ঢাকা, শনিবার, ১১ আশ্বিন ১৪২৭, ২৬ সেপ্টেম্বর ২০২০, ০৭ সফর ১৪৪২

জাতীয়

৮ ডিসেম্বর রামগড়ে উড়েছিল স্বাধীন বাংলাদেশের পতাকা

অপু দত্ত, স্টাফ করেসপন্ডেন্ট | বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম
আপডেট: ২০২১ ঘণ্টা, ডিসেম্বর ৮, ২০১৯
৮ ডিসেম্বর রামগড়ে উড়েছিল স্বাধীন বাংলাদেশের পতাকা ছবি: প্রতীকী

খাগড়াছড়ি: ১৯৭১ সালের ৮ ডিসেম্বর মুক্তিযুদ্ধের সেক্টর এক নম্বরের হেড কোর্য়াটার, সাবেক মহকুমা রামগড়ের মাটিতে উড়ানো হয় স্বাধীন বাংলাদেশের পতাকা। মুক্তিবাহিনীর আক্রমণে পরাভূত হয়ে পাকবাহিনী এই দিনে রামগড়ের মাটি ছেড়ে পালিয়ে যায়। দীর্ঘ সাতমাস ছয়দিন শত্রুর দখলে থাকা এ জনপদ  শত্রুমুক্ত হয়। মুক্তি পায় রামগড়ের মানুষ। এরপর থেকে ৮ ডিসেম্বর পালন করা হয় রামগড় হানাদারমুক্ত দিবস।

৭ ডিসেম্বর সকাল ৯টা ২৫মিনিটে ভারতীয় বিমান বাহিনীর তিনটি জেট প্লেন রামগড়ে দখলদার বাহিনীর অবস্থানগুলোর ওপর প্রবল বোমা বর্ষণ করে। প্রায় সাত মিনিট বোমা হামলা শেষে প্লেন তিনটি ফিরে যাওয়ার সঙ্গে সঙ্গে মিত্রবাহিনী ও মুক্তিবাহিনী সম্মিলিতভাবে কঠোর আক্রমণ চালায় পাক হানাদারদের ওপর।

এতে ব্যাপক ক্ষতিগ্রস্ত হয় শত্রুরা। ফলে ভীতসন্ত্রস্ত পাকবাহিনীর সৈন্যরা ৭ ডিসেম্বর সন্ধ্যা থেকে পিছু হটতে শুরু করে।

৮ ডিসেম্বর  সকাল ৯টা ৫০ মিনিটে আরও দুটি ভারতীয় বিমান পাকঘাঁটির ওপর পাঁচ মিনিট বোমা বর্ষণ করে। বিমান থেকে বোমা হামলা আর স্থলে অকুতোভয় বীরযোদ্ধাদের মরণপণ গেরিলা আক্রমণে নাস্তানাবুদ হয়ে পড়ে পাক সেনারা।

৮ ডিসেম্বর বিকেলের আগেই পাক সৈন্যরা সবাই রামগড়ের মাটি ছেড়ে অন্যত্র পালিয়ে যায়। উড়ানো হয় লাল সবুজ পতাকা।

বাংলাদেশ সময়: ১৫১৮ ঘণ্টা, ডিসেম্বর ০৮, ২০১৯
এডি/এএটি

বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।
Alexa