bangla news

অনশনরত শ্রমিকের মৃত্যুর দায় রাষ্ট্রকেই নিতে হবে

স্টাফ করেসপন্ডেন্ট | বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম
আপডেট: ২০১৯-১২-১৪ ৭:৩৫:২০ পিএম
সংহতি সমাবেশ। ছবি: বংলানিউজ

সংহতি সমাবেশ। ছবি: বংলানিউজ

বরিশাল: রানীগঞ্জে প্লাস্টিক কারখানায় আগুনে পুড়ে নিহতদের ক্ষতিপূরণ, দোষীদের গ্রেপ্তার ও অবিলম্বে পাটকল শ্রমিকদের বকেয়া মজুরি পরিশোধসহ ১১ দফা মেনে নেওয়ার আহ্বান জানিয়ে সংহতি সমাবেশ করেছে বাংলাদেশ ছাত্র ফেডারেশন বরিশাল জেলা শাখা।

শনিবার (১৪ ডিসেম্বর) বেলা ১১টায় বরিশাল নগরের অশ্বিনী কুমার হল চত্বরে এ সমাবেশের আয়োজন করা হয়।

সমাবেশে বক্তারা বলেন, অনশনের ৩য় দিনে বৃহস্পতিবার (১২ ডিসেম্বর) খুলনা মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালে আব্দুস সত্তারের মৃত্যু হয়। এটা স্বাভাবিক মৃত্যু নয়। মানবতাকে গলা টিপে হত্যা করার শামিল। দেশের অর্থনীতির প্রধান চালিকাশক্তি শ্রমিকদের যখন এই পরিস্থিতি তখন সচেতন নাগরিক হিসেবে আমরা চুপ করে থাকতে পারি না। এ মৃত্যুর দায় রাষ্ট্রকেই নিতে হবে।

বাংলাদেশ ছাত্র ফেডারেশন বরিশাল জেলার অন্যতম সদস্য সফিকুল ইসলাম সাফিনের সঞ্চালনায় সংহতি সমাবেশে সভাপতিত্ব করেন বরিশাল জেলা শাখার আহ্বায়ক নবীন আহমেদ।

সমাবেশে সংহতি জানিয়ে বক্তব্য রাখেন গণসংহতি আন্দোলন বরিশাল জেলার আহ্বায়ক দেওয়ান আব্দুর রশীদ নীলু, বাংলাদেশের ইউনাইটেড কমিউনিস্ট লীগ জেলা সম্পাদক অধ্যাপক জলিলুর রহমান, গণফোরাম বরিশাল জেলার সভাপতি হিরন কুমার দাশ মিঠু, বাসদ বরিশাল জেলা সদস্য সচিব মনীষা চক্রবর্তী, বাংলাদেশ ইমারত নির্মাণ শ্রমিক ইউনিয়নের সাবেক সাধারণ সম্পাদক আব্দুর রাজ্জাক সিকদার এবং বাংলাদেশ বহুমুখী শ্রমজীবীও হকার সমিতি- বরিশাল জেলা আহ্বায়ক আরিফুর রহমান মিরাজ প্রমুখ।

বাংলাদেশ সময়: ১৯৩৪ ঘণ্টা, ডিসেম্বর ১৪, ২০১৯
এমএস/এইচএডি/

ক্লিক করুন, আরো পড়ুন :   বরিশাল
        ইউটিউব সাবস্ক্রাইব করুন  

বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।

Alexa
cache_14 2019-12-14 19:35:20