bangla news

মাদার নদী থেকে বনবিভাগের নৌচালকের মরদেহ উদ্ধার

ডিস্ট্রিক্ট করেসপন্ডেন্ট | বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম
আপডেট: ২০২০-০১-১৪ ১১:০১:১০ এএম
মরদেহ উদ্ধার। ছবি: বাংলানিউজ

মরদেহ উদ্ধার। ছবি: বাংলানিউজ

সাতক্ষীরা: সুন্দরবন সংলগ্ন মাদার নদী থেকে বনবিভাগের কৈখালী স্টেশনের নৌযান চালক নবাব আলী গাজীর (৬৫) মরদেহ উদ্ধার করেছে পুলিশ।

সোমবার (১৩ জানুয়ারি) রাত ১১টার দিকে স্থানীয়দের দেওয়া খবরের ভিত্তিতে সাতক্ষীরার শ্যামনগর উপজেলার ভেটখালী এলাকার কোস্টগার্ড অফিসের সামনের পন্টুনে আটকে থাকা তার মরদেহ উদ্ধার করা হয়।

নবাব আলী দীর্ঘদিন ধরে পশ্চিম বনবিভাগের সাতক্ষীরা রেঞ্জের কৈখালী স্টেশনে নৌযান চালকের কাজ করছিলেন।

নিহতের ছেলে কাছিকাটা টহলফাঁড়ির নৌযান চালক রফিকুল ইসলাম জানান, রোববার রাত ৮টার দিকে বাবার সঙ্গে তার মোবাইলে কথা হয়। পরবর্তীতে রাত ৯টার দিকে তিনি স্টেশন অফিস থেকে বাড়িতে ফিরে শুয়ে পড়েন। একপর্যায়ে রাত ১০টার দিকে তার বাবাকে (নবাব আলী) মোবাইলে কল দিয়ে কেউ ডেকে নেয়। এসময় তিনি বাড়ির পাশের স্টেশনে যাওয়ার কথা বলে বাড়ি থেকে বেরিয়ে যান।

রফিকুল ইসলাম আরও জানান, অফিসে যাওয়ার কথা বলে বের হওয়ায় বনের মধ্যে টহলে আছে ভেবে সোমবার দুপুর পর্যন্ত তারা নবাব আলীর খোঁজ খবর নেননি। কিন্তু দুপুর দুইটার দিকে কৈখালী স্টেশন থেকে ডাকতে আসার পর তারা নবাব আলীকে খুঁজতে থাকেন।

স্থানীয় ইউপি সদস্য আব্দুল হামিদ লাল্টু জানান, রাতে কোস্টগার্ড তাকে খবর দিলে তিনি কয়েকজনকে সঙ্গে নিয়ে পন্টুনে আটকে থাকা অবস্থায় নবাব আলীর মরদেহ দেখে শ্যামনগর থানা পুলিশকে অবহিত করেন।

শ্যামনগর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) নাজমুল হুদা ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করে বলেন, পুলিশ নবাব আলীর মরদেহ উদ্ধার করেছে। ময়না-তদন্তের জন্য মরদেহ হাসপাতাল মর্গে পাঠানোর প্রস্তুতি নেওয়া হচ্ছে। 

বাংলাদেশ সময়: ১০৫৭ ঘণ্টা, জানুয়ারি ১৪, ২০২০
আরএ

ক্লিক করুন, আরো পড়ুন :   সাতক্ষীরা
        ইউটিউব সাবস্ক্রাইব করুন  

বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।

Alexa
cache_14 2020-01-14 11:01:10