bangla news

পাহাড়ের শান্তির জন্যই শান্তি চুক্তি: বীর বাহাদূর

ডিস্ট্রিক্ট করেসপন্ডেন্ট | বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম
আপডেট: ২০২০-০১-১৫ ৭:৩২:০৯ পিএম
অ্যাডভেঞ্চারার হাতে পুরস্কার তুলে দিচ্ছেন বীর বাহাদূর উশৈ সিং। ছবি: বাংলানিউজ

অ্যাডভেঞ্চারার হাতে পুরস্কার তুলে দিচ্ছেন বীর বাহাদূর উশৈ সিং। ছবি: বাংলানিউজ

রাঙামাটি: পার্বত্য চট্টগ্রাম বিষয়কমন্ত্রী বীর বাহাদূর উশৈ সিং বলেছেন, ‘পাহাড়ের শান্তির জন্যই শান্তি চুক্তি’। শান্তি থাকলে উন্নয়ন তরান্বিত হবে। সরকার পার্বত্য চট্টগ্রামের উন্নয়নের জন্য ১০ হাজার কোটি টাকা বরাদ্দ দিয়েছে।

বুধবার (১৫ জানুয়ারি) বিকেলে পার্বত্য চট্টগ্রাম উন্নয়ন বোর্ডের আয়োজনে মাইনী মিলনায়তনে অনুষ্ঠিত বঙ্গবন্ধু জাতীয় অ্যাডভেঞ্চার ২০২০-এর সমাপনী অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথির বক্তব্যে তিনি একথা বলেন।

মন্ত্রী বলেন, সমতলের উন্নয়নের ধারার সঙ্গে পাহাড়কে সম্পৃক্ত করতে হবে। সম্প্রীতি ও শান্তি-শৃঙ্খলা নিশ্চিত হলে পার্বত্য চট্টগ্রাম সমৃদ্ধশালী হবে। পার্বত্যাঞ্চলের আইন-শৃঙ্খলা পরিস্থিতি উন্নত হলে সরকারের কাছে উন্নয়ন বরাদ্দ কোনো বিষয় নয়। কারণ শেখ হাসিনা পাহাড়ের উন্নয়নে অনেক বেশি আন্তরিক। পাহাড় নিয়ে বঙ্গবন্ধু যে স্বপ্ন দেখেছেন প্রধানমন্ত্রী সে স্বপ্ন বাস্তবায়ন করছেন।

অ্যাডভেঞ্চারে অংশ নেওয়া অ্যাডভেঞ্চারদের উদ্দেশ্যে মন্ত্রী জানান, তোমরা পার্বত্য চট্টগ্রামকে সারাবিশ্বের কাছে তুলে ধরবে। কারণ তরুণরা বঙ্গবন্ধুর স্বপ্নের সোনার বাংলাদেশ গড়ে তুলবে।

পার্বত্য চট্টগ্রাম উন্নয়ন বোর্ডের চেয়ারম্যান নব বিক্রম কিশোর ত্রিপুরার সভাপতিত্বে বিশেষ অতিথি ছিলেন- পার্বত্য মন্ত্রাণালয় সচিব মেজবাউল ইসলাম চৌধুরী, ভারতীয় জাতীয় অ্যাডভেঞ্চার ক্লাবের প্রতিষ্ঠাতা সভাপতি রাম সিং বর্মা, বঙ্গবন্ধু জাতীয় অ্যাডভেঞ্চারের উপদেষ্টা লে. জেনারেল (অবসরপ্রাপ্ত) এটিএম জহিরুল আলম, রাঙামাটি রিজিয়নের ব্রিগেডিয়ার জেনারেল মাইনুর রহমান।

এছাড়া অ্যাডভেঞ্চারের সঙ্গে সংশ্লিষ্ট ঊর্ধ্বতন কর্মকর্তাসহ বাংলাদেশ, ফ্রান্স, ভারত, এবং নেপালের সর্বমোট ৮১ জন বিভিন্ন ক্যাটাগরির অ্যাডভেঞ্চারার উপস্থিত ছিলেন।

আলোচনাসভা পরবর্তী অ্যাডভেঞ্চারে অংশগ্রহণকারীদের মধ্যে সনদ ও পুরস্কার বিতরণ করা হয়। একই দিন সন্ধ্যায় কাপ্তাই হ্রদে আতশবাজি উৎসব করা হবে বলে সংশ্লিষ্টরা জানান।

বাংলাদেশ সময়: ১৯২৮ ঘণ্টা, জানুয়ারি ১৫, ২০২০
আরএ

ক্লিক করুন, আরো পড়ুন :   রাঙামাটি
        ইউটিউব সাবস্ক্রাইব করুন  

বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।

Alexa
cache_14 2020-01-15 19:32:09