ঢাকা, শনিবার, ৩ আশ্বিন ১৪২৭, ১৯ সেপ্টেম্বর ২০২০, ০০ সফর ১৪৪২

জাতীয়

না’গঞ্জে আড়াই কোটি টাকার অবৈধ বন্ডেড সুতা জব্দ

স্টাফ করেসপন্ডেন্ট | বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম
আপডেট: ২৩২৬ ঘণ্টা, ডিসেম্বর ১৪, ২০১৯
না’গঞ্জে আড়াই কোটি টাকার অবৈধ বন্ডেড সুতা জব্দ নারায়ণগঞ্জে ঢাকা কাস্টমস বন্ড কমিশনারেটের অভিযান। ছবি: বাংলানিউজ

ঢাকা: নারায়ণগঞ্জের সুতারপাড়া এলাকার একটি ভবনের গুদাম থেকে আড়াই কোটি টাকা মূল্যের অবৈধ বন্ডেড সুবিধায় আনায় সুতা জব্দ করেছে কাস্টমস বন্ড কমিশনারেটের একটি স্পেশাল প্রিভেন্টিভ টিম। আটক পণ্যের বিপরীতে প্রযোজ্য শুল্ক-করাদির পরিমাণ প্রায় এক কোটি টাকা। 

শনিবার (১৪ ডিসেম্বর) নারায়ণগঞ্জ শহরের বংশাল রোডে (সুতারপাড়া এলাকা) ঝটিকা অভিযান চালিয়ে এসব সুতা জব্দ করা হয়। অভিযানে নেতৃত্ব দেন কাস্টমস বন্ডের উপ-কমিশনার রেজভী আহম্মেদ, সহকারী কমিশনার মো. আল আমিন ও সহকারী কমিশনার আকতার হোসেনের সম্মিলিত টিম।

নারায়ণগঞ্জ ভ্যাট বিভাগ, সিআইডি ও নারায়ণগঞ্জ সদর থানা পুলিশ এ অভিযানে সহায়তা করে।

সহকারী কমিশনার (প্রিভেন্টিভ) মো. আল আমিন বাংলানিউজকে বলেন, গোপন সংবাদের ভিত্তিতে এ অভিযান পরিচালনা করা হয়। বিষয়টি টের পেয়ে শুরুতেই গুদাম মালিকরা পালিয়ে যায় এবং পরে সংগঠিত হয়ে বিভিন্ন অ্যাসোসিয়েশনের ব্যানারে অভিযান প্রতিহত করার চেষ্টা করে। স্থানীয় পুলিশের সহায়তায় পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে আনা হয়।

তিনি বলেন, অভিযানে সুতারপাড়া এলাকার একটি ভবনের গোপন গুদাম থেকে কোরিয়ান ও ভারতীয় বিভিন্ন ব্র্যান্ডের প্রায় ২২ টন স্প্যান্ডেক্স ও পলিয়েস্টার-কটন সুতা উদ্ধার করা হয়। এসব পণ্য বন্ড সুবিধার আওতায় শুল্কমুক্ত আমদানি করে রপ্তানিতে ব্যবহারের পরিবর্তে অবৈধভাবে খোলাবাজারে বিক্রি করা হয়েছে। জব্দ পণ্যের বাজার মূল্য প্রায় আড়াই কোটি টাকা, যার বিপরীতে প্রযোজ্য শুল্ক-করাদির পরিমাণ প্রায় এক কোটি টাকা। এ বিষয়ে আইনগত ব্যবস্থা নেওয়া হচ্ছে।

অভিযানে উদ্ধার বিপুল পরিমাণ সুতা।  ছবি: বাংলানিউজ

অভিযানে নেতৃত্ব দেওয়া ঢাকা কাস্টমস বন্ড কমিশনারেটের কমিশনার এস এম হুমায়ুন কবির বলেন, দেশের যে প্রান্তেই অবৈধ বন্ডেড পণ্য পাওয়া যাবে, তাৎক্ষণিক তা জব্দ ও মূলহোতাদের চিহ্নিত করে আইনের আওতায় আনা হবে। জাতীয় রাজস্ব বোর্ডের চেয়ারম্যান মো. মোশাররফ হোসেন ভূঁইয়া, এনডিসির নির্দেশনায় এ ধরনের অভিযান অব্যাহত থাকবে।

উল্লেখ্য, জাতীয় রাজস্ব বোর্ড গঠিত টাস্কফোর্স গত ১৩ নভেম্বর সিরাজগঞ্জের বেলকুচিতে অভিযান চালিয়ে দু’টি গুদাম থেকে মোট ৩৮ টন এবং গত ৮ ডিসেম্বর নারায়ণগঞ্জের টানবাজারে অভিযান চালিয়ে মোট ১০ টন অবৈধ বন্ডেড সুতা আটক করে। অবৈধ বন্ডেড ও চোরাই বিদেশি সুতার বিরুদ্ধে ধারাবাহিক অভিযানের ফলে সন্তুষ্টি প্রকাশ করছেন দেশীয় টেক্সটাইল-স্পিনিং শিল্প মালিক, বিটিএমএ ও সৎ ব্যবসায়ীরা। অভিযানে একদিকে যেমন অবৈধ বিদেশি সুতার ব্যবসা বন্ধ হচ্ছে, অন্যদিকে দেশীয় শিল্পের বাজার ক্রমাগত সুসংহত হচ্ছে বলে মত তাদের।

বাংলাদেশ সময়: ১৯২০ ঘণ্টা, ডিসেম্বর ১৪, ২০১৯
জিসিজি/একে

বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।
Alexa