ঢাকা, বৃহস্পতিবার, ৯ আশ্বিন ১৪২৭, ২৪ সেপ্টেম্বর ২০২০, ০৫ সফর ১৪৪২

জাতীয়

পিইসি পরীক্ষায় প্রক্সি দেওয়ায় ৮ শিক্ষার্থী বহিষ্কার

ডিস্ট্রিক্ট করেসপন্ডেন্ট | বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম
আপডেট: ০২৪৫ ঘণ্টা, নভেম্বর ১৯, ২০১৯
পিইসি পরীক্ষায় প্রক্সি দেওয়ায় ৮ শিক্ষার্থী বহিষ্কার

নীলফামারী: নীলফামারীর জলঢাকা উপজেলায় প্রাথমিক শিক্ষা সমাপনী পরীক্ষায় প্রক্সি দেওয়ার ৮ শিক্ষার্থীকে বহিষ্কার করা হয়েছে।  

সোমবার (১৮ নভেম্বর) দুপুরে নীলফামারীর জলঢাকা উপজেলার কাঁঠালী ইউনিয়নের উত্তর দেশীবাই নিম্ন মাধ্যমিক বিদ্যালয় কেন্দ্রে এ ঘটনা ঘটে।  

জানা যায় প্রক্সি পরীক্ষা দেওয়া অভিযোগ পেয়ে উপজেলা সহকারী প্রাথমিক শিক্ষা কর্মকর্তা মোশফেকুর রহমান ওই কেন্দ্র পরিদর্শনে যান।

পরিদর্শনে তিনি অভিযোগের সত্যতা পেয়ে ৮ শিক্ষার্থীকে বহিষ্কার করেন।

বহিষ্কৃতরা হলো- আজিম ইসলাম, বাবু, তারিকুল ইসলাম, রবিউল ইসলাম, সিয়াম, তানিয়া, আইরিন ও লিমন ইসলাম। তারা সবাই কাঁঠালী ইউনিয়নের বিভিন্ন স্কুল ও মাদ্রাসার সপ্তম ও অষ্টম শ্রেণির শিক্ষার্থী।
বহিষ্কৃতরা স্বীকার করে যে তারা অন্য আট জনের হয়ে শুরু থেকে পরীক্ষা দিচ্ছে। তারা আরও জানায়, উত্তর দেশীবাই ইসলামীয়া কছিমিয়া স্বতন্ত্র ইবতেদায়ী মাদ্রাসার সহকারী শিক্ষক অলিয়ার রহমান তাদের প্রত্যেককে টাকার লোভ দেখিয়ে এ কাজে বাধ্য করেছে।  

এদিকে এ ঘটনার সঙ্গে জড়িত শিক্ষার্থীকে তৎক্ষাণিক বহিষ্কার করা হলে পরে তাদের বয়সের দিক বিবেচনা করে কাঁঠালী ইউনিয়নের ইউপি চেয়ারম্যান সোহরাব হোসেন তুহিনের জিম্বায় ছেড়ে দেওয়া হয়।

এ বিষয়ে উপজেলা সহকারী প্রাথমিক শিক্ষা কর্মকর্তা মোশফেকুর রহমান বিষয়টি নিশ্চিত করে জানান, অভিযোগে প্রমাণ পাওয়ায় তাদের বহিষ্কার করা হয়েছে।

উপজেলা শিক্ষা কর্মকর্তা নুর মোহাম্মাদ বলেন, অভিযুক্ত উত্তর দেশীবাই ইসলামীয়া কছিমিয়া স্বতন্ত্র ইবতেদায়ী মাদ্রাসার বিরুদ্ধে বিধি অনুযায়ী ব্যবস্থা নেওয়া হবে।

বাংলাদেশ সময়: ঘণ্টা, নভেম্বর ১৮, ২০১৯
আরএ

বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।
Alexa