ঢাকা, শনিবার, ৩১ শ্রাবণ ১৪২৭, ১৫ আগস্ট ২০২০, ২৪ জিলহজ ১৪৪১

জাতীয়

সিলেটে ১২ দিন আটকে রেখে শিশুকে ধর্ষণ, আটক ১

সিনিয়র করেসপন্ডেন্ট | বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম
আপডেট: ০৬০০ ঘণ্টা, নভেম্বর ১৪, ২০১৯
সিলেটে ১২ দিন আটকে রেখে শিশুকে ধর্ষণ, আটক ১

সিলেট: গাজীপুর থেকে অপহৃত শিশুকে সিলেট থেকে উদ্ধার করেছেন র‌্যাপিড অ্যাকশন ব্যাটালিয়ন (র‌্যাব-৯) সদস্যরা। সেই সঙ্গে তাহের আলী (২০) নামে অপহরণকারী চক্রের এক সদস্যকে আটক করা হয়েছে।

বুধবার (১৩ নভেম্বর) বেলা আড়াইটায় র‌্যাব-৯ সদর দপ্তরে এ নিয়ে সংবাদ সম্মেলন করে র‌্যাব-৯’র মেজর শওকাতুল মোনায়েম বলেন, ১২ দিন আগে গাজীপুর থেকে অপহৃত শিশুটিকে সিলেটের দক্ষিণ সুরমার নিশ্চিন্তপুর গ্রাম থেকে উদ্ধার করা হয়।
 
গত ৩১ অক্টোবর শিশুটিকে নিয়ে তার নানি শপিং করতে বের হন।

গাজীপুর চান্দুরা চৌরাস্তা এলাকায় ওই নারীকে চেতনানাশক খাবার খাইয়ে শিশুটিকে অপহরণ করে দুর্বৃত্তরা। অপহরণের পর আটকে রেখে শিশুটিকে গণধর্ষণ করা হয় এবং পরে শিশুটির পরিবারের কাছে দুই লাখ টাকা মুক্তিপণ দাবি করে তারা।
 
র‌্যাব’র ওই কর্মকর্তা জানান, কেনাকাটায় যাওয়ার পর দুই অপরিচিত যুবক ওই বালিকা ও তার নানিকে ফুসলিয়ে পাশের একটি রেস্টুরেন্টে নাস্তা করাতে নিয়ে যায়। নাস্তার সঙ্গে চেতনানাশক ওষুধ খাইয়ে শিশুকে অপহরণ করে। চেতনা ফিরে ওই নারী তার নাতনি নেই, সঙ্গে মোবাইল ফোনও নেই দেখতে পান। এরপর অন্য একটি মোবাইল ফোন থেকে নিজের মোবাইলে ফোন দিলে অপহরণকারীরা তার নাতনিকে ফিরে পেতে দুই লাখ টাকা মুক্তিপণ দাবি করে।
 
গত ৭ নভেম্বর ওই নারী বাদী হয়ে গাজীপুরের বাসন থানায় একটি মামলা করেন। এরপর র‌্যাব’র সিনিয়র এএসপি সত্যজিৎ কুমার ঘোষের নেতৃত্বে নিশ্চিন্তপুর থেকে ওই বালিকাকে উদ্ধার করে র‌্যাব। এসময় তাহের আলী (২০) নামে অপহরণকারী চক্রের এক সদস্যকে গ্রেপ্তার করা হয়। সে নিশ্চিন্তপুরের মুজিবুর রহমানের ছেলে। এছাড়া উদ্ধারের পর জিজ্ঞাসাবাদে অপহৃত বালিকা তাকে ধর্ষণ করা হয়েছে বলে র‌্যাবের কাছে স্বীকার করে।
 
বাংলাদেশ সময়: ০০৫৮ ঘণ্টা, নভেম্বর ১৩, ২০১৯
এনইউ/জেডএস

বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।
Alexa