bangla news

৫ দিন পর নিখোঁজ অপর প্রকৌশলীর মরদেহ উদ্ধার

ডিস্ট্রিক্ট করেসপন্ডেন্ট | বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম
আপডেট: ২০২০-০১-১১ ৮:২৬:৪৫ পিএম
লিখন সরকার

লিখন সরকার

মুন্সিগঞ্জ: নারায়ণগঞ্জের ফতুল্লায় বুড়িগঙ্গা নদী থেকে নিখোঁজ হওয়ার পাঁচদিন পর বাংলা ক্যাট কোম্পানির আরেক এক প্রকৌশলী লিখন সরকারের (৩৫) মরদেহ উদ্ধার করেছে পুলিশ। এ নিয়ে নিখোঁজ দুই প্রকৌশলীরই মরদেহ উদ্ধার করা হলো।

শনিবার (১১ জানুয়ারি) বিকেলে মুন্সিগঞ্জ সদর উপজেলার চর সন্তোষপুর এলাকা থেকে মরদেহটি উদ্ধার করা হয়। লিখন রাজবাড়ীর বালিয়াকান্দি থানার বেতেঙ্গা গ্রামের রনজিদ সরকারের ছেলে। 

এর আগে শুক্রবার (১০ জানুয়ারি) দুপুরে সিরাজদিখানের পুরান ভাষানচর গ্রাম সংলগ্ন ধলেশ্বরী নদী থেকে আরেক নিখোঁজ প্রকৌশলী মেহেদি হাসান জিসানের (৩৫) মরদেহ উদ্ধার করা হয়। তিনি রাজশাহী জেলার বোয়ালিয়া থানার গোরহাঙ্গা গ্রামের মোখলেছুর রহমানের ছেলে।

মুন্সিগঞ্জ সদর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি, তদন্ত) গাজী সালাউদ্দিন বাংলানিউজকে জানান, স্থানীয়দের মাধ্যমে খবর পেয়ে বিকেলে বুড়িগঙ্গা নদীর ওই এলাকা থেকে নিখোঁজ লিখনের মরদেহ উদ্ধার করে মুন্সিগঞ্জ জেনারেল হাসপাতাল মর্গে পাঠানো হয়েছে। লিখনের ভাই লিটু সরকার মরদেহটি শনাক্ত করেছেন। 

গত ৫ জানুয়ারি দিনগত রাতে ফতুল্লার রাজাপুর এলাকায় ‘বুড়িগঙ্গা এন্টারপ্রাইজ’ নামে একটি প্রতিষ্ঠানের নির্মাণসামগ্রী মেরামতের কাজ শেষে ফেরার পথে নিখোঁজ হন বাংলা ক্যাট কোম্পানিতে কর্মরত দুই মেকানিক্যাল জিসান ও লিখন। এ ঘটনায় জিসানের স্ত্রী রাকিয়া সুলতানা বাদী হয়ে ঢাকার আশুলিয়া থানায় একটি সাধারণ ডায়েরি (জিডি) করেন।

তবে, শুরু থেকেই জিসানের স্বজনরা, ঘটনায় বুড়িগঙ্গা এন্টারপ্রাইজের স্বত্ত্বাধিকারী সজীব ও তার কর্মচারী পায়েলকে দায়ী করে আসছেন।

** ধলেশ্বরী নদী থেকে নিখোঁজ প্রকৌশলীর মরদেহ উদ্ধার

বাংলাদেশ সময়: ২০২৫ ঘণ্টা, জানুয়ারি ১১,  ২০২০
এসআরএস

ক্লিক করুন, আরো পড়ুন :   মুন্সিগঞ্জ
        ইউটিউব সাবস্ক্রাইব করুন  

বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।

Alexa
cache_14 2020-01-11 20:26:45