bangla news

মৌলভীবাজার-চাতলাপুর সড়কের বেহাল দশা

ডিভিশনাল সিনিয়র করেসপন্ডেন্ট | বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম
আপডেট: ২০২০-০১-২০ ৭:৪৫:০০ এএম
খানাখন্দে ভরা মৌলভীবাজারের সড়ক। ছবি: বাংলানিউজ

খানাখন্দে ভরা মৌলভীবাজারের সড়ক। ছবি: বাংলানিউজ

মৌলভীবাজার: বিগত তিন বছর ধরে খানাখন্দে ভরে আছে মৌলভীবাজার-সমশের নগর-চাতলাপুর সড়ক। এ সড়কটি রীতিমতো যানবাহন চলাচলের অনুপযুক্ত। 

রোববার (১৯ জানুয়ারি) সরেজমিনে গিয়ে দেখা যায়, সিএনজি অটোরিকশা, ইজিবাইক, ট্রাক, বাসসহ সব যানবাহনও ঝুঁকি নিয়ে চলাচল করছে এ সড়কে। রাস্তার বিভিন্ন জায়গায় বড় বড় গর্ত থাকায় খুব সাবধানে আস্তে আস্তে গাড়ি চলছে।

সড়কের এ বেহাল দশা নিয়ে জানতে চাইলে স্থানীয় মিনহাজুর ইসলাম ক্ষোভের সঙ্গে বলেন, ভাই, কতো রাস্তাই তো ঠিক হয়, কিন্তু আমাদের এ রাস্তাটা ঠিক হচ্ছে না কেন, বলতে পারেন? ৩ বছর ধরে এভাবেই পড়ে আছে। 

এই সড়ক দিয়ে প্রতিদিন যাতায়াত করেন মো. ফালাকুল ইসলাম। তিনি বলেন, সড়কটি এ এলাকার মানুষের জন্য খুবই গুরুত্বপূর্ণ। সড়কের পাশেই আছে মৌলভীবাজার বিএনএসবি চক্ষু হাসপাতাল। এখানে প্রতিদিন কতো রোগী আসে, অপারেশনের রোগীও আসে, কিন্তু এই রাস্তা দিয়ে মারাত্মক বিপদ নিয়ে চলাচল করতে হয় তাদের। 
 
‘প্রচণ্ড ঝাঁকুনিতে খেতে খেতে এই সড়কে যান চলাচল করে। যারীদের দুর্ভোগের শেষ নেই। এই সড়কে একটি হাসপাতাল ছাড়াও জেলা পাসপোর্ট অফিস আছে।’ 
 
জেলা নির্বাহী প্রকৌশলী অফিস সূত্রে জানা যায়, এ সড়কের দৈর্ঘ্য প্রায় ৩৩.৫ কিলোমিটার। গত বছরের নভেম্বর থেকে ঠিকাদারের তত্ত্বাবধানে সংস্কার কাজ শুরু হয়েছে। শেষ হবে চলতি বছরের আগস্ট মাসে। মাটি খোদাই করে পাকা বালির মিশ্রণে আগের চেয়ে উন্নত সড়ক নির্মাণ করা হবে বলে জানায় কর্তৃপক্ষ। 
 
মৌলভীবাজার সড়ক ও জনপদ বিভাগের (সওজ) নির্বাহী প্রকৌশলী শাহরিয়ার আলমও একই কথা জানান। বাংলানিউজকে তিনি বলেন, এ সড়কের কাজ ইতোমধ্যেই শুরু হয়ে গেছে। আগামী আগস্ট মাসে শেষ হবে। প্রথম পর্যায়ে ২০ কিলোমিটার সড়ক নতুন করে পাকা করা হবে। পরবর্তীতে বিভিন্ন পর্যায়ে অবশিষ্ট ১৩ কিলোমিটার পাকা করার কাজ শুরু হবে। এই অংশে বাজার-হাট থাকার ফলে প্রথম পর্যায়ের সঙ্গে অন্তর্ভূক্ত করা যাচ্ছে না। জনগুরুত্বপূর্ণ এ সড়কের নির্মাণ খরচ ধরা হয়েছে ৪২ কোটি টাকা। 

বাংলাদেশ সময়: ০৭৪৪ ঘণ্টা, জানুয়ারি ২০, ২০২০
বিবিবি/এইচজে

        ইউটিউব সাবস্ক্রাইব করুন  

বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।

Alexa
cache_14 2020-01-20 07:45:00