bangla news

বিজিএমইএর আশ্বাসে সড়ক ছাড়লেন শ্রমিকরা

স্টাফ করেসপন্ডেন্ট | বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম
আপডেট: ২০২০-০১-১৬ ১:২১:৫৫ পিএম
বেতন-ভাতা পরিশোধের দাবিতে সড়কে অবস্থান নিয়ে বিক্ষোভ করেন তৈরি পোশাক শ্রমিকেরা। ছবি: জি এম মুজিবুর

বেতন-ভাতা পরিশোধের দাবিতে সড়কে অবস্থান নিয়ে বিক্ষোভ করেন তৈরি পোশাক শ্রমিকেরা। ছবি: জি এম মুজিবুর

ঢাকা: বিজিএমইএর আশ্বাসে প্রায় দুই ঘণ্টা পর রাজধানীর শ্যামলী সড়ক অবরোধ প্রত্যাহার করে নিয়েছেন পোশাক শ্রমিকরা।

বৃহস্পতিবার (১৬ জানুয়ারি) দুপুর সোয়া ১২টার দিকে শ্রমিকরা সড়ক থেকে সরে গেলে যান চলাচল শুরু হয়। এদিকে সড়কে যান চলাচল স্বাভাবিক করতে কাজ করছে পুলিশ।

এর আগে সকাল ১০টার দিকে বকেয়া বেতন-ভাতা ও নতুন বছরের ইনক্রিমেন্ট ও ছুটি বাবদ টাকার দাবিতে শ্যামলীর সড়ক অবরোধ করেন ডায়নামিক ফ্যাশন নামে একটি তৈরি পোশাক কারখানার শ্রমিকরা। কল্যাণপুর ও শ্যামলীর মাঝামাঝি সড়কে শ্রমিকদের অবস্থানের কারণে সড়কের দুই লেনেই যান চলাচল বন্ধ হয়ে যায়।

শ্রমিকরা জানান, প্রতিষ্ঠানে তাদের তিন মাসের বেতন বাকি। নতুন বছরে ইনক্রিমেন্টও দেয়া হচ্ছে না। বকেয়ার দাবি জানালেই ছাঁটাইয়ের হুমকি দেয়া হচ্ছে। এ বিষয়ে মালিকের সঙ্গে বসতে চাইলেও মালিক রাজি হননি। উল্টো ডিসেম্বর মাসের বেতনও আটকে দিয়েছেন। এর ফলে বাধ্য হয়ে তারা সড়কে নেমেছেন।

এর পরিপ্রেক্ষিতে দুপুর পৌনে ১২টার দিকে বাংলাদেশ তৈরি পোশাক প্রস্তুত ও রফতানিকারক সমিতির (বিজিএমইএ) একটি প্রতিনিধিদল ঘটনাস্থলে উপস্থিত হয়। তারা শ্রমিকদের দাবি-দাওয়া পূরণের আশ্বাস দিলেও শ্রমিকরা বিক্ষোভ করতে থাকেন।

পরে দুপুর ২টার মধ্যে শ্রমিক প্রতিনিধিদলকে সঙ্গে নিয়ে মালিক সংগঠন ও গার্মেন্টস মালিক কর্তৃপক্ষের সঙ্গে বৈঠকের ঘোষণা এবং দাবি-দাওয়া পূরণের আশ্বাসে সড়ক ছেড়ে দেন শ্রমিকরা। এর ফলে দুপুর সোয়া ১২টার দিকে সড়কে যান চলাচল শুরু হয়েছে।

ডিএমপির তেজগাঁও বিভাগের এডিসি ওয়াহিদুজ্জামান বাংলানিউজকে জানান, গার্মেন্টস শ্রমিকরা সড়কে অবস্থান নেবার পরই অতিরিক্ত পুলিশ মোতায়েন করা হয়। অপ্রীতিকর কিছু যাতে না ঘটে সেজন্য দ্রুত বিজিএমইএ কর্তৃপক্ষকে জানানো হলে তাদের প্রতিনিধিদল শ্রমিক কারখানার দুই মালিকের সঙ্গে কথা বলেন। দুপুরে উভয়পক্ষের বৈঠক হবে এমন আশ্বাসে সড়ক ছেড়ে দেন শ্রমিকরা। এখন যান চলাচল স্বাভাবিক রয়েছে।

** শ্যামলীতে পোশাক শ্রমিকদের সড়ক অবরোধ, দীর্ঘ যানজট

বাংলাদেশ সময়: ১৩১৬ ঘণ্টা, জানুয়ারি ১৬, ২০২০
পিএম/আরবি/

        ইউটিউব সাবস্ক্রাইব করুন  

বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।

Alexa
cache_14 2020-01-16 13:21:55