bangla news

বরিশালে চারলেন সড়কের সঙ্গে হচ্ছে বাইপাস

মুশফিক সৌরভ, স্টাফ করেসপন্ডেন্ট | বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম
আপডেট: ২০২০-০১-২৪ ৮:৫৪:৩২ পিএম
প্রতীকী ছবি

প্রতীকী ছবি

বরিশাল: বরিশাল নগরকে ঘিরে নতুন পরিকল্পনা হাতে নিয়েছে সড়ক ও জনপথ বিভাগ (সওজ)। শুধু নগর কেন্দ্রীক পরিকল্পনাই নয়, সড়কের দীর্ঘস্থায়িত্ব বজায় রাখতে এ পরিকল্পনা নেওয়া হয়েছে বলে জানা গেছে।

পরিকল্পনা অনুসারে, নগরের নথুল্লাবাদ থেকে রুপাতলী পর্যন্ত চারলেন সড়ক নির্মাণ করা হবে। পাশাপাশি গড়িয়ারপাড়-কুদঘাটা-কালিজিরায় তৈরি করা হবে বাইপাস সড়ক। 

সড়ক ও জনপথ বিভাগ জানায়, বরিশাল বিভাগজুড়ে তৃতীয় বৃহৎ সমুদ্র বন্দর পায়রা, আর্ন্তুজাতিক মানের শিপ ইয়ার্ড, পর্যটন কেন্দ্র, তাপবিদ্যুৎ কেন্দ্রসহ শিল্প নগরী গড়ে তোলার কার্যক্রম চলমান রয়েছে। তার ওপর পদ্মা সেতু নির্মাণ হলে বরিশালেন বেসরকারি পর্যায়ে প্রচুর শিল্প-কারখানা গড়ে উঠবে। এ কারণে সরকার ভবিষ্যতের চিন্তা করে এ অঞ্চলের প্রত্যেকটি সড়ক মেরামত এবং প্রশস্তকরণের পরিকল্পনা করেছে। এ পরিকল্পনা অনুযায়ী ইতোমধ্যে কাজ শুরু করেছে সড়ক ও জনপথ (সওজ) বিভাগ।

জানা গেছে, দুটি কারণে বরিশাল নগরের মধ্য থেকে চারলেন এবং গড়িয়ার পাড় থেকে কালিজিরা পর্যন্ত বাইপাস সড়ক নির্মাণের পরিকল্পনা নেওয়া হয়েছে। যার মধ্যে চারলেন সড়ক ব্যবহার করা হবে আঞ্চলিক ও ক্ষুদ্র থেকে মাঝারি আকৃতির যানবাহনের জন্য। আর বাইপাস ব্যবহার করা হবে শিল্প কারখানার কাচামাল বহনকারী এবং ভারী যানবাহন চলাচলের জন্য। এতে করে সড়কের দীর্ঘস্থায়িত্ব যেমন বজায় থাকবে, তেমনি যানজটের কোনো সম্ভাবনা থাকবে না। 

প্রকৌশল বিভাগ বলছে, বরিশাল নগরের ভেতরে থাকা চারলেন সড়কটি নামে মাত্র চারলেন। এ সড়কটির জন্য বেশ কয়েকটি কালভার্ট এবং আমতলার মোড় থেকে রুপাতলী বাসস্ট্যান্ড পর্যন্ত সরু সড়ক প্রধান প্রতিবন্ধকতা। চলতি মাসের শেষের দিকে এ প্রতিবন্ধকতা দূর করতে আমতলা মোড় এলাকা প্রশস্ত করতে সমাজ কল্যাণ অধিদফতরের কাছে জমির চাহিদা প্রস্তাব করা হবে। পাশাপাশি ওই অংশের সড়কের নিজস্ব জমিও উদ্ধার করা হবে। একইসঙ্গে কালভার্টগুলোকে চারলেনের উপযুক্ত করার পরিকল্পনাও রয়েছে সওজের। 

এদিকে সড়ক ও জনপথ বিভাগ সূত্রে জানা গেছে, কাশিপুর থেকে রুপাতলী পর্যন্ত ৯৫৭টি অবৈধ স্থাপনা চিহ্নিত করা হয়েছে। একইসঙ্গে মূল সড়কের পাশে কতটুকু জমি রয়েছে সড়ক ও জনপথ বিভাগের তা নির্ধারণ করে অভিযানে নামারও পরিকল্পনা করেছে। এছাড়া ভুরঘাটা থেকে কাশিপুর এবং রুপাতলী থেকে লেবুখালী পর্যন্ত সড়কে অবৈধ স্থাপনা সনাক্তের কাজও এগিয়ে চলছে। 

জানা গেছে, চারলেন ব্যবহার উপযোগী করার পাশাপাশি জুন মাসের মাঝামাঝি সময়ে বাইপাস সড়ক নির্মাণে হাত দেবে সড়ক ও জনপথ বিভাগ। এ নিয়ে ইতোমধ্যে স্থানীয় সুধীজন ও সম্ভাব্য বিভিন্ন দফতরের সাথে বৈঠক করা হয়েছে।

বরিশাল সড়ক বিভাগের নির্বাহী প্রকৌশলী মাসুদ খান জানান,এখন দুটি ভাগে কাজ শুরু হয়েছে। প্রথমত যেসব সড়ক রয়েছে তাতে আর্ন্তজাতিক নিয়ম মেনে সংস্কার করার। এ কাজের অংশ হিসেবে সাত থেকে ১০ দিনের মধ্যে ভুরঘাটা থেকে লেবুখালী মহাসড়কের মোট ১০টি স্পিড ব্রেকার উচ্ছেদ করা হবে। কারণ মহাসড়কে স্পিড ব্রেকার রাখার কোনো নিয়ম নেই। এর পরপরই হাত দেওয়া হবে অবৈধ স্থাপনা উচ্ছেদের কাজে।

অপরদিকে চারলেন ও বাইপাস নির্মাণের জন্য সম্ভাব্য সবকিছু করা হয়েছে। বাইপাসের জন্য ডিপিপি দাখিল করা হচ্ছে বলে জানান তিনি।

উল্লেখ্য, কাশিপুর থেকে নথুল্লাবাদ হয়ে সিএন্ডবি রোড থেকে রুপাতলী পর্যন্ত সড়কটি চারলেন মহাসড়কে উন্নীত করার পরিকল্পনা নেওয়া হলে এ সড়কের দু’পাশের বাসিন্দারা প্রতিবাদ জানায়। এমনকি সিএন্ডবি রোডকে চারলেনে উন্নীত না করার জন্য এবং নিজেদের ভবন ও জমি রক্ষার জন্য বরিশাল শহর বাইপাস সড়ক বাস্তবায়ন কমিটিও গঠন করে কর্মসূচিও পালন করে স্থানীয়রা। অপরদিকে শহরের মধ্য থেকে চারলেনের বিরোধিতা করে বরিশাল নগর উন্নয়ন অধিদপ্তর। এতে পুরো বিষয়টি পুনরায় বিবেচনায় নেয় সড়ক ও জনপথ বিভাগ। 

বাংলাদেশ সময়: ২০৫৩ ঘণ্টা, জানুয়ারি ২৪, ২০২০
এমএস/এবি

ক্লিক করুন, আরো পড়ুন :   বরিশাল
        ইউটিউব সাবস্ক্রাইব করুন  

বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।

Alexa
cache_14 2020-01-24 20:54:32