bangla news

নির্যাতিত কর্মীদের জন্য দূতাবাসে দূতাবাসে ২৪ ঘণ্টার হটলাইন

সিনিয়র করেসপন্ডেন্ট | বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম
আপডেট: ২০১৯-১১-১৬ ৯:১৭:০৬ পিএম
সাংবাদিকদের সঙ্গে কথা বলেন পররাষ্ট্রমন্ত্রী ড. এ কে আবদুল মোমেন। ছবি: বাংলানিউজ

সাংবাদিকদের সঙ্গে কথা বলেন পররাষ্ট্রমন্ত্রী ড. এ কে আবদুল মোমেন। ছবি: বাংলানিউজ

সিলেট: প্রবাসে গিয়ে নির্যাতিত হওয়া বাংলাদেশিদের জন্য সংশ্লিষ্ট দেশগুলোতে নিযুক্ত দূতাবাসে আশ্রয়ের ব্যবস্থা রাখা হয়েছে বলে জানিয়েছেন পররাষ্ট্রমন্ত্রী ড. এ কে আবদুল মোমেন। নির্যাতিতদের সাহায্যার্থে দূতাবাসগুলোতে ২৪ ঘণ্টার হটলাইন খোলা হয়েছে বলেও জানিয়েছেন তিনি।

শনিবার (১৬ নভেম্বর) সিলেট জেলা প্রশাসকের সম্মেলন কক্ষে ‘সিলেট সিটি করপোরেশন এলাকা সম্প্রসারণ’ বিষয়ক মতবিনিময় সভা শেষে সাংবাদিকদের এক প্রশ্নের জবাবে পররাষ্ট্রমন্ত্রী একথা বলেন।

বিদেশে কাজের উদ্দেশে গিয়ে লাশ হয়ে ফিরে আসা নারী শ্রমিকদের বিষয়ে ড. মোমেন বলেন, আমাদের দেশের প্রায় ৬ লাখ নারী শ্রমিক বিদেশে রয়েছেন। এর মধ্যে শুধু সৌদি আরবেই আছেন প্রায় ২ লাখ ৭০ হাজার নারী শ্রমিক। গত চার বছরে ৫১ জন নারীর মরদেহ দেশে এসেছে বলে বিশ্ববিদ্যালয়ের এক শিক্ষকের গবেষণায় দেখানো হয়েছে। চার বছরে ৬ লাখ শ্রমিকের মধ্যে ৫১ জনের মরদেহ দেশে আসা অস্বাভাবিক কিছু নয়, এদের অনেকের স্বাভাবিক মৃত্যুও হতে পারে।
 
পররাষ্ট্রমন্ত্রী বলেন, নারীদের বিদেশে চাকরি করার অধিকার থেকে বঞ্চিত করতে পারি না। কিন্তু অনেকে এই মৃত্যুকে কেন্দ্র করে বিদেশে নারী শ্রমিক পাঠানো বন্ধের দাবি তুলছেন। যদি বিশেষ কোনো চাকরিতে নারীরা নির্যাতনের শিকার হন, তবে সেই চাকরিতে নারীদের পাঠাবো কি-না, তা আমরা বিবেচনা করে দেখবো।
 
মন্ত্রী জানান, বিদেশে প্রবাসীদের প্রশিক্ষণ দেওয়া হবে। যেন তারা দক্ষতা অর্জন করে সেখানে কাজ করতে পারেন। এতে প্রবাসে তাদের আয়ও বাড়বে। 

কাজের জন্য সৌদি আরব গমনেচ্ছুদের দৃষ্টি আকর্ষণ করে মন্ত্রী বলেন, সৌদি আরবের অর্থনৈতিক অবস্থা ভালো নয়, সেখানে কেউ যেতে চাইলে আগে চাকরির ব্যাপারে নিশ্চিত হয়ে বৈধভাবে যাওয়া উচিত।
 
বাংলাদেশ সময়: ২১১৩ ঘণ্টা, নভেম্বর ১৬, ২০১৯
এনইউ/এইচএ/

        ইউটিউব সাবস্ক্রাইব করুন  

বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।

Alexa
cache_14 2019-11-16 21:17:06