bangla news

মতিঝিল মডেল স্কুলের গভর্নিং বডির সভাপতিকে অপসারণের দাবি

সিনিয়র করেসপন্ডেন্ট | বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম
আপডেট: ২০১৯-১২-০৯ ৩:১২:৪৮ পিএম
মানববন্ধন, ছবি: জিএম মুজিবুর

মানববন্ধন, ছবি: জিএম মুজিবুর

ঢাকা: রাজধানীর মতিঝিল মডেল স্কুল অ্যান্ড কলেজের গভর্নিং বডির সভাপতি আওলাদ হোসেনের অপসারণের দাবিতে মানববন্ধন করেছেন প্রতিষ্ঠানটির শিক্ষক-কর্মচারীরা।

সোমবার (৯ ডিসেম্বর) জাতীয় প্রেসক্লাবের সামনে এ মানববন্ধন কর্মসূচি পালন করেন তারা।

মানববন্ধনে লিখিত বক্তব্যে বলা হয়, মতিঝিল মডেল স্কুল অ্যান্ড কলেজের গভর্নিং বডির সভাপতি আওলাদ হোসেন দীর্ঘদিন ধরে প্রতিষ্ঠানের সঙ্গে জড়িত। তার দুর্নীতি, অত্যাচার ও তার স্বেচ্ছাচারিতা আমাদের অতিষ্ঠ করে তুলেছেন। শিক্ষক নির্যাতন আওলাদ হোসেনের প্রতিদিনের ঘটনা। এছাড়াও আওলাদ হোসেন প্রতিষ্ঠানের কোটি কোটি টাকা আত্মসাৎ করে যাচ্ছেন, ফলে ফান্ড শূন্যের দিকে। দুর্নীতিবাজ আওলাদ হোসেনকে না সরানো হলে অনশনসহ কঠোর কর্মসূচি ঘোষণা করা হবে বলে জানানো হয়।

মানববন্ধনে প্রতিষ্ঠানটির শিক্ষিকা সেলিনা আক্তার জাহান বলেন, ঐতিহ্যবাহী এই শিক্ষা-প্রতিষ্ঠানকে ধ্বংসের দিকে নিয়ে যাচ্ছেন দুর্নীতিবাজ আওলাদ হোসেন। নিয়মিত নিয়োগ বাণিজ্যের মাধ্যমে কোটি কোটি টাকার সম্পদের মালিক হয়েছেন তিনি। তার অত্যাচার থেকে আমরা মুক্তি চাই।

জানা গেছে, আওলাদ হোসেন ঢাকা মহানগর দক্ষিণ আওয়ামী লীগের সদ্য বিদায়ী কমিটির সহ সভাপতি। আগের কমিটিতেও তিনি যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক ছিলেন। প্রায় ১১ বছর ধরে তিনি মতিঝিল মডেল স্কুল অ্যান্ড কলেজের গভর্নিং বডির সভাপতির দায়িত্বে রয়েছেন।

তবে, আওলাদ হোসেন তার বিরুদ্ধে আনা অভিযোগ অস্বীকার করে বলেন, কোচিং ব্যবসা বন্ধ করে দেওয়ার পর থেকে শিক্ষকদের একটি অংশ আমার পেছনে লেগেছে।

ওই কলেজের গভর্নিং বডির সাবেক সদস্য জাকির হোসেন বলেন, নিয়মনীতি উপেক্ষা করে ১১ বছর ধরে আওলাদ হোসেন এই প্রতিষ্ঠানের সভাপতির দায়িত্ব পালন করছেন। প্রতিষ্ঠানের ফান্ড ৭০-৮০ কোটি টাকা থাকার কথা ছিল সেখানে আছে মাত্র ৩৫ কোটি টাকা। তাই প্রতিষ্ঠানটিকে ধ্বংসের হাত থেকে বাঁচাতে আওলাদ হোসেনকে সভাপতি পদ থেকে সারা দিতে হবে, এর কোনো বিকল্প নেই।

বাংলাদেশ সময়: ১৫০৮ ঘণ্টা, ডিসেম্বর ৯, ২০১৯
এসই/এএটি

ক্লিক করুন, আরো পড়ুন :   দুর্নীতি মানববন্ধন
        ইউটিউব সাবস্ক্রাইব করুন  

বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।

Alexa
cache_14 2019-12-09 15:12:48