলাম ওরফে আদীব নামের ওই তরুণ জাহাঙ্গীরনগর বিশ্ববিদ্যালয়ের প্রাণিবিদ্যা বিভাগে স্নাতকোত্তরের (৪৩ ব্যাচ) শিক্ষার্থী।

শনিবার (২৫ জানুয়ারি) বেলা পৌনে তিনটার দিকে চার দফা দাবিতে জাতীয় প্রেসক্লাবের সামনে এই অনশনে বসেন তিনি। আদীবের গ্রামের বাড়ি বরিশাল সদরে।

আদিবের দাবিগুলো হলো- ভারত-বাংলাদেশ সীমান্তে সব হত্যার আন্তর্জাতিক আইনে বিচারপ্রক্রিয়া শুরু করা, ভারতকে সীমান্তে হত্যার জন্য ক্ষমা চেয়ে আর হত্যা না করার প্রতিশ্রুতি দিতে হবে, সীমান্তে হত্যায় ক্ষতিগ্রস্ত সব পরিবারকে তদন্ত সাপেক্ষে দুই দেশের যৌথ ক্ষতিপূরণ দিতে হবে এবং জাতীয় সংসদে সীমান্ত হত্যার প্রতিবাদ করে নিন্দা জানাতে হবে।

আরিফুল ইসলাম সাংবাদিকদের বলেন, গত ২২ ডিসেম্বর ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় কেন্দ্রীয় ছাত্রসংসদে (ডাকসু) হামলার সময় আমিও ভিপি নুরুল হকের সঙ্গে আহত হই। চিকিৎসক আমাকে তিন মাস বিশ্রামে থাকতে বলেছেন। 

‘বিশ্রামের এক মাস শেষ হয়েছে, এখনো পুরোপুরি সুস্থ হইনি। তবে বিবেকের তাড়না ও দেশের প্রতি দায়বদ্ধতায় আমি ফের রাস্তায় নেমেছি।’

তিনি বলেন, ‘আমার এই চার দফা দাবির প্রতি রাষ্ট্রের পক্ষ থেকে সুস্পষ্ট বক্তব্য আসার আগপর্যন্ত অনশন ভাঙব না।’

বাংলাদেশ সময়: ২২১৫ ঘণ্টা, জানুয়ারি ২৫, ২০২০
এমএ

        ইউটিউব সাবস্ক্রাইব করুন  

বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।

Alexa
cache_14 2020-01-25 22:22:16